Uncategorized

স্মৃতিশক্তি বাড়াতে আপনার সন্তানকে যেসব খাবার দেবেন।জেনে নিন বিস্তারিত।

স্মৃতিশক্তি বাড়াতে আপনার সন্তানকে যেসব খাবার দেবেন।জেনে নিন বিস্তারিত।

ছোট থেকে বড় প্রায় সকল ছাত্র ছাত্রীরাই পরিক্ষার প্রস্তুতি নেয়।আর এই পড়াশোনার জন্য ছাত্র ছাত্রীদের উপর ভীষণ ধকল যায়।যা সামলাতে সর্বপ্রথম দরকার ভালো মতো খাওয়া দাওয়া করা।পরিক্ষার সময় শুধুমাত্র পড়া মুখস্থ করলেই চলবেনা এর সাথে দরকার সেই পড়া মনে রাখা।তাই যেসব খাবার খেলে স্মৃতিশক্তি বেড়ে যায় সেসব খাওয়া এসময় ভীষণ দরকার। আমরা আজ এমন কতগুলি খাবারের কথা তুলে ধরবো যা স্মৃতিশক্তি বেড়ে তোলার উপযোগী।

ডার্ক চকোলেট:

পরিক্ষার সময় আপনার সন্তানকে রোজ একটু করে ডার্ক চকোলেট দিন।ডার্ক চকোলেটে আছে প্রচুর পুষ্টিকর উপাদান।ডার্ক চকোলেটে আছে ফ‍্যাভোনয়েড,অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট যা মনকে করে তোলে তরতাজা।তাছাড়া রোজ এক টুকরো ডার্ক চকোলেট দিলে আপনার সন্তান যেমন খুশি হবে তেমনি বাড়বে পড়াশোনায় মনোযোগও।

ডিম:

ডিম হলো ব্রেইন বুস্টিং খাবারডিমে আছে সেলেনিয়াম,ওমেগা ৩,এছাড়া আছে নার্ভকে ভালো রাখার জন্য উপকারী উপাদান।দিনের যে কোন সময় ডিম খাওয়া যেতে পারে।রোজ সেদ্ধ ডিম বা ডিমের ওমলেট দিন আপনার সন্তানদের।

বিভিন্ন রকমের শাক সবজি:

রোজ বিভিন্ন রকমের শাক সবজি খাবার পাতে রাখতেই হবে।এর পাশাপাশি লাল ও কমলা শাক সবজি রাখতে হবে খাদ‍্যতালিকায়।মন সক্রিয় ও সজাগ রাখতে এসব খাবারের তুলনা নেই।আপনার সন্তান যদি পরিক্ষার্থী হন তাহলে রোজ তার খাবার পাতে এসব তরিতরকারি রাখার অভ‍্যাস করুন।ব্রাউন রাইস,গম ও মিলেটের মতো গোটা শস্যতে আছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন বি ও গ্লূকোজ।যা আপনার সন্তানের মস্তিষ্কের স্মৃতিশক্তি বাড়ানোর জন‍্য বিশেষ উপযোগী।তাই অন‍্যান‍্য খাবারের সাথে এসবও খাওয়াতে পারেন।

বেরি:

ব্লুবেরি বা বেরি যাই হোক না কেন তাতে আছে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট।স্মৃতিবর্ধক একটি উপাদান হলো বেরি।মস্তিষ্ক সক্রিয় ও সচল রাখতে বেরির জুরি মেলা ভার।তাই আপনার সন্তানকে বেরি খাওয়ানোর অভ‍্যাস গড়ে তুলুন।

ওটমিল :

ব্রেকফাস্ট হিসেবে সবচেয়ে সহজ হলো ওটমিল।পুষ্টিগুনে ঠাসা ওটমিল।এতে আছে ভিটামিন ই ,পটাশিয়াম ও জিংক।বড় ও ছোট সকলেই খেতে পারেন ওটমিল।মস্তিষ্কের জন্য বিশেষ উপকারী ওটমিল।

বাদাম ও বীজ:

একমুঠো বাদাম ও বীজ যে কোনো বয়সের ছাত্র ও ছাত্রীদের খাওয়া ভীষণ উপকারী।আমন,শিয়া সিড,পেস্তা যে কোনো রকমের বাদাম রোজ একমুঠো করে খাওয়ান আপনার সন্তানকে।এরমধ্যে থাকা প্রচুর পরিমাণে ফ‍্যাট,প্রোটিন ও ফাইবার পড়াশোনায় এনার্জি বাড়িয়ে তুলতে সাহায্য করে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button