নিউজ

Kolkata to Digha: মাত্র ৪৫ টাকাতেই কলকাতা থেকে দিঘা যাওয়ার লোকাল ট্রেন চালু হয়ে গেল, সময়সূচি জেনে নিন

Kolkata to Digha: পুজো, গরমের ছুটি বা শীতকালীন ছুটি কাটানোর জন্য অধিকাংশ মানুষ দিঘাকেই বেছে নেন। দিঘা বাঙালির কাছে প্রথম ও প্রিয় গন্তব্য। প্রতি বছর প্রচুর পর্যটক দিঘায় ভিড় জমান। কিন্তু বিগত দুবছর অতিমারি ও লকডাউন পরিস্থিতি যেন এক লহমায় সব ছিনিয়ে নিয়েছে। পর্যটক না পেয়ে দিঘাও যেন কেমন ম্লান হয়ে পড়েছিল। দিঘা আবার কবে হাসবে, এই চিন্তাই ঘুরছিল স্থানীয় ব্যবসায়ী, হোটেল মালিক এবং পর্যটনের সঙ্গে জড়িত সকলের মনে।

এই অতিমারীর কারনে সারা দেশ জুড়ে শুরু হয়েছিল লকডাউন। এর ফলে কল কারখানা থেকে শুরু করে স্কুল, কলেজ এমনকি সমস্ত যানবাহন সব কিছু বন্ধ ছিল। করোনা ভাইরাসের করাল থাবায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল পুরো দেশ। সমস্ত ক্ষেত্রেই প্রচণ্ড ক্ষতি সাধন করেছে এই চাইনিজ ভাইরাস। এর সবচেয়ে বেশি প্রভাব পড়েছিল রেল ব্যবস্থার ওপর।

করোনার দাপটে বন্ধ হয়ে গিয়েছিল একাধিক ট্রেন। আর ট্রেন হল ভারতের লাইফলাইন। তাই ট্রেন বন্ধ হলে কীরকম ভোগান্তির সৃষ্টি হয়েছিল তা সকলের জানা। তবে এখন পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হওয়াতে দেশবাসী স্বস্তির নিশ্বাস নিচ্ছে। কোভিড ভীতি ধীরে ধীরে সাধারণ মানুষের কেটে গিয়েছে।ফলে দীর্ঘদিন ঘরবন্দি থাকার পরে মানুষ এখন আস্তে আস্তে ঘুরতে বেরোতে শুরু করেছেন।

বন্ধ হয়ে যাওয়া রেল পরিষেবা আবার পুনরায় চালু হয়েছে। তবে সমস্ত ট্রেন এক্ষুনি চালু না হলেও, রেল পুরোদমে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে!দেশের প্রায় লক্ষাধিক মানুষের কাছে সফরের অন্যতম ভরসা ভারতীয় রেলপথ। অত্যন্ত অল্প খরচে দেশের এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে পৌঁছে যাওয়ার ক্ষেত্রে এই রেলপথের বিকল্প নেই। বিশেষ করে দূর ভ্রমণের ক্ষেত্রে প্রথম পছন্দ হচ্ছে রেল যাত্রাই।

দেশের অধিকাংশ মানুষ রেলের মাধ্যমে যাতায়াত বেছে নেন। কোথাও ঘুরতে যাওয়ার হলে রেল প্রথম পছন্দ। আর তাছাড়া দূরে ভ্রমনে গেলে প্রকৃতির মনোরম দৃশ্য উপভোগ করার একমাত্র মাধ্যম এই রেল ব্যবস্থা।ঘুরতে গিয়ে প্রকৃতির মনোরম দৃশ্য উপভোগ করবেন না তা কি আর হয়। আর বছরের ১২ মাসই বাঙালির পরিচিত ঘুরতে যাওয়ার জায়গাগুলোর মধ্যে অন্যতম হল দিঘা।

দিঘা বাঙালির কাছে আজও প্রথম ও প্রিয় গন্তব্য। পুজো, গরমের ছুটি বা শীতকালীন ভ্রমণ হিসেবে দিঘাই একমাত্র পছন্দ। প্রতি বছর প্রচুর পর্যটক দিঘায় ভিড় জমান। এখনও ব্যাপক ভিড় হচ্ছে দিঘাতে। অবস্থা এমন যে ট্রেনে রিজার্ভেশন পাচ্ছেন না অনেকেই। তবে এবার সুখবর শোনানো হল। যাত্রীদের ভিড়ের কথা মাথায় রেখেই চালু হল বিশেষ ট্রেন।

দক্ষিণ- পূর্ব রেলের তরফে জানানো হয়েছে যে দিঘা যাওয়ার লোকাল ট্রেন আবারো ফিরিয়ে আনছে রেল। ৩১শে আগস্ট থেকে শুরু হয়েছে দিঘাগামী লোকাল ট্রেন পরিষেবা। ফলে আনন্দের হওয়া পর্যটক মহলে।সাধারণত কলকাতা থেকে দিঘা যেতে হলে যারা ট্রেনে করে যেতে চান, তাঁরা হাওড়া থেকে ট্রেন ধরেন। এতে ঘণ্টা চারেক সময় লাগে।

অন্যদিকে স্লিপার ক্লাসে রিজার্ভেশন ভাড়া লাগে ১২০ টাকা। এছাড়াও ধর্মতলা থেকেও দিঘার জন্য নিয়মিত বাস ছাড়ে। বাসে ধর্মতলা থেকে দিঘা যেতে সময় লাগে ৪ থেকে ৫ ঘণ্টা। বাসে ভাড়া ১৫০ টাকা।তবে এখন খুব কম খরচেই দিঘা যেতে পারেন। তাও আবার রিজার্ভেশনের ঝামেলা ছাড়াই।

এই ট্রেনের ফলে কলকাতার পর্যটকদের কী লাভ হবে?

দিঘা যাওয়ার জন্য অনেকেই হাওড়া স্টেশনকে বেছে নেন। কিন্তু হাওড়া থেকে লোকাল ধরেও যে দিঘা পৌঁছানো যায় সেটা হয়তো অনেকেই জানেন না। হাওড়া থেকে একটি মাত্র লোকাল ট্রেন বদল করেই দিঘা পৌঁছতে পারেন আপনি। আর তাই মাত্র ৫ ঘণ্টার মধ্যেই কলকাতার প্যাচপ্যাচে গরম থেকে দিঘার সমুদ্রের ঠাণ্ডা হওয়ার অনুভূতি নিতে পারবেন। পাঁশকুড়া স্টেশনের দিঘাগামী এই লোকাল ট্রেন ধরার জন্য অনেক কানেকটিং ট্রেন রয়েছে হাওড়া থেকে।

ট্রেনটি কখন ছাড়বে ও দিঘা (Kolkata to Digha) যেতে কত সময় লাগবে?

রেলের তরফে জানানো হয়েছে সপ্তাহের চারদিন সোম, মঙ্গল, বুধ ও বৃহস্পতিবার বেলা ২টো ২০ তে পাঁশকুড়া থেকে দিঘার উদ্দেশ্যে রওনা দেবে লোকাল ট্রেনগুলি। দিঘা পৌঁছাতে প্রায় ২:৩০ ঘণ্টা সময় নেবে ট্রেনগুলো। ২টো ২০ তে পাঁশকুড়া থেকে বেরিয়ে বিকেল ৫ টায় দিঘা পৌঁছাবে। এরপর আবার বিকেল ৫ টা ২৫ এর সময় দিঘা থেকে ছেড়ে পাঁশকুড়া পৌঁছাবে সন্ধ্যা ৭টা ৪৫ এ। ট্রেনের টাইম টেবিল দেখে বোঝা যাচ্ছে যে এর ফলে পর্যটকদের বিরাট সুবিধা হতে চলেছে।

যাতায়াতে কত খরচ হবে?

হাওড়া থেকে পাঁশকুড়া, খড়গপুর বা মেদিনীপুরগামী যে কোন লোকাল ট্রেনে পাঁশকুড়া পর্যন্ত যাওয়ার ভাড়া মাত্র ১৫ টাকা। এরপর পাঁশকুড়া থেকে লোকাল ট্রেনে দিঘা যাওয়ার ৩০ টাকা। মোট ৪৫ টাকাতেই আপনি কলকাতা থেকে দিঘা পৌঁছে যাবেন। আর সেই জন্য মোট ৫ ঘন্টা সময় লাগবে।যারা কম খরচে দিঘা ঘুরতে চান তাদের জন্য এটি অত্যন্ত ভাল খবর।

Related Articles

Back to top button