লাইফস্টাইল

Food for Strong Bones: এই ৫ নিরামিষ খাবার খেলে হাড় হবে লোহার থেকেও শক্ত,পুষ্টিবিদদের মতে

Food for Strong Bones and Muscles: মানব দেহে ক্যালসিয়ামের গুরুত্ব অনেক। ক্যালসিয়াম শরীরের হাড় মজবুত করতে অত্যন্ত জরুরী। ক্যালসিয়াম শরীরের জন্য অতি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান যা একজন মানুষের গর্ভ থেকে মৃত্যুর পূর্ব পর্যন্ত দরকারি। ক্যালসিয়াম মানব শরিরের বিভিন্ন অঙ্গসমূহের সঠিকভাবে কাজ করতে সাহায্য করে। শরীরে পর্যাপ্ত পরিমাণে ক্যালসিয়াম থাকাটা খুবই প্রয়োজনীয়। হাড় ও দাঁতের জন্য জরুরি হল ক্যালশিয়াম।

কারন আমাদের শরীরের ৯৯ শতাংশ ক্যালসিয়াম থাকে হাড়ে এবং কিছু দাঁতে থাকে। যদি শরিরে ক্যালসিয়াম কমে যায় তবে দাঁত ও হাড় ব্যথা করতে পারে। একজন মানুষের শরীরে গুরুত্বপূর্ণ উপাদান ক্যালসিয়ামের চাহিদা সারা জীবনের। সঠিক পরিমাণে ক্যালসিয়ামযুক্ত খাবার না খেলে শরীরে নানা অসুখ বিসুখ দানা বাঁধে। ক্যালসিয়ামের অভাবে বিভিন্ন রোগ ও শরীরের বিভিন্ন অঙ্গের ক্ষতি হতে পারে।

ছোটবেলায় আমরা প্রায় প্রতিদিনই দুধ খেতাম ক্যালসিয়ামের ঘাটতি পূরণে এবং হাড়ের বৃদ্ধি ভালো করতে। তবে বড় হওয়ার সাথে সাথে এই অভ্যাস যেন চলেই যায়। তবে কেবল ছোটবেলাতেই নয়, হাড় ভালো রাখতে বড় হওয়ার পরও ক্যালসিয়াম সমৃদ্ধ খাবার খাওয়া প্রয়োজন। বয়স বৃদ্ধি পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে শরীরে ক্যালসিয়ামের ঘাটতির সম্ভাবনা বেড়ে যায়।

আর এটির অভাবে বিভিন্ন অঙ্গ ঠিকমতো কাজ করতে না পারা ছাড়াও অস্টিওপোরোসিস, অস্টিওপেনিয়া এবং হাইপোক্যালসেমিয়ার ঝুঁকি বাড়াতে পারে।তাই সব সময় শরিরে ক্যালসিয়াম অত্যন্ত জরুরী।এছাড়াও ক্যালসিয়ামের অভাবে বিভিন্ন লক্ষণ দেখা দেয়।যেমন- পা ও হাত ঝিঝি ধরা, অবশ হওয়া, ব্যথা, ক্লান্তি, হতাশা, দাঁতের ক্ষয়, পেশী ব্যথা ইত্যাদি।

বেশিরভাগ সময়ই বিশেষজ্ঞরা বলে থাকেন যে দুধ বা দুগ্ধজাত খাবারে ক্যালশিয়াম পাওয়া যায়। তবে অনেক দুধের খাবার খেতে চান না। আবার অনেকে ভেগান (Vegan) হয়ে থাকেন। সেক্ষেত্রে ভেগান মানুষের মধ্যে ক্যালশিয়ামের অভাব দেখা যায়। এই মানুষগুলিকে ক্যালশিয়াম যুক্ত খাবার খেতে হবে।ক্যালশিয়াম শরীরে কতটা প্রয়োজন এর একটা হিসাব রয়েছে।

এই বিষয়ে মেয়ো ক্লিনিক বলছে কতটা ক্যালশিয়াম দরকার তা ঠিক হয় বয়স ও লিঙ্গ দেখে। এক্ষেত্রে ১৯ থেকে ৫০ বছর বয়সি মানুষের ২৫০০ মিলিগ্রাম ক্যালশিয়াম প্রতিদিন দরকার।এবার এতটা ক্যালশিয়াম পাওয়াটা সহজ কথা নয়। বরং এই কারণে শরীরে ঘাটতি তৈরি হয়। আর যাঁরা দুধের খাবার খান না তাঁদের সমস্যা বেশি থাকে। এক্ষেত্রে হাড় ও দাঁতে অসুখ হতে পারে।

এই পরিস্থিতিতে নিউট্রিশনিস্ট নিকিতা তানওয়ার বলেছেন সব সময় ক্যালশিয়াম পেতে দুধের প্রয়োজন নেই। এক্ষেত্রে অন্যান্য খাবারেও থাকে ক্যালশিয়াম (Calcium Rich Foods)। বিশেষত বিভিন্ন উদ্ভিজ্জ খাবারে ভরপুর ক্যালশিয়াম (Vegan Calcium Rich Foods) রয়েছে। তাই চিন্তার কোনও কারণ নেই। কারন কিছু নিরামিষ খাবারে প্রচুর পরিমাণে ক্যালশিয়াম আছে,যা খেলে হাড় লোহার থেকেও শক্ত হবে।

নিউট্রিশনিস্ট নিকিতা তানওয়ার মতে এই সব খাবারে প্রচুর ক্যালসিয়াম (Food for Strong Bones and Muscles) থাকে:-

১)অমরনাথ পাতা

অমরনাথ পাতায় অনেকটা পরিমাণে ক্যালশিয়াম রয়েছে। এই ক্যালশিয়াম দ্রুত আপনার হাড়ের স্বাস্থ্য ভালো করে দিতে পারে।এছাড়াও মাথায় রাখতে হবে যে হাড়ের গঠন ক্রিয়ার জন্যও ক্যালসিয়ামের খুবই প্রয়োজন। তাই এবার থেকে এই বিষয়টি মাথায় রাখার চেষ্টা করুন। তবেই ভালো থাকতে পারবেন।

২)জোয়ান খেলে ক্যালশিয়াম বাড়ে

জোয়ানে অনেকটা পরিমাণে ক্যালশিয়াম থাকে। এই খাবারে থাকা ভিটামিন ও খনিজের কথা ভুলে গেলেও চলবে না। আসলে এই খাবারে নিয়াসিন, থিয়ামিন,সোডিয়াম, ফসফরাস, পটাশিয়াম ইত্যাদি থাকে। তাই আপনি চাইলে জোয়ান খেতে পারেন।

৩)মেথি পাতাতেও ক্যালশিয়াম থাকে

মেথিতে প্রচুর পরিমাণে ক্যালশিয়াম থাকে।দেখা গিয়েছে যে ১০০ গ্রাম মেথি পাতায় প্রায় ১৭৬ মিলিগ্রাম ক্যালশিয়াম থাকে। এছাড়াও এই খাবারে ভিটামিন ডি রয়েছে। তাই প্রতিটি মানুষকে অবশ্যই এই দিকটা মাথায় রাখতে হবে। ক্যালসিয়ামের জন্য মেথি পাতা খেতে পারেন।

৪)রাগি খেলেও ক্যালশিয়াম পাবেন

নিজের হাড়ের স্বাস্থ্য ভালো রাখতে চাইলে আপনাকে বেশি পরিমাণে রাগি খেতে হবে। তবে বাঙালিদের মধ্যে অনেকেই এই খাবার খান না। এই খাবার খেলে শরীর ভালোই থাকে। এমনকী অনেকটা ক্যালশিয়াম পাওয়া যায়। তাই শরিরে উপযুক্ত ক্যালসিয়ামের জন্য রাগি খান।

৫)তিলেও ক্যালশিয়াম থাকে

তিলে ভালো পরিমাণে ক্যালশিয়াম থাকে। দেখা গিয়েছে যে ১০০ গ্রাম তিলে প্রায় ৯৭৫ মিলিগ্রাম ক্যালশিয়াম রয়েছে। তাই এই বিষয়টা মাথায় রেখে তিল খাওয়া দরকার। এরফলে আপনার হাড় ভালো থাকবে এবং হাড় হবে লোহার মত শক্ত।

সঠিক পরিমাণে ক্যালসিয়ামযুক্ত খাবার না খেলে বিভিন্ন অসুখের শিকার হতে হয়। তাই আমাদের চারপাশে থাকা ক্যালসিয়াম যুক্ত বিভিন্ন শাকসবজি, ফলমুল, মাছ ও মাংস খাওয়া উচিত। এছাড়াও অমরনাথ পাতা,মেথি পাতা,তিল, রাগি,জোয়ান খেতে পারেন। এগুলি খেলেও শরীরে পর্যাপ্ত পরিমাণে ক্যালসিয়াম পাওয়া যায়।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button