নিউজভাইরাল

কাঁথি পুরসভার TMC চেয়ারম্যান ভুল জাতীয় সঙ্গীত গেয়ে ট্রোলের শিকার, সেই ভাইরাল ভিডিও ঘিরে নিন্দার ঝড় উঠেছে

sakalerbarta.jupiter-cdn.com

নিউজ ডেস্কঃ কাঁথিতে মঙ্গলবার মূল্যবৃদ্ধি, রান্নার গ্যাসের দাম বৃদ্ধি, ওষুধের দাম বৃদ্ধি ইত্যাদির বিরুদ্ধে একটি সভা করে তৃণমূল।সব ঠিকঠাক চলছিল, কিন্তু বিপত্তি ঘটল কর্মসূচি শেষে এক তৃণমূল কাউন্সিলরের জন্য। তিনি ভুল জাতীয় সঙ্গীত গেয়ে সব কিছুতেই জল ঢেলে দিলেন।এতকিছুর পরও কপালে জুটল শুধুই ট্রোল এবং হাসাহাসি। কাঁথি পুরসভার চেয়ারম্যান ইন কাউন্সিলর রিনা দাস পেশায় স্কুলের পার্শ্বশিক্ষিকা।তার এই ঘটনার ভিডিও স্যোশাল মিডিয়ায় ইতিমধ্যেই ভাইরাল হয়ে গিয়েছে।ভাইরাল ভিডিওকে কেন্দ্র করেই সমালোচনার ঝড় উঠেছে বিভিন্ন মহলে।

এই সভাতে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের মৎস মন্ত্রী অখিল গিরি, জেলা তৃণমূল চেয়ারম্যান অভিজিৎ দাস, জেলা সাধারণ সম্পাদক তরুণ জানা এবং তৃণমূল যুব সভাপতি সুপ্রকাশ গিরি সহ কাঁথি পুরসভার একাধিক কাউন্সিলর এবং নেতা নেত্রী।কেন্দ্রের একাধিক নীতিকে তুলধনা করতে দেখা যায় তৃণমূল নেতৃত্বকে।মন্ত্রী অখিল গিরি বিজেপির বিরুদ্ধে সুর চড়িয়ে শুভেন্দু অধিকারীর তুমুল সমালোচনাও করেন।সভা শেষে সকল নেতানেত্রীরা জাতীয় সঙ্গীত গান গাইলেন। আর সেখানেই বিপত্তি বাঁধল। জাতীয় সঙ্গীত গাওয়ার সময় মাইক্রোফোন ছিল কাঁথি পুরসভার ৭ নম্বর ওয়ার্ডের সদ্য নির্বাচিত কাউন্সিলর রিনা দাসের হাতে।আর তাঁর গাওয়া জাতীয় সঙ্গীতেই ধরা পড়ে অগণিত ভুল।যা নিয়ে তোলপাড় শুরু হয় রাজ্য রাজনীতিতে।

আরও পড়ুন :  RBI bans Paytm: পেটিএমের ওপর নিষেধাজ্ঞা রিজার্ভ ব্যাঙ্কের, সমস্যায় পড়বে গ্রাহকরা?

এই ঘটনাকে ধামাচাপা দিতে ইতিমধ্যেই মাঠে নেমেছে তৃণমূল। তৃণমুল নেতা তথা অখিল গিরির ছেলে সুপ্রকাশ গিরি বলেন এতে দলের ভাবমূর্তি নষ্ট হয়েছে। এটা অনিচ্ছাকৃত ভুল।একজন ভারতীয় হিসেবে জাতীয় সঙ্গীত অবমাননা কোনও ভাবেই মানা যায় না। তিনি আরও বলেন উনি ঘাবড়ে গিয়েছিলেন,আর মানুষ মাত্রেই ভুল হয়।তবে একজন শিক্ষিকা হিসেবে তার সচেতন থাকা উচিত ছিল।তবে আগামিদিনে আমাদের আরও সজাগ থাকতে হবে, যাতে ভবিষ্যতে এমন ভুল আর না হয়। এই ভুলের জন্য আমরা জনগণের কাছে ক্ষমা প্রার্থী।এই প্রসঙ্গে বিজেপির জেলা সভাপতি সুদাম পণ্ডিত বলেন সভায় জাতীয় সঙ্গীতের অবমাননা করা হয়েছে, এটি দন্ডনীয় অপরাধ।তবে এই বিষয়ে কাউন্সিলর রিনা দাসের তরফে এখনও কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

Related Articles

Back to top button