অটোকার

নতুন KTM RC 390 স্পোর্টস বাইক বুক করার পর ডেলিভারি পেতে কত দিন লাগে? জেনে নিন

নতুন KTM RC 390 কয়েক দিন আগেই ভারতে অফিশিয়ালি লঞ্চ হয়েছে।গত বছর এই মডেল গ্লোবালি লঞ্চ হয়েছিল।নতুন ডিজাইন, পাওয়ার, এবং উৎকৃষ্ট ফিচারের দৌলতে নতুন প্রজন্মের রেসিং বাইকটি জনপ্রিয় হবে বলেই আশা করা হচ্ছে।ভারতের বাজারে 2022 KTM RC 390-এর দাম ৩,১৩,৯২২ টাকা রাখা হয়েছে। যা পুরনো মডেলের চেয়ে ৩৬ হাজার টাকার উপরে দামী।তবে বাইকের এই নতুন সংস্করণে আরও উন্নতি সাধন করা হয়েছে।সাব-৪০০ সিসি সেগমেন্টে অন্যতম সেরা সুপারস্পোর্ট বাইক বলে দামবৃদ্ধি পুষিয়ে নেওয়া যাবে বলেই মনে করছে অনুরাগীরা।

কেটিএম-এর একাধিক মডেল ভারতে বেশ জনপ্রিয়। নতুন এই মডেলটিও বাইক প্রেমীদের দারুন পছন্দ হবে বলে আশা করছেন সংস্থা।নতুন ডিজাইনে অনেকটা আগের লুকই ধরে রাখা হয়েছে। অল্পবিস্তর আপগ্রেড রয়েছে।কিন্তু প্রশ্ন হচ্ছে, বুক করার পর এই স্পোর্টস বাইকের ডেলিভারি পেতে কত দিন লাগবে। ডিলার সূত্র বলছে কলকাতায় দু’সপ্তাহ পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হতে পারে। এখন কেটিএমের তরফে বাইকটি অল্প সংখ্যায় শোরুমে পাঠানো হচ্ছে।

আরও পড়ুন :  রাজ্যে নতুন নিয়ম, Electric এবং CNG গাড়িতে ছাড়

তবে অপেক্ষার মেয়াদ পুণের মতো শহরে সবচেয়ে কম। পুণেতে ১০-১৫ দিনের মধ্যে ডেলিভারি দেওয়া হচ্ছে।
বেঙ্গালুরুতে ওয়েটিং পিরিয়ড সবচেয়ে বেশি। বাইকের চাবি হাতে পেতে দু’মাস পর্যন্তও সময় লাগছে। কলকাতার মতো দিল্লি ও হায়দরাবাদের ক্ষেত্রে সেটা দু’সপ্তাহ। তবে ডিলারশিপ এবং বাইকের কোন কালার নির্বাচন করা হচ্ছে, তার উপরেও নির্ভর করছে ডেলিভারি টাইম।তাই 2022 KTM RC 390 কিনতে চাইলে আপনাকে নিকটবর্তী আউটলেটে গিয়ে খোঁজ নিতে হবে।

KTM RC 390 এর বিশেষত্বঃ-

আর্ন্তজাতিক বাজারের মতো ভারতেও আপডেটেড KTM RC 390 হালকা ট্রেলিস ফ্রেম-সহ বোল্ট-অন-সাবফ্রেম, ১.৭ কেজি কম ওজনের ফাইভ স্পোক অ্যালয় হুইলস, ১৭.৩ লিটারের বড় ফুয়েল ট্যাঙ্ক, এবং নতুন হার্ডওয়্যার সহযোগে এসেছে। যা স্পোর্টস বাইকটিকে তীক্ষ্ণ এবং আরও রেস ওরিয়েন্টেড করে তুলেছে।এটি ইলেকট্রনিক অরেঞ্জ এবং কেটিএম ফ্যাক্টরি রেসিং ব্লু কালার অপশনে উপলব্ধ।

নতুন RC390-তে বিশেষ ফিচারের মধ্যে রয়েছে সুইচেবল ABS, লিন সেনসিটিভ কর্নারিং ABS এবং কর্নারিং ট্র্যাকশন কন্ট্রোল। এছাড়াও, বাইকটিতে KTM এর QuickShifter Plus স্ট্যান্ডার্ড এবং একটি নতুন TFT স্ক্রিন রয়েছে। এছাড়াও আপনি সামনের ফেয়ারিং এ মাউন্ট করা LED টার্ন ইন্ডিকেটর সহ একটি নতুন ডিজাইন-এর ফুল এলইডি হেডল্যাম্প পাবেন।স্মার্টফোন কানেক্টিভিটি-সহ টিএফটি ডিসপ্লে এবং মাল্টি-ফাংশানাল সুইচগিয়ার রয়েছে।

এতে 373 সিসি সিঙ্গেল সিলিন্ডার ফুয়েল-ইনজেক্টেড BS-VI কমপ্লায়েন্ট লিকুইড-কুলড ইঞ্জিন পাওয়া যাবে এই মডেলে। এটি আপডেটেড ম্যাপিং এবং ৪০ শতাংশ বড় এয়ারবক্স পাওয়াবে। সাত হাজার rpm এ ৩৭Nm টর্ক থাকছে।সিক্স-স্পীড গিয়ারবক্স থাকবে।এই দামে এই বৈশিষ্ট্য খুব কম বাইকেই পাওয়া যায়।

Related Articles

Back to top button