Flipkart সেলে ল্যাপটপ অর্ডার দিয়েছিলেন, তার পরিবর্তে যা এলো, ভাবতেও পারবেন না!

বাজারের তুলনায় অনলাইনের পন্য সামগ্রীর দামও বেশ কম। এটি সময় বাঁচানোর এবং কেনাকাটা করার একটি ভাল উপায়। এক কথায় বলা যেতে পারে কেনাকাটাকে আরও সহজলভ্য, আরামদায়ক করার পদ্ধতি অনলাইন শপিং। অনেকেই দীর্ঘ সময় অফিসে ব্যস্ত থাকে, এমন পরিস্থিতিতে তাদের কেনাকাটা করার সময় থাকে না।তাদের ব্যস্ত জীবনকে সহজ করার একমাত্র মাধ্যম হল অনলাইন কেনাকাটা।

তবে করোনা ভাইরাস মহামারির সময় থেকে মানুষ অনলাইন কেনাকাটার প্রতি আর বেশি আসক্ত হয়েছেন। ছোঁয়াচে অতিমারির হাত থেকে বাচার জন্য উপযুক্ত বিকল্প অনলাইন কেনাকাটা। কারণ অনলাইন কেনাকাটায় ঘরের বাইরে বেরনোর প্রয়োজন নেই, অপরিচিত মানুষের সাথে মেলামেশা বা ছোঁয়াছুঁয়ির আশঙ্কাও এড়ানো যায়।তাই অনেকেই অনলাইনে বাজার করার দিকে ঝুঁকছেন।

Advertisement
Flipkart's Big Billion Day sale
Flipkart’s Big Billion Day sale

আর অনলাইন শপিং মানেই Flipkart, Amazon,myntra, meesho এছাড়াও এই ধরনের আরও অনেক সাইট আছে। বেশিরভাগ ইন্টারনেট ব্যবহারকারীই এই সাইটগুলি থেকেই কেনাকাটি করতে পছন্দ করেন। কারন এই সাইটগুলিতে কেনাকাটার খরচ তুলনামূলক কম। তাই অনেকেই কম খরচে কেনাকাটা করার জন্য এই সাইটগুলিকে বেছে নেন।আর তাছাড়া এই সকল সাইটগুলি মাঝে মধ্যেই নানা অফার দিয়ে থাকে।

বাজারে যেমন সেল চলে তেমনি অনলাইনেও মাঝে মধ্যেই দেদার সেল চলে।বিশেষ করে ফ্লিপকার্ট ও অ্যামাজনের সেলের জন্য ক্রেতারা অপেক্ষা করে বসে থাকেন। ফ্লিপকার্টের বিগ বিলিয়ন ডে-র সেল মানে তো আর কথাই নেই। কম দামে মোবাইল, ল্যাপটপ, জামা কাপড় সব কিছুই পাওয়া যায়। এই সেলে এক ধাক্কায় প্রায় ২০ শতাংশ বা তার বেশি দাম কমে যায়। আর স্বাভাবিকভাবেই এই সুযোগ কেউ হাতছাড়া করতে চাইবেও না।

পুজোতে ফ্লিপকার্টের বিগ বিলিয়ন ডে-র সেল শুরু হয়েছিল। আর এই সুযোগের অপেক্ষায় বসে ছিলেন আহমেদাবাদের আইআইএম-এর এক ছাত্র যশস্বী শর্মা। বিগ বিলিয়ন সেলে তিনি ফ্লিপকার্ট থেকে একটি ল্যাপটপ কেনেন। এমনকি সব টাকা অনলাইনের মাধ্যমে পেমেন্টও করে দেন। কিন্তু বক্স খুলতেই যুবকের মাথায় হাত।বক্সে এল কী? যার জন্য যুবকের মাথায় হাত।বক্সে যা এল তা আপনি ভাবতেও পারবেন না।

ল্যাপটপটি সময় মতো ডেলিভারি হয়ে যায়। যদিও ডেলিভারির সময় যশস্বী শর্মা বাড়িতে ছিলেন না। তাঁর বাবা প্রোডাক্টটি রিসিভ করেন। ফ্লিপকার্টের একটি নিয়ম আছে, ডেলিভারি বয়ের সামনেই তা খুলে দেখে নিতে হবে। কারন আপনি যা অর্ডার করেছেন সেটাই এসেছে কিনা তা দেখার জন্য। ডেলিভারি বয়ের পাঠানো ওটিপি অ্যাকসেপ্ট করে প্রডাক্ট নিতে হয়। যদি প্রোডাক্ট ভুল থাকে, তাহলে সঙ্গে সঙ্গে ফেরত নেওয়ার রিকোয়েস্ট পাঠিয়ে দেওয়া হয়।এরপর ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে অ্যাকাউন্টে টাকা ফেরত চলে আসবে।

কিন্তু যশস্বীর বাবা সেই নিয়ম মানেননি। কারণ তিনি এই নিয়ম সমন্ধে জানতেন না। এর পর যশস্বী বাড়ি ফিরে প্রোডাক্ট খুলেন।আর খোলার পর দেখা যায় ল্যাপটপের বদলে সেখানে ডিটারজেন্ট সাবান রয়েছে। মানে কাপড় কাচার সাবান। হাজার হাজার টাকার ল্যাপটপের বদলে এল কিনা কাপড় কাচার সাবান।এই দৃশ্য দেখেই ওই ছাত্রের মাথায় হাত পড়ে যায়।

এরপর সে গোটা বিষয়টা জানিয়ে ফ্লিপকার্টে মেইল করে। এর সাথে লিঙ্কডইনেও গোটা বিষয়টা পোস্ট করেন। তারপরেই ফ্লিপকার্ট কর্তৃপক্ষ নড়েচড়ে বসে। ফ্লিপকার্টের তরফে জানানো হয়, “যদিও তাঁদের ওপেন বক্স পলিসি এক্ষেত্রে মানেননি ক্রেতা। পলিসি মানলে তখনই এই সমস্যা সমাধান হয়ে যেত। তবে এই বিশেষ কেসটি ফ্লিপকার্ট কর্তৃপক্ষ আলাদা করে খতিয়ে দেখছে।

সব ঠিক থাকলে তিন থেকে চার দিনের মধ্যে ওই ছাত্রকে টাকা ফেরত দেওয়া হবে। আর যেখান থেকে এই প্রোডাক্ট অর্ডার করা হয়েছে, ফ্লিপকার্ট তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে।তার এই পোস্ট সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার হতেই ভাইরাল হয়ে যায়।অনেকে বলছেন বিগ বিলিয়ন ভাওতা ! ল্যাপটপ অর্ডার করে পেলেন বাক্স ভর্তি ডিটারজেন্ট সাবান।

Advertisement

News Desk

Sakalerbarta.com is a regional Bengali news portal. It was founded on 14 September 2020. sakalerbarta.com News is a great source of information for everyone. We provide information on Latest News, educational News, current affairs, current topics News, and trending News. Our main goal is to give information that can be used responsibly. We are not affiliated with any government organization and do not host any government website.

Related Articles