টেক গাইড

WhatsApp-এ ঘুরছে ‘দ্য কাশ্মীর ফাইলস’ সিনেমার ভুয়ো লিঙ্ক, আর এই লিঙ্কের ফাঁদে পড়ে লক্ষ লক্ষ টাকা খোয়াচ্ছেন ইউজাররা

Fake link of movie 'The Kashmir Files' is circulating on WhatsApp,

নিউজ ডেস্কঃ বিনা খরচায় বাড়ি বসে মুভি দেখার চাহিদা এখন বেশ বেড়েছে।কিন্তু এই নিখরচায় বাড়ি বসে মুভি দেখার চাহিদার কারনে আবার সর্বস্বান্ত হওয়ার সম্ভাবনাও আছে।ভাবছেন মুভি দেখে কি করে সর্বস্বান্ত হয়,তাহলে ব্যাপারটা একটু খোলসা করেই বলা যাক।

গত ১১ মার্চ মুক্তি পেয়েছে পরিচালক বিবেক অগ্নিহোত্রির ছবি ‘দ্য কাশ্মীর ফাইলস’ (The Kashmir Files)। আর রিলিজ হওয়া মাত্রই চারদিকে রীতিমতো শোরগোল ফেলে দিয়েছে এই সিনেমা।বক্স অফিসে লক্ষ্মীলাভের সঙ্গে সঙ্গে এই সিনেমা দর্শকদেরও প্রচুর প্রশংসা কুড়োচ্ছে।এই ছবির প্রশংসায় পঞ্চমুখ খোদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিও। সকল দেশবাসীকে তিনি ছবিটি দেখার জন্য অনুরোধ করেছেন।

বেশিরভাগ সিনেমা হলেই একেবারে হাউজফুল বোর্ড।আর এই অবস্থায় যদি কেউ ফ্রিতে সিনেমাটি ডাউনলোড করে দেখার সুযোগ পায়, তাহলে তো কোনো কথাই নেই।দা কাশ্মীর ফাইলস সিনেমাটির ভুয়ো লিঙ্ক ছড়িয়ে পরেছে WhatsApp আর তা শেয়ার করা হচ্ছে। এই ছবি ডাউনলোডের নানা লিঙ্কে ক্লিক করলেই ইউজাররা হচ্ছেন নিঃস্ব।এই ছবির জনপ্রিয়তাকে কাজে লাগিয়ে মানুষ ঠকাতে মাঠে নেমে পড়েছে জালিয়াতরা।

সাইবার প্রতারকরা হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে বিনামূল্যে ‘দ্য কাশ্মীর ফাইলস’ মুভি ডাউনলোড করার লিঙ্ক পাঠাতে শুরু করেছে। ব্যবহারকারীরা এই লিঙ্কগুলিতে ক্লিক করলেই স্ক্যামাররা ইউজারদের ফোনের সম্পূর্ণভাবে অ্যাক্সেস পেয়ে যায়।আর এর ফলে তাদের ব্যক্তিগত ডিটেলসের পাশাপাশি ব্যাংক অ্যাকাউন্টের বিশদ বিবরণ আদায় করে নেওয়া হ্যাকারদের কাছে যে জলবৎ তরলং, সেকথা নিশ্চয়ই আর আলাদা করে বলে দেওয়ার কোনো প্রয়োজন নেই।

‘দ্য কাশ্মীর ফাইলস’ ছবিটির চর্চিত বিষয়ঃ-

১৯৯০-এর দশকে কাশ্মীরী পণ্ডিতদের ভূস্বর্গ থেকে বিতারণ কেন্দ্রিক বিষয়কে কেন্দ্র করে লেখা হয়েছে এই ছবির চিত্রনাট্য। ছবিতে মুখ্য চরিত্রে রয়েছেন অনুপম খের, মিঠুন চক্রবর্তী, পল্লবী যোশীর মতো পরিচিত মুখ তথা নামী তারকা।রিলিজের পর সপ্তাহের প্রথম কাজের দিন অর্থাৎ সোমবার দেশব্যাপী ১৫ কোটির ব্যবসা করেছে এই বলিউডি ছবি। আর তারপর থেকে যেভাবে দুরন্ত গতিতে এগোচ্ছে, সেই ট্রেন্ড চলতে থাকলে অচিরেই ১০০ কোটির ক্লাবে ঢুকে পড়বে বিবেক অগ্নিহোত্রির ‘দ্য কাশ্মীর ফাইলস’।এই ছবিকে দেশের প্রায় এক ডজন রাজ্যে করমুক্ত ঘোষণা করা হয়েছে, যার মধ্যে রয়েছে অসম, কর্নাটক, হরিয়ানা। এমনকি অনেক জায়গায় এই ছবি দেখার জন্য অফিস থেকে ছুটিও মিলছে।

এই সিনেমার ভুয়ো লিঙ্কের ফাঁদে পা দিয়ে দিল্লির এক বাসিন্দা প্রায় ৩০ লক্ষ টাকা খুইয়েছেন। এছাড়াও এরকম আরও অনেক অজস্র উদাহরণ রয়েছে।তাই পুলিশের তরফে সকল ব্যবহারকারীদের সতর্ক করে জানানো হয়েছে যে, সম্পূর্ণভাবে নিশ্চিত না হয়ে হোয়াটসঅ্যাপে আসা ‘দ্য কাশ্মীর ফাইলস’ মুভি সংক্রান্ত কোনো লিঙ্কে তারা যেন খবরদার ক্লিক না করেন। কারণ নিখরচায় সিনেমা দেখার লোভে হ্যাকারদের পাতা ফাঁদে পা দিলে অচিরেই খালি হয়ে যেতে পারে ব্যাংক অ্যাকাউন্ট।তাই হোয়াটসঅ্যাপ বা অন্য কোনো সোশ্যাল মিডিয়ায় পাওয়া ‘দ্য কাশ্মীর ফাইলস’ সিনেমা সংক্রান্ত কোনো লিঙ্কে কখনোই ক্লিক করবেন না।

Related Articles

Back to top button