নিউজ

নিয়ম মেনে কুকুর-বিড়ালের জন্য হবে শেষকত্য, থাকবে পুরোহিতও; শ্মশান বানাচ্ছে দক্ষিণ দিল্লি পুরসভা!

নিউজ ডেস্কঃ অভাবনীয় উদ‍্যোগ যা হয়তো দেশে এই প্রথম করে দেখালেন দক্ষিণ দিল্লি পৌরসভা।এবার কুকুরের জন্য শ্মশান তৈরী করে ফেললেন তারা।

মানুষের প্রতি প্রভুভক্ত কুকুরের অবদান অনস্বীকার্য।মানুষও খুব ভালোবাসে কুকুরকে।মানুষ ও কুকুরের যে ভালোবাসার বন্ডিং তাকে স্বীকৃতি দিতেই এই উদ‍্যোগ নিয়েছে দিল্লি পৌরসভা।পোষ‍্যের দেহ পোড়ানোর পর ১৫ দিন অবধি ছাই সংরক্ষণ করার ব‍্যবস্থাও করা হচ্ছে সেই শ্মশানে।যাতে সম্পূর্ণ নিয়ম মাফিক শেষকৃত্য সম্পন্ন হতে পারে।

Crematorium for dogs,Crematorium for cat,

এই শ্মশান তৈরী হবে দিল্লির দারকা এলাকায় ৭০০ বর্গমিটার এলাকা জুড়ে এই শ্মশান তৈরী হবে।আর সেজন্য প্রজেক্ট নিয়ে তৎপরতা তৈরী হয়ে গিয়েছে।খুব শ্রীঘ্রই কাজটি শুরু করার প্রক্রিয়া নেওয়া হয়েছে বলেই খবর।

এই প্রসঙ্গে দিল্লির এক আধিকারিক জানিয়েছেন,”প্রজেক্ট নিয়ে দীর্ঘদিন আলোচনা চললেও সম্প্রতি তাতে শিলমোহর দিয়েছে দিল্লি পৌরসভা।খুব শ্রীঘ্রই টেন্ডার দেওয়া হবে।এক্ষেত্রে প্রজেক্টের কাজ পাবলিক ও প্রাইভেট পার্টনারশিপে হবে।”

কুকুর বিড়াল মালিকের বাড়িতে থাকতে থাকতে বাড়ির সদস‍্যের মতো হয়ে ওঠে।তাই যাতে তাদের শেষকৃত্য সম্মানজনক ভাবে হয় সেই কথা মাথায় রেখে এই উদ‍্যোগ নিয়েছে দিল্লি পৌরসভা।

দক্ষিণ দিল্লি পৌরসভার এক আধিকারিক সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বলেছেন,”পরিবারের সাথে থাকতে থাকতে একটা পরিবারের মানুষ মারা গেলে যেমন কষ্ট হয় তেমনি কষ্ট হয় ভালোবাসার পোষ‍্য জীব মারা গেলে।তাছাড়া তারা মারা গেলে সৎকার করতেও কম সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়না। তাই শেষকৃত্য যাতে নিয়ম মেনে হয়,তারজন্য শ্মশানে থাকছে পুরোহিত রাখার ব‍্যবস্থাও।তাতে সমস্ত নিয়ম ভালোভাবে পালন করতে পারবে মানুষ।” প্রজেক্ট অনুযায়ী এখানে ১০০ কেজির একটি ও ১৫০ কেজির একটি চুল্লি স্থাপন করা হবে।এছাড়াও থাকবে কুকুর বহন করা গাড়ি।

পৌরসভা জানিয়েছে,”৩০কেজি পর্যন্ত কুকুরের শেষকৃত্য সম্পন্ন করলে চার্জ লাগবে ২০০০ টাকা।এর বেশি হলে চার্জ লাগবে ৩০০০ টাকা।রাস্তার কুকুর বিড়ালের জন্য কোনরকম চার্জ নেওয়া হবেনা শেষকৃত্যের জন্য।তবে তা শুধুমাত্র দক্ষিণ দিল্লি পর্যন্ত।দক্ষিণ দিল্লির বাইরের এলাকার রাস্তার কুকুর বিড়ালের শেষকৃত্য করতে হলে ৫০০ টাকা চার্জ দিতে হবে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button