নিউজ

দুর্দান্ত স্কিম রয়েছে Post Office-এ , মাত্র 10 বছরে টাকা হবে দ্বিগুণ

post office kisan vikas patra scheme

নিউজ ডেস্কঃ প্রত্যেকেই তার ভবিষ্যত জীবন সুরক্ষিত করতে চায় আর তা একমাত্র বিনিয়োগের মাধ্যমেই করা সম্ভব।প্রত্যেকেই চান তাঁদের টাকা এমন জায়গায় বিনিয়োগ করতে, যেখানে টাকা যত তাড়াতাড়ি সম্ভব দ্বিগুণ হয়ে যায়। তবে এর সঙ্গে টাকা ফেরতের নিরাপত্তাটাও জরুরি।বর্তমানে একাধিক জায়গায় বিনিয়োগের সুযোগ রয়েছে।কিন্তু এতে ঝুঁকি অত্যন্ত বেশি, তবে ঝুঁকিহীন উপায়ও অবশ্য রয়েছে। সরকারি স্কিমে টাকা বিনিয়োগ করে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তার সঙ্গেই দ্বিগুণ হতে পারে টাকা। Post Office-এর এমন কিছু বিশেষ স্কিম রয়েছে যাতে টাকা দ্বিগুণ হতে পারে। Post Office-এর স্কিমগুলি প্রায় ঝুঁকিহীন।এক্ষেত্রে অল্প সময় থেকে দীর্ঘ মেয়াদী যে কোনও স্কিমে বিনিয়োগ করতে পারেন।তবে Post Office-এর বেশিরভাগ স্কিমই হয় লং টার্মে বিনিয়োগ করার মতো।

আরও পড়ুন :  ক্রোয়েশিয়াতে ঘটে গেলো ভয়াবহ ভূমিকম্প, ভূমিকম্পের মাত্রা ছিলো৬.৪, দেখুন ভিডিও

লং টার্মে বিনিয়োগ করা কি উচিত দেখুনঃ-

যারা নিজেদের অর্থ নিয়ে কোনও ঝুঁকি নিতে চান না, তবে তাঁদের জন্য এই লং টার্মে বিনিয়োগ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। পোস্ট অফিসের এই স্কিমগুলিতে সরকারি গ্যারান্টি থাকে, তাই এখানে টাকার কোনও ঝুঁকিও নেই।রিটার্নের খেত্রেও গ্যারান্টি পাওয়া যায়। এখানে যে স্কিমে অর্থ দ্বিগুণ করার কথা বলা হচ্ছে সেটির নাম Kisan Vikas Patra। এটি এমন একটি স্কিম যা 10 বছর টাকা দ্বিগুণ করে।এই স্কিমে কিন্তু কোনও TAX ছাড় পাওয়া যায় না। এর রিটার্ন পুরোপুরি
করযোগ্য।

* কিষাণ বিকাশ পত্র কী?

এই কিষাণ বিকাশ পত্রের সময়সীমা 124 মাস (10 বছর 4 মাস)থাকে। যদি কোনও ব্যক্তি 2020 সালের 1 এপ্রিলে বিনিয়োগ করেন, তবে তিনি 10 বছর 4 মাস পরে দ্বিগুণ টাকা পাবেন।এই স্কিমে বর্তমানে 6.9 শতাংশ হারে সুদ দেওয়া হচ্ছে।

* যত খুশি তত বিনিয়োগ করা যেতে পারেঃ-

মাত্র 1000 টাকা দিয়ে এই স্কিমে বিনিয়োগ শুরু করতে পারেন।অন্যদিকে সুখবর হল সর্বোচ্চ বিনিয়োগের কোনও সীমা নেই, যত খুশি টাকা বিনিয়োগ করা যেতে পারে। সকলের জন্য এই স্কিমটি আনা হয়েছিল 1988 সালে।পরে সর্বসাধারণের জন্য খুলে দেওয়া হয় এই Kisan Vikas Patra স্কিমটি।

* প্রয়োজনীয় কাগজপত্রঃ-

50 হাজারের বেশি বিনিয়োগের ক্ষেত্রে পরিচয়পত্র হিসেবে আধার ও প্যান থাকা বাধ্যতামূলক।আর যদি 10 লাখ বা তার বেশি বিনিয়োগ করতে হয়, তবে জমা দিতে হবে স্যালারি স্লিপ, ITR এর নথি। একক ভাবে অথবা যৌথ ভাবে অ্যাকাউন্ট খুলে Kisan Vikas Patra-তে বিনিয়োগ করতে পারেন।

Related Articles

Back to top button