PUBG নেশা কাড়ল প্রাণ, রেললাইনের ধারে বসে গেম খেলার সময় পুলিসের তাড়া খেয়ে পালাতে গিয়েই ট্রেনের ধাক্কায় মৃত্যু যুবকের

PUBG নেশা কাড়ল প্রাণ, রেললাইনের ধারে বসে গেম খেলার সময় পুলিসের তাড়া খেয়ে পালাতে গিয়েই ট্রেনের ধাক্কায় মৃত্যু যুবকের

নিউজ ডেস্কঃ PUBG মোবাইল গেমের আসক্তিই কাল হল।রেললাইনের ধারে বসে মোবাইলে গেম খেলছিল কয়েকজন যুবক। আর সেই সময় পুলিসের তাড়া খেয়ে পালাতে গিয়েই ট্রেনের ধাক্কায় মৃত্যু হয়েছে এক যুবকের।বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৮টা নাগাদ ঘটনাটি ঘটেছে দমদম ও বিধাননগর স্টেশনে কাছে।মৃত যুবকের নাম পুষ্পেন্দু তরতরি।ট্রেনের ধাক্কায় মৃত্যু হয় ওই যুবকের।এর পরেই গোটা এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। পুলিসকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখান স্থানীয়রা।পুলিশকে লক্ষ্য করে চলতে থাকে ইটবৃষ্টি।এমনকি পাতিপুকুরের রাস্তায় টায়ার জ্বালিয়েও বিক্ষোভ দেখান স্থানীয়রা।পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে বিশাল বাহিনী মোতায়েন করা হয়।

Advertisement

স্থানীয়দের অভিযোগ, পুষ্পেন্দু ও আরও বেশ কয়েকজন যুবক রেললাইনে ধারে বসে গেম খেলছিল। ঠিক সেই সময় ২ জন সিভিল ড্রেসে ও ২ জন উর্দি পরিহিত, মোট ৪ জন লেকটাউন থানার পুলিসকর্মী এসে পুষ্পেন্দুদের কাছে জরিমানার টাকার দাবি করে।কিন্তু টাকা দিতে অস্বীকার করেন পুষ্পেন্দুরা। তাঁরা দৌড়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে, পুলিশ তাদের ধাওয়া করে।সেইসময়ই ওই লাইনে ট্রেন চলে আসে। ট্রেনের ধাক্কায় ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় পুষ্পেন্দুর। এই ঘটনায় পুষ্পেন্দুর পরিবার কান্নায় ভেঙে পড়েছে। পরিবারের এক মাত্র রোজগেরের এইভাবে মৃত্যু কেউই মেনে নিতে পারছে না।

মৃতের মা
মৃতের মা

পুষ্পেন্দুর মা এই ঘটনার প্রকৃত তদন্ত ও পরিবারের আরেক সন্তানের কর্মসংস্থানের জন্য দাবি জানিয়েছেন।স্থানীয়দের অভিযোগ, রেল লাইনের ওপরে কোনও ঘটনা ঘটলে তা রেল পুলিশের অধীনে। লেকটাউন থানার পুলিশ কীভাবে রেলপুলিশের এলাকায় জরিমানা করতে পারে? স্থানীয়দের একজনের অভিযোগ পুলিশ তাড়া করেছে বলেই এরকমটা হল। না হলে ছেলেটাকে মরতে হত না। পুলিসের ভূমিকা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছে অনেকে।

Advertisement

Sunita Mallick

আমি সুনিতা মল্লিক গত কয়েক বছর ধরে আমি সকালের বার্তা নিউজ পোর্টালের সাথে যুক্ত আছি যেখানে আপনাদের জন্য ভাইরাল নিউজ ও ইন্টারটেনমেন্ট নিউজ আমি লেখালেখি করে থাকি, আশা করি আমার লেখাগুলো আপনাদের ভাল লেগে থাকবে। ভালো লাগলে অবশ্যই শেয়ার করবেন।

Related Articles