নিউজ

মহারাজের হার্ট অ্যাটাকের পর নেটিজেনদের সমালােচনায় বন্ধ বিজ্ঞাপন

নিউজ ডেস্কঃ খবরের চ্যানেলই হােক বা বিনােদনমুলক চ্যানেল টিভি খুললেই নিয়মিত ফরচুন তেলের বিজ্ঞাপনে হাসিমুখে দেখা যেত সৌরভকে।দীর্ঘদিন ধরেই টিভিতে ওই তেলের বিজ্ঞাপন করছেন সৌরভ। গত বছর জানুয়ারিতে ওই পণ্যের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর হন তিনি।

Maharaj's heart attack

এই তেল আপনার হৃদযন্ত্রকে সুরক্ষিত রাখে, শরীরের রােগ প্রতিরােধ ক্ষমতা বাড়ায়’,এটাই ছিল এই পণ্যের ট্যাগলাইন।বিজ্ঞাপনে লেখা থাকত “দাদা আপনাদের ৪০-এ স্বাগত জানাচ্ছে”।মহারাজ যেখানে এই তেল খেয়ে সুস্থ থাকার বার্তা দেন,সেখানে মাত্র ৪৮ বছর বয়সে তাঁর কি করে হৃদযন্ত্রের ধমনীতে ব্লকেজ ধরা পরে।

দাদার হার্ট অ্যাটাকের পর সেই নিয়েই শুরু হল শােরগােল।নেটিজেনরা অনেকেই নানা রকম মিম শেয়ার করতে শুরু করলেন।তাঁদের দাবি, যিনি এই বিজ্ঞাপনের মুখ,তিনি নিজেই অসুস্থ।তাই মিথ্যা প্রতিশ্রুতি দিয়ে এই পণ্যের বিজ্ঞাপন অবিলম্বে বন্ধ করা হােক।

এই বিজ্ঞাপন নিয়ে ভারতের প্রাক্তন ক্রিকেটার কীর্তি আজাদও খোঁচা দিয়েছেন। সৌরভের ওই তেলের বিজ্ঞাপন নিয়ে সােশ্যাল মিডিয়ায় চলছে ট্রোল। প্রাক্তন ক্রিকেটার তথা বর্তমান কংগ্রেস নেতা কীর্তি আজাদও সেই নিয়ে সৌরভকে লিখেছেন,দাদা পরীক্ষা করে বিজ্ঞাপন করাে। অনেকে বলেছেন হার্টকে সুস্থ রাখতে ভােজ্য তেল পাল্টান।আপাতত সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল।তবে ট্রোলিং-এর মুখে পড়ে এই বিজ্ঞাপন বন্ধ করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন সংস্থার আধিকারিকদের ধারণা, সােশ্যাল মিডিয়ায় যে বিরূপ প্রতিক্রিয়া তৈরি হয়েছে,তা থেকে আবারও গ্রাহকদের বিশ্বাসযােগ্যতা অর্জনের জন্য দ্রুত ব্যবস্থা করতে হবে ফরচুনকে।জোর দিতে হবে নয়া কৌশলে,তবেই ফিরে পাওয়া যাবে গ্রাহকদের আস্থা।তবে সৌরভকে ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডরের পদ থেকে সরানাে হচ্ছে না,সংস্থার এক মুখপাত্র বলেছেন,”সৌরভের সঙ্গে আমরা যুক্ত থাকতে চাই এবং ভবিষ্যতে তিনিই অ্যাম্বাসাডর থাকবেন।আমরা সাময়িক ভাবে টিভির বাণিজ্যিক বিজ্ঞাপন বন্ধ রেখেছি।সৌরভ সুস্থ হয়ে এলে ওঁর সঙ্গে কথা বলে পরবর্তী পদক্ষেপ নিয়ে আলােচনা করা হবে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button