নিউজ

রাজনৈতিক প্রতিহিংসার বলি কমপক্ষে ১২ জন। উওপ্ত বীরভূমের রামপূরহাট।

রাজনৈতিক প্রতিহিংসার বলি কমপক্ষে ১২ জন। উওপ্ত বীরভূমের রামপূরহাট।

নিউজ ডেস্কঃ খুনের ঘটনায় উওপ্ত বীরভূমের রামপূরহাট।বোমা ছুড়ে তৃনমূল নেতা ভাদু শেখ।বয়স ৩৮।এই ঘটনায় পুরুষ ও মহিলা মিলিয়ে মোট ১২জনের মৃত্যু হয়েছে।ভাদু রামপুরহাট এক নঙ ব্লকের বরশাল গ্রাম পঞায়েতের উপপ্রধান ছিলেন ভাদু শেখ।তার খুনের ঘটনায় পাচটি বাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়েছে।মৃতদের মধ‍্যে দুজন শিশু সহ মোট ১২ জনের রয়েছে।অভিযোগ ফটিক শেখ ও ছোট লালন শেখের পরিবারের সদস‍্যদের পুরিয়ে মারা হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে সোমবার রাত সাড়ে আটটা নাগাত ১৪ নং জাতীয় সড়কের ধারে বকদই মোরে দাড়িয়ে ফোন করছিলেন ভাদু শেখ।সেই সময় দুটি বাইকে চারজন দুস্কৃতি এসে তাকে পরপর কয়েকটি বোমা ছোড়ে।এরা দুজনেই ভাদু শেখ খুনে অভিযুক্ত।ঘটনাস্থলে যাচ্ছে ফরেন্সিক টিম ও সিআইডি। হেলিকপ্টারে যাচ্ছেন ফিরহাদ হাকিম ও আশিস বন্দোপাধ‍্যায়।

আরও পড়ুন :  এবার করোনায় ভেষজ ওষুধে ভরসা! অনুমোদন দিতে পারে WHO

ঘটনাস্থলে গিয়েছে বিরাট পুলিশ বাহিনী।উপপ্রধানকে উদ্ধার করে স্থানীয় মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানকার চিকিৎসকরা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করে।এই ঘটনায় ব‍্যাপক চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয় ঐ এলাকায় শুরু হয় বোমাবাজি ।যদিও পুলিশ গিয়ে নিয়ন্ত্রণে আনে পরিস্থিতি।বকদই এলাকার তৃনমূল ১নং ব্লক সভাপতি আনারূল হোসেন বলেন ঘটনার সময় ভাদু শেখ বকদই গ্রামের ১৪ নং জাতীয় সড়কে দাড়িয়ে ফোন করছিলেন আচমকাই চারজন বাইক দুস্কৃতি বোমা ছোড়ায় ভাদু শেখের মৃত্যু হয়।

জানা গিয়েছে এর আগেও ভাদু শেখের দাদাকে মারা হয়েছিল।সেই অভিযুক্তরা এখনো অধরা।আমরা পুলিশকে অবিলম্বে অভিযুক্তদের ধরবার জন্য আরজি জানিয়েছি।এদিকে পুলিশ ঘটনার সময়কার সিসিটিভি ফুটেজ সংগ্রহ করেছে।

Related Articles

Back to top button