টেক গাইড

আপনি কি WhatsApp-এ পার্সোনাল চ্যাট হাইড করতে চান? পার্সোন্যাল চ্যাট লুকনোর সহজ উপায় জেনে নিন

বর্তমান ডিজিটাল যুগে বিশ্বের সর্বাধিক জনপ্রিয় ইন্সট্যান্ট মেসেজিং প্ল্যাটফর্ম হল WhatsApp। হাতে স্মার্টফোন আছে অথচ তাতে WhatsApp নেই, এখনকার দিনে এমন মানুষের খোঁজ পাওয়া দুষ্কর বললেই চলে।হোয়াটসঅ্যাপ অত্যন্ত পপুলার ইন্সট্যান্ট মেসেজিং অ্যাপ। গোটা বিশ্বের সঙ্গে ভারতবাসীকে নিজের জাদুতে মজিয়ে ফেলেছে এই অ্যাপ্লিকেশন।এই অ্যাপটি ব্যবহার করে একাধিক মানুষের সাথে চ্যাট করার পাশাপাশি বিভিন্ন ছবি এবং গুরুত্বপূর্ণ ফাইল শেয়ার করা হয়।

কিন্তু যখন আপনি কারোর সাথে চ্যাট করেন, তখন সেই কন্টাক্টসটি WhatsApp-এর চ্যাট লিস্টে থেকে যায়। যে কারণে ফোনটি যদি অন্য কারোর হাতে গিয়ে পড়ে এবং ওই ব্যক্তি যদি অ্যাপটি ওপেন করেন, তাহলে তিনি কিন্তু খুব সহজেই আপনার যাবতীয় পার্সোনাল চ্যাট পড়ে ফেলতে পারবেন।তবে আপনি চাইলেই কিন্তু যে কোনো চ্যাট অন্যদের থেকে হাইড করে রাখতে পারেন।হাইড করার পর আপনার পার্সোনাল চ্যাটগুলোকে আর কেউ দেখতে পাবে না।

অন্যদের থেকে নিজের পার্সোনাল চ্যাট হাইড করার জন্য আপনি ‘আর্কাইভড চ্যাটস’ (Archived Chats ) ফিচারটি ব্যবহার করতে পারেন।আপনার হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট বক্সের যে কোনও চ্যাট আর্কাইভড করতে পারবেন আপনি। অর্থাৎ‍ লুকিয়ে বা আড়ালে ( hide WhatsApp chats) রাখা যাবে ওই সমস্ত চ্যাট।হোয়াটসঅ্যাপের গোপনীয়তা বজায় রাখার এই সহজ পদ্ধতিটি জেনে নিন।

আরও পড়ুন :  বাড়ি বসে মজাদার গেম খেলে ৫০,০০০ টাকা পর্যন্ত পুরষ্কার জেতার সুযোগ রয়েছে

হোয়াটসঅ্যাপের চ্যাট হাইড করবেন বা লুকিয়ে রাখবেন কীভাবে? (how to Hide Personal chat on WhatsApp )

  • * প্রথমে আপনার ফোনে হোয়াটসঅ্যাপ ওপেন করুন। অ্যাপটি ওপেন করলে আপনি আপনার সম্পূর্ণ চ্যাট লিস্টটি দেখতে পাবেন।
  • * এবার আপনি যে চ্যাটটিকে হাইড করতে চান, সেটির ওপর ট্যাপ করে হোল্ড করে রাখুন, তাহলে আপনি স্ক্রিনের উপরে বেশ কয়েকটি অপশন দেখতে পাবেন।
  • * এই বিকল্পগুলির মধ্যে ডানপাশ থেকে দ্বিতীয় অপশনটিকে লক্ষ্য করলে আর্কাইভড আইকনটি আপনার চোখে পড়বে।
  • * এখন এই বক্সটির উপর ক্লিক করলেই আপনার চুজ করা চ্যাটটি হাইড অর্থাৎ আর্কাইভড হয়ে যাবে।

আপনি চাইলে এই পদ্ধতিতে একাধিক চ্যাট অতি অনায়াসে লোক চক্ষুর আড়ালে রাখতে সক্ষম হবেন।এছাড়াও আপনি অপ্রয়োজনীয় চ্যাটগুলিকেও হাইড করে রাখতে পারেন।চ্যাট হাইড করা বলতে মূলত চ্যাট আর্কাইভড করে রাখাকেই বোঝায়। আর্কাইভড করে রাখলে সংশ্লিষ্ট চ্যাটটিকে আর আপনার চ্যাট লিস্টে দেখা যাবে না। ফলে অন্য কারোর হাতে যদি আপনার ফোনটি পড়ে, তাহলে তিনি সেই ব্যক্তিটির নাম আপনার চ্যাট লিস্টে খুঁজে পাবেন না।

কিন্তু এখন প্রশ্ন হল, চ্যাট লিস্ট থেকে তো সেই ব্যক্তির নাম উড়ে গেল, তাহলে এবার আপনি যদি সেই ব্যক্তিকে চ্যাট করতে চান তবে তা করবেন কীভাবে? সেক্ষেত্রে কি করবেন।

এই আর্কাইভড করে রাখা চ্যাট দেখবেন কীভাবে ( Hide personal chat on WhatsApp )?

এক্ষেত্রে চ্যাট লিস্ট থেকে ওই ব্যক্তির নামটি গায়েব হয়ে গেলেও আর্কাইভড (Archived) নামক একটি ফোল্ডার চ্যাট লিস্টে আবির্ভূত হবে। এই ফোল্ডারটিতে ক্লিক করলেই আপনি আর্কাইভ করে রাখা যাবতীয় কন্টাক্টসগুলিকে দেখতে পাবেন এবং অতি অনায়াসে তাদের সাথে চ্যাট করতে পারবেন।

আবার আপনি আর্কাইভড করে রেখেছেন এমন কোনো চ্যাট থেকে যদি আপনাকে মেসেজ করা হয়,তাহলে কিন্তু সেটি আপনি সরাসরি আপনার চ্যাট লিস্টে দেখতে পাবেন না বা নোটিফিকেশনও আসবে না। ওই আর্কাইভড ফোল্ডারের মধ্যেই মেসেজটি আসবে। ফলে আপনি যদি সেটিকে দেখতে চান, তাহলে আর্কাইভড ফোল্ডার ওপেন করে মেসেজটি দেখতে হবে আপনাকে।

হাইড করা চ্যাটকে আবার আনহাইড করবেন কীভাবে?

হাইড করা যে কোনো চ্যাটকে আপনি চাইলেই আবার আনহাইডও করতে পারেন। অর্থাৎ আপনি যে চ্যাটগুলিকে আর্কাইভড করেছেন, সেগুলিকে আনআর্কাইভ করে আপনি আবার WhatsApp-এর হোমস্ক্রিনে ফিরিয়ে আনতে পারেন।কিভাবে আনহাইড করবেন দেখুনঃ-

  • * এর জন্য আর্কাইভড ফোল্ডারে ঢুকে যে চ্যাটটিকে আনহাইড করবেন সেটির উপর ট্যাপ করে হোল্ড করুন।
  • * এরপর স্ক্রিনের ওপরে আবার আপনি আর্কাইভড আইকনটি দেখতে পাবেন। সেটিতে ট্যাপ করলেই আর্কাইভড ফোল্ডার থেকে বেরিয়ে চ্যাটটি আবার ফিরে আসবে অ্যাপের হোমস্ক্রিনে।

Related Articles

Back to top button