নিউজ

অভিনব উদ‍্যোগ! দশটি ভাষার সংবাদপত্রের তথ‍্য সংগ্রহ করে তাক লাগিয়ে দিলেন খেজুরির মধূসূদন

পূর্ব মেদিনীপুর, খেজুরিঃ মানুষের কত কিছুই না সংগ্রহের শখ থাকে।কেউ পুরোনো কয়েন সংগ্রহ করেন তো কেউ ডাকটিকিট,কেউ করেন বিভিন্ন ধরনের প্রবাল আবার কেউ ঐতিহাসিক বিভিন্ন ঐতিহ্যবাহী জিনিস।

Fancy enterprise! Khejuri Madhusudan collected information from newspapers in ten languages ​​and put it on the shelf

কিন্তু আজ যে সংগ্রহের কথা শুনবেন তা বিরল।হ‍্যা অভিনব ও বিরল এই সংগ্রহ করে দেখালেন পূর্ব মেদিনীপুরের খেজুরির টিকাশি গ্রামের বাসিন্দা মধূসূদন জানা।পেশায় তিনি স্কুলের পার্শ্বশিক্ষক।তার ইচ্ছে যে ১৫ টি ভাষা কাগজের টাকায় থাকে সেই পনেরোটি ভাষার সংবাদপত্র সংগ্রহ করার।তবে ইতিমধ্যে তার মধ্যে ১০ টি ভাষার সংবাদপত্র সংগ্রহ করে ফেলেছেন তিনি।

Webp.net compress image 2 14

কেন হঠাৎ এরকম সংগ্রহের ইচ্ছে হলো জিজ্ঞেস করায় মধূসূদনবাবু জানিয়েছেন,”মাধ‍্যমিকের রেজাল্ট দেওয়ার পর এক সাংবাদিককে খুব যত্ন সহকারে খবর সংগ্রহ করতে দেখেছি অথচ তার পরদিন সেই খবর সংবাদপত্রে প্রকাশিত হওয়ার পর সেটা একজন পাঠক পড়ে ডাস্টবিনে ফেলে দিলেন।মনে হলো।তা দেখে মনে হলো কতজনের পরিশ্রমের ফসল একবেলায় আবর্জনার স্তুপে ঠাই পেলো।”আর তখন থেকেই পেপার সংগ্রহ করতে লাগলেন তিনি।

সংএকজন সাংবাদিক বহু পরিশ্রম করে খবরের সত‍্যতা যাচাই করে খবর সংগ্রহ করে।সেটি বিভিন্ন পদ্ধতির মাধ্যমে প্রিন্ট করে পৌঁছে যায় পাঠক পাঠিকাদের হাতে।সকালে সযত্নে গ্রহন করার পর পরেরদিন সকালে পৌঁছে যায় ডাস্টবিনে।এমন কি খবর কাগজ বিছিয়ে বসা,কাঁচ পরিষ্কার,বোতল পরিষ্কার,ঢোঙা,খাওয়ার টেবিলে বিছানো,দেওয়ালে মাড়ানো।বিভিন্ন কাজে ব‍্যবহার করা হয়।বলা য়ায় যে শিক্ষা সংস্কৃতির মেরুদন্ড হলই খবরের কাগজ। সেই মূল‍্যহীন কাগজের মধ্যে যে অমূল্য সম্পদ ভরা রয়েছে সেই তথ‍্য গুলি তুলে ধরতে চেয়েছি জনসমক্ষে।খবর কাগজের মধ্যে যে সব তথ‍্য থাকে তা কতটা গুরুত্বপূর্ণ তা বোঝা যায় সংরক্ষণের মাধ্যমে।এই সংরক্ষণ নিয়ে এই প্রোজেক্ট তৈরি করতে তার সময় লেগেছে দীর্ঘ ৭বছর।প্রোজেক্টির নাম”অমূল‍্য সম্পদে ভরা খবরের কাগজ”।
মধূসূদনবাবু বলেছেন,”আমার প্রোজেক্টির মূল উদ্দেশ্য _
সংবাদের মূল‍্য,সাংবাদিকের মূল‍্য এবং সর্বোপরি খবর কাগজের মূল‍্য সমাজের কাছে বোঝানোর চেষ্টা করেছি যে পত্র পত্রিকার ভিতরে কী অসীম ক্ষমতা সম্পন্ন তথ‍্যচিএ লুকানো থাকে।”

এরপর প্রোজেক্ট সম্পর্কে তাকে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি বলেছেন,”আমার প্রোজেক্টে বহু পুরোনো প্রায় ৭০৮০বছরের খবর কাগজের তথ‍্যচিত্র সংগ্রহ করা হয়েছে।৫২রকমের পত্র পত্রিকার সংবাদ সংগ্রহ করেছি।শুধু তাই নয় ১০ টি ভাষায় পত্র পত্রিকার উপর কাজ করেছি।যে সমস্ত তথ‍্যচিত্র সংগ্রহ করা হয়েছে তার মধ‍্যে কয়েকটি হল
১.জওহরলাল নেহেরুর প্রথম পতকা উত্তলোনের তথ‍্যচিত্র।
২.মহাত্মা গান্ধীর শেষ অনশন ও অসহযোগ আন্দোলনের বৈঠকের তথ‍্যচিত্র ।
৩.১৮৭৪ সালে কলকাতা দৃশ‍্যের তথ‍্যচিত্র।
৪.কলকাতাতে যেদিন প্রথম ট্রাম চলে তার তথ‍্যচিত্র।
৫.১৯৫০ সালে প্রথম প্রজাতন্ত্র দিবেসর তথ‍্যচিত্র।
৬.ক্ষুদিরামের ফাঁসির স্থলের তথ‍্যচিত্র।
৭.১৯১২ সালে টাইটানিক দৃশ‍্যের তথ‍্যচিত্র।
৮.মাদার টেরিজা যেদিন মারা যায় তার তথ‍্যচিত্র।
৯.প্রথম কার্গিল যুদ্ধ ও প্রথম বিধবা বিবাহের তথ‍্যচিএ।
১০.১৯৯৬ সালে বিশ্বকাপ,পুলওয়ামা অ‍্যাটাক,নোট বাতিল,ভুজের ভূমিকম্প,বুলবুল, আমফান ইত‍্যাদি।এই রকমের ৯০০টি প্রমাণ পত্র সংরক্ষণ করেছি।”এছাড়াও তিনি বলেছেন,”সমস্ত সংবাদপত্রের সংগ্রহগুলি বি ফোর(B4)সাইজের কাগজের উপর সেটে ল‍্যামিনেশান করে রেখেছি।”

অভিনব এই উদ‍্যোগ বিরল তো বটেই এবং প্রশংসিত হয়েছে প্রচুর।সংবাদপত্র যে কতটা গুরুত্বের তা দেখিয়ে দিলেন মধূসূদনবাবু তার এই প্রোজেক্টের মাধ‍্যমে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button