Home আন্তর্জাতিক এ বার ‘ডিজিটাল’ ফ্রাঙ্কফুর্ট বইমেলা

এ বার ‘ডিজিটাল’ ফ্রাঙ্কফুর্ট বইমেলা

করোনার প্রভাব পড়েনি এমন কোন কিছু নেই।মানবজাতির সমস্ত কিছু যা নিয়ে এই বিশ্ব টিকে আছে প্রায় সমস্ত কিছুই আজ প্রভাবিত।আর এই তালিকায় বাদ পড়েনি বিশ্বের বৃহত্তম ফ্রাঙ্কফুর্ট আন্তর্জাতিক বইমেলা।যার জেড়ে এবার এই বইমেলা ডিজিটাল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ঐ বইমেলা কতৃপক্ষ।

মেলা প্রাঙ্গণে যে বইয়ের প্রদর্শনী হয় তার বদলে এবার ডিজিটাল মাধ্যমে বইয়ের সম্ভার দেখাবেন প্রকাশকরা। জারি থাকবে কিছু প্রথাগত নিয়ম কানুন ও। এই আন্তর্জাতিক বইমেলা প্রতিবছর অক্টোবর মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহের শেষ মঙ্গলবার উদ্বোধন হয় চলে রবিবার অবধি। চলতি বছরে এই বইমেলা হবে ১৪তারিখ থেকে১৮ তারিখ অবধি।

আরও পড়ুন :  টিকা নিয়ে বিদ্রুপ করে অবশেষে, ২০ লক্ষ করােনা টিকা চেয়ে মােদিকে চিঠি ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট বােলসােনারাের

বিশ্বের সবচেয়ে বড় বইমেলা তো বটেই পাশাপাশি এটি বানিজ্য মেলাও বটে। পাঠকেরা এই মেলায় এসে বই কিনতে পারেন না কেনেন বইয়ের স্বত্ব। জানা গিয়েছে পাঁচশো বছরের পুরোনো এই মেলাকে ১৯৪৯সালে প্রাতিষ্ঠানিক রুপ দিয়েছে জার্মান প্রকাশক সমিতি। জার্মান পাবলিশার্স এন্ড বুক সেলার্স অ্যাসোশিয়েশনের চেয়ারপার্সন কারিন শ্মিট ফ্রিডরিখস বলেন,”এই বইমেলা শুধুমাত্র পৃথিবীর বৃহত্তম বইমেলা নয়।

প্রানবন্ত এই মেলা নিরবিচ্ছিন্নভাবে যুগের সাথে তাল মিলিয়ে পরিবর্তীত হয়েছে।কিন্তু বর্তমানে করোনা পরিস্থিতিতে অন সাইট প্রদর্শনী বন্ধ রাখতে আমরা বাধ্য হচ্ছি। তবে মেলার সাথে জড়িত বিভিন্ন অনুষ্ঠান ক্ষানিকটা হলেও হবে। “এসব ছাড়াও এবার সিদ্ধান্ত হয়েছে অংশগ্রহনে ইচ্ছুক প্রকাশক বা প্রকাশনার সাথে যুক্ত অন্যেরা অনলাইনে নাম নথিভুক্ত করবেন।

আরও পড়ুন :  মহাকাশে ১৫০ বছর ধরে চলছে তারা-বাজির খেলা ছবিটি শেয়ার করে, NASA বিদায় ২০২০ স্বাগত ২০২১ জানালেন
আরও পড়ুন :  মাত্র ১২ বছর বয়সে ‘‌এরোস্পেস ইঞ্জিনিয়ারিং’‌ পড়ার সুযোগ পেলেন মার্কিন বালক

প্রতিটি প্রকাশকের একটি করে প্রোফাইল তৈরী করা হবে।তাতে অবশ্যই থাকতে হবে প্রকাশকের লোগো ও প্রকাশনার ওয়েবসাইট লিঙ্ক।স্যোশ্যাল মিডিয়ায় প্রোফাইল থাকলেও তাও যুক্ত করতে হবে সেখানে।ফ্রাঙ্কফুর্ট বইমেলার অধিকর্তা ইউগের্ন বুস বলেছেন,”আমরা সব থেকে গুরুত্ব দিচ্ছি ডিজিটাল মোডে মেলাটি সম্পন্ন করার, যা আগে কখনো ভাবাই যেতো না।

তবে এখন করতে হচ্ছে।”মেলার আলোচনা সভা অনলাইনে করা হবে বলেও জানান তিনি।কলকাতা বইমেলা আয়োজক বুকসেলার্স এন্ড পাবলিশার্স গিল্ড অবশ্য এবার যোগ দিচ্ছেন না এই বইমেলায়। গিল্ড সভাপতি ত্রিবিদ চট্টপাধ্যায় রবিবার এ কথা জানিয়ে দিয়েছেন।

আরও পড়ুন :  কুকুরের মাংস বিক্রি নিষিদ্ধ করেছে ,নয়া আইনে স্থগিতদেশ জারি হাইকোর্টের

এ প্রসঙ্গে তিনি আরো বলেছেন,”১৪বার এই বইমেলায় অংশগ্রহণ করলেও এবারের করোনা পরিস্থিতিতে যাওয়া সম্ভব হচ্ছেনা আর মেলাও তো ভার্চুয়াল হয়ে গিয়েছে। “তিনি বলেছেন এ মেলা মূলত প্রকাশকদের মেলা হলেও শেষের দুদিন মানুষ বই কিনতে আসেন।এই মেলায় ‘গেস্ট অব অনার’ কানাডা। মূলত ঐ দেশের সাহিত্যের উপর আলোকপাত করা হবে বলে জানা গিয়েছে।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন

এই মুহূর্তে

- Advertisment -
- Advertisment -

ভাইরাল