বিনোদন

এক বছরে মাত্র দুবার রান্না করেছেন গায়িকা ইমন! এমনকি রচনা ‘কিপটে তকর্মী দিলেন ইমনকে

iman chakraborty

নিউজ ডেস্কঃ বাংলা টেলিভিশনের জনপ্রিয় শো দিদি নম্বর ওয়ান। বহু বছর ধরে এই শো-এর সঞ্চালিকার ভূমিকায় রয়েছেন অভিনেত্রী রচনা বন্দ্যোপাধ্যায়। দীর্ঘ প্রায় দশ বছরেরও বেশি সময় ধরে দিদি নাম্বার ওয়ান সম্প্রচার হয়ে আসছে।সঞ্চালিকা রচনা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে কোনো কথাই লুকানোর উপায় নেই কারোর। এমনকি অভিনেতা অভিনেত্রীদের ব্যক্তিগত জীবনের এমন সব খবর তিনি টেনে বের করেন যা শুনে নেটিজেনদের চোখ কপালে ওঠে।

দিদি নাম্বার ওয়ান মানেই চেনা পরিচিত তারকাদের হাঁড়ির খবর বেরোনো। শুক্রবার দোল উপলক্ষে দিদি নাম্বার ওয়ানে হল বিশেষ পর্ব ‘রাঙিয়ে দিয়ে যাও’। এদিন প্রতিযোগী হয়ে এসেছিলেন বাস্তব জীবনে তারকা জুটিরা।এদিন খেলতে এসেছিলেন ইমন চক্রবর্তী ও নীলাঞ্জন ঘোষ।খেলতে এসে নিজেদের নতুন সংসারের সব তথ্য ফাঁস করলেন। গানের ক্ষেত্রে দুজনের রসায়ন তো শ্রোতারা দেখেছেন এবং শুনেওছেন।এক বছর হল বিয়ে হয়েছে সঙ্গীত দুনিয়ার এই মিউজিক্যাল জুটির।

আরও পড়ুন :  Ullu Damad Ji season 2 web series: শাশুড়ি জামাইয়ের রগরগে যৌনতায় ভরা ওয়েব সিরিজ 'দামাদ জি' দ্বিতীয় সিজনের দ্বিতীয় পার্ট রীতিমতো হইচই ফেলে দিয়েছে

রচনার প্রথম প্রশ্নেই হোঁচট খেলেন দুজনে। রচনা প্রশ্ন করেন সংসার সামলাতে কতটা পটু ‘নীলামন’ জুটি? গায়িকা জানান বিয়ের পর থেকে এই এক বছর দু মাসে মাত্র দুটি পদ তিনি রান্না করেছেন। একটি ডিমের কোনো একটি রান্না এবং দ্বিতীয় বার মাংস রেঁধেছিলেন। তারা দুজনের কেউই নাক একেবারেই সংসারী নন।নীলাঞ্জনের বাড়ি থেকে তাদের খাবার আসে।ইমনের রান্নাঘরে চাল, ডাল, তেল, হলুদ কিছুই নেই, রান্নাই করেন না তাঁরা। তাদের কথায় হতবাক রচনা আর প্রশ্ন করেন, আর যদি হঠাৎ অতিথি আসে তখন। সাথে সাথে ইমন উত্তর দেন সুইগি আছে তো।পাশে থেকে নীলাঞ্জন জানান, এমনো হয়েছে যে অতিথি এসে নিজেই রান্না করেছেন।

‘নীলামন’ জুটির কথা শুনে মাথায় হাত রচনার। এমনকি রচনা জিজ্ঞাসা করলেন, ইমন সত্যি বলছে নাকি মজা করছে। গায়িকা সঙ্গে সঙ্গে রচনাকে আমন্ত্রণ জানিয়ে বলে তুমি একদিন এসো আমাদের বাড়িতে।ইমনের এই কথা শুনেই হাত তুলে দিলেন সঞ্চালিকা।রচনা জিগেস করেন তুমি এত কুঁড়ে কেন ইমন। নীলাঞ্জন জানান শুয়ে শুয়ে নাকি ইনস্টাগ্রাম রিলস দেখেন ইমন।তবে এখানেই শেষ নয়, ইমনের আরো একটি গোপন কথা ফাঁস করে দেন রচনা৷ গায়িকা নাকি খুব ‘কিপটে’। ইমনের হাত থেকে নাকি একটা পয়সাও গলে না এমনি অভিযোগ তাঁর বন্ধুদের।

Related Articles

Back to top button