নিউজ

অবিশ্বাস্য ঘটনা! কমলালেবুর বাগানে শুয়ে চলছে করোনা রোগীদের চিকিৎসা, গাছ থেকে ঝুলছে স্যালাইনের বোতল,

ঘটনা কমলালেবুর বাগানে শুয়ে চলছে করোনা রোগীদের চিকিৎসা

দেশ জুড়ে লাগামহীনভাবে বাড়ছে করোনা সংক্রমন।প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ছেন। হাসপাতালে বেড নেই, নেই পর্যাপ্ত অক্সিজেনও। চারিদিকে শুধু অসহায় মানুষের আর্তি, হাহাকার। শ্মশানে, কবরস্থানে জমছে মৃতদেহের স্তূপ, সৎকার করার জায়গা নেই। চারিদিকে হৃদয় বিদারক নানা চিত্র। কোথাও চলছে কালো বাজারি, ভুয়ো ভ্যাকসিন, ওষুধ, ইনজেকশন দেওয়া হচ্ছে। কোথাও আবার হাতুড়ে চিকিৎসকরা সুযোগ বুঝে ভুল চিকিৎসা করে টাকা কামাচ্ছে।

সম্প্রতি এমনই এক চিত্র দেখা গেল মধ্যপ্রদেশের আগর-মালওয়া জেলার ধনিয়াখেড়ি গ্রামে। সেখানে এক কমলালেবুর বাগানে প্লাস্টিকের শিট পেতে পর পর করোনা রোগীদের শুইয়ে চিকিৎসা করা হচ্ছে। আর চিকিৎসা করছেন গ্রামেরই এক হাতুড়ে চিকিৎসক।হাইওয়ে থেকে ২০০ মিটার দূরে এক কমলালেবুর বাগানে প্লাস্টিকের শিট পেতে পর পর শুইয়ে দেওয়া হয়েছে করোনা রোগীদের। স্যালাইনের বোতল ঝুলছে গাছের ডাল থেকে।তবে কারও মুখেই মাস্ক নেই। নূন্যতম সুরক্ষাবিধিও নেই।

আরও পড়ুন :  জো বিডেন রাষ্ট্রপতি পদে বসেই ভারতকে সমর্থন করলেন UNSC-তে স্থায়ী সদস্যপদের জন্য

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে করোনা উপসর্গ থাকলে সরকারি হাসপাতালে যেতে ভয় পাচ্ছেন গ্রামের মানুষরা তাই এই ব্যবস্থা। বারবার হাসপাতালে যাওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন গ্রামের প্রশাসন, কিন্তু কে শোনে কার কথা। সেই এলাকার এক ব্লক মেডিক্যাল অফিসার জানিয়েছেন, এই সমস্ত হাতুড়ে ডাক্তারদের বিরুদ্ধে অবিলম্বে সরকারের ব্যবস্থা নেওয়া উচিৎ।

সকলের প্রতি অনুরোধ, কোভিডের লক্ষণ দেখা দিলে সঠিক চিকিৎসাপদ্ধতি মেনে চলুন। নয়তো বড় দেরি হয়ে যাবে।তবে অভিযোগ পেয়ে পুলিশ তল্লাশিতে গেলেও ওই বাগানে গোটা কয়েক ফাঁকা ওষুধের বোতল ছাড়া আর কিছুই দেখতে পায়নি।তবে পুলিশের কাছে অভিযোগ জমা পড়েছে অভিযুক্ত ওই হাতুড়ে চিকিৎসক ও আরও কয়েকজনের বিরুদ্ধে। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে তল্লাশি শুরু করেছে পুলিশ

Related Articles

Back to top button