নিউজ

al-amin-wife Extra Affair : নারী নির্যাতনের মামলায় ক্রিকেটার আল আমিন এবার স্ত্রীর পরকীয়ার প্রমাণ দেখালেন

al-amin-wife Extra Affair : জাতীয় ক্রিকেট দলের পেসার আল আমিন হোসেনকে প্রায় সকলেই চেনেন। ক্রিকেটার আল আমিন একজন ভাল খেলোয়াড় তা কারও অজানা নয়। কিন্তু মাঠের বাইরে হঠাৎই তার বিরুদ্ধে নারী নির্যাতনের মামলার অভিযোগ উঠে। তার বিরুদ্ধে মিরপুর মডেল থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন তারই স্ত্রী ইসরাত জাহান। এরফলে খবরের শিরোনামে উঠে আসেন জাতীয় ক্রিকেট দলের পেসার আল আমিন হোসেন।

এই মামলায় আগাম জামিনও নিয়েছেন আল আমিন। তবে স্ত্রীকে নির্যাতনের অভিযোগকে অস্বীকার করেন আল আমিন।একই সঙ্গে স্ত্রীর বিরুদ্ধে নানা ধরনের অভিযোগ তোলেন তিনি। স্ত্রী ইসরাত জাহানের অভিযোগ আল আমিন তাঁকে মারধর করেন। এ জন্যই তিনি থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন।

বিয়ের পর জাতীয় দলের ক্রিকেটার আল আমিনের সঙ্গে সংসার জীবন ভালোই কাটছিল স্ত্রী ইসরাত জাহানের। তবে জাতীয় দলে সুযোগ পাওয়ার পর থেকে আল আমিন একটু একটু করে বদলাতে থাকে।স্ত্রীর অভিযোগ আল আমিন বাসায় নিয়মিত আসত না। বাসায় থাকলেও নানা অজুহাতে দীর্ঘ সময় ফোনে কথা বলত। এসব বিষয়ে প্রশ্ন করলে সে বলত আমি এখন জাতীয় দলের খেলোয়াড়,তাই অনেকের সাথে কথা বলতে হয়।

আরও পড়ুন :  করোনার কোপে এবার রেল পরিষেবায়, শিয়ালদহ শাখায় বাতিল বেশ কিছু লোকাল ট্রেন

কিন্তু ধীরে ধীরে আমার ভুল ভাঙে। এই নিয়ে আল আমিনকে প্রশ্ন করলে সে আমার উপর মানসিক ও শারীরিক নির্যাতন চালিয়েছেন। তবে ক্রিকেটার দাবি করেন স্ত্রীর প্রতিটি অভিযোগে মিথ্যা। বরং স্ত্রী পরকীয়ায় লিপ্ত হয়ে তার ক্যারিয়ার ধ্বংস করাই তার স্ত্রীর উদ্দেশ্য ছিল বলে অভিযোগ করেন। শুধু তাই নয় এবার স্ত্রীর পরকীয়ার প্রমাণও দেখালেন ক্রিকেটার আল আমিন।

আল আমিনের স্ত্রী থানায় এসে লিখিত অভিযোগ করলেও তাকে গ্রেপ্তার করা যায়নি। কারন আল আমিন আগাম জামিন নিয়ে নেন। এই বিষয় নিয়ে ৫ দিন আত্মগোপনে থাকার পর প্রেস বিফিংয়ে খোলামেলা কথা বলেছেন ক্রিকেটার আলামিন।এই মামলার প্রতিটি বিষয় নিয়ে তথ্য প্রমাণ দিয়েছেন জাতীয় দলের এই পেসার। মোবাইলে কথা বলার বিভিন্ন ফুটেজ ও স্ক্রিনশট তুলে ধরেন আল আমিন।

আল আমিন বলেন আমি ঘরোয়া ও জাতীয় ক্রিকেট নিয়ে ব্যস্ত থাকি। বেশির ভাগ সময় আমাকে বাড়ির বাইরে থাকতে হয়। আর আমার স্ত্রী মা-বাবার সঙ্গে থাকে। সে মাঝরাতে দরজা বন্ধ করে পরপুরুষের সঙ্গে ভিডিও কলে কথা বলে। এই নিয়ে অনেকবার ঝগড়া হওয়ায় অনেক ফোনও ভেঙে ফেলা হয়েছে। প্রেস ব্রিফিংয়ে আল আমিনের সাথে উপস্থিত ছিলেন তার বাবা-মা এবং তার দুজন উকিল। সংবাদ সম্মেলনে আল আমিন জানান এই মামলার শেষ পর্যন্ত লড়বেন তিনি এবং সবার সহযোগিতাও কামনা করেছেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button