Uncategorized

তৈলাক্ত নাকের সমস্যা! জেনে নিন দূর্দান্ত কয়েকটি টিপস।

যাদের তৈলাক্ত বা মিশ্র ত্বক তারা প্রায় সময় ঘুম থেকে উঠে দেখেন নাক তেল চিটচিটে হয়ে আছে।আসলে ঘুমন্ত অবস্থায় মানুষের অন‍্যান‍্য জায়গার তুলনায় নাক ঘামে বেশি।নাক তেল চিটচিটে হয়ে রোমকূপ বন্ধ হয়ে অনেক সময় ব্লাকহেডস বা ব্রনের সমস্যা দেখা দিতে পারে।যারা এই সমস্যায় ভোগেন তাদের জন্য আজ তুলে ধরা হলো কয়েকটি দূর্দান্ত টিপস।

তৈলাক্ত নাকের সমস্যা! জেনে নিন দূর্দান্ত কয়েকটি টিপস।


দই :
হাতের কাছেই পাওয়া যায়। দইয়ে রয়েছে ল‍্যাকটিক অ্যাসিড যা ত্বকের অতিরিক্ত তেল দুর করে দেয়।প্রথমে দই ফেটিয়ে নিতে হবে।এরপর সেই দই পাতলা করে প্রতি রাতে ত্বকে মেখে না শুকোনো অবধি রেখে দিতে হবে।শুকিয়ে গেলে পরিস্কার জলে মুখ ধুয়ে নিতে হবে।এরকম পরপর কয়েকদিন করলে ত্বকের অতিরিক্ত তৈলাক্ত ভাব দুর হবে।

আরও পড়ুন :  ব্যাঙ্কে স্পেশালিস্ট অফিসার নিয়োগ হবে ২৫৬ কর্মী, বেতন ২৭০০০ টাকা, জেনেনিন বিস্তারিত

ডিম :
ডিমের সাদা অংশ নাকে লাগিয়ে রাখুন।শুকিয়ে গেলে ভেজা কাপড় দিয়ে মুছে ফেলুন।প্রতিদিন এভাবে ডিম ব‍্যবহার করুন।প্রায় এক সপ্তাহ ব‍্যবহার করলে নাকের ব্লাকহেডস সহ অতিরিক্ত তৈলাক্ত ভাব দুর হয়ে যাবে।

কমলার খোসা:
কমলার খোসা প্রথমে রোদে শুকিয়ে গুড়ো করে নিতে হবে।এরপর তা রোজ এক চামচ করে গোলাপ জলের সাথে মিশিয়ে পেস্ট বানিয়ে নাকে লাগিয়ে রাখতে হবে।শুকিয়ে গেলে তা জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

অ্যালোভেরা:
অ্যালোভেরা জেল ফ্রিজে রেখে দিন একঘন্টা।এরপর ঐ জেল তুলোর বলের সাহায্যে নাকে লাগান।এরপর ৫-৬মিনিট পর মুখ ধুয়ে ফেলুন।

মধু:
আধা চামচ আমন্ড পেস্ট নিন তার সাথে এক চা চামচ মধু মিশিয়ে নিন।এটি নাকে ম‍্যাসাজ করুন শুকিয়ে গেলে ধুয়ে ফেলুন।

আপেলের খোসা:
ভিটামিন সি সমৃদ্ধ আপেলের খোসা।আপেল আশজাতীয় হওয়ায় তা যেমন ত্বক উজ্জ্বল করে তেমনি অতিরিক্ত তেল দুর করে।আপেলের খোসা শুকিয়ে গুড়ো করে নিন।এরপর এক চা চামচ লেবুর রসের সাথে মিশ্রণ বানিয়ে ত্বকে ব‍্যবহার করুন। পারলে ম‍্যাসাজ করুন। শুকিয়ে গেলে ধুয়ে ফেলুন।

 

Related Articles

Back to top button