Advertisement
ভাইরালভিডিও

Ranu Mondal’s Romance Video: OMG!হাঁটুর বয়সী যুবকের বাইকের পিছনে বসে রোমান্স রানু মণ্ডলের

তেমনি সেই মানুষটিকে টেনে মাটিতে নামিয়ে দিতেও সময় লাগেনা।হ্যা এখন সেই অবস্থাই হয়েছে রানুদির। আসলে সবটাই মানুষের সৃষ্টি। ২০১৯ সালে লতা মঙ্গেশকরের 'এক প্যায়ার কা নাগমা'

Ranu Mondal’s Romance Video: সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে রানাঘাট স্টেশন থেকে সোজা মুম্বাইয়ের প্ল্যাটফর্ম। রানাঘাট স্টেশনে বসা এক ভিক্ষুকের হঠাৎ ভাগ্য পরিবর্তন হয়েছিল।এতক্ষণে হয়তো বুঝতে পেরে গেছেন কার কথা বলছি।হ্যা ঠিকি ভাবছেন রানু মন্ডলের কথা হচ্ছে।তার গাওয়া একটি গান রাতারাতি জনপ্রিয়তা এনে দিয়েছিল। সারা দুনিয়া মেতে উঠেছিল তার গানে।এমনকি হিমেশ রেশমিয়ার সাথে গানও গেয়েছিলেন।

Advertisement

রানাঘাট স্টেশনের ভিক্ষুক লতাকন্ঠী রানু মন্ডল। যিনি এককালে ইন্টারনেটের মাধ্যমেই ভাইরাল (Ranu Mondal’s Romance Video) হলেও এখন নেই কোনও তাঁর হাঁকডাক। নেই তাঁকে ঘিরে কোনো উত্তেজনা! আসলে সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে একজন মানুষকে যেমন খুব তাড়াতাড়ি ভাইরাল করে দিতেও সময় লাগে না।তেমনি সেই মানুষটিকে টেনে মাটিতে নামিয়ে দিতেও সময় লাগেনা।হ্যা এখন সেই অবস্থাই হয়েছে রানুদির।

Advertisement

আসলে সবটাই মানুষের সৃষ্টি। ২০১৯ সালে লতা মঙ্গেশকরের ‘এক প্যায়ার কা নাগমা’ গানটির গেয়ে রাতারাতি ভাইরাল হয়ে গিয়েছিলেন রানু মন্ডল। এমনকি মুম্বই পর্যন্তও পৌঁছে গিয়েছিলেন তিনি। সেখানে গিয়ে একাধিক মিউজিক এলবাম করে আরো খ্যাতির সঞ্চার হয় তাঁর। কিন্তু এই খ্যাতি তাঁকে অহংকারী করে তোলে। যার কারনে সমাজের চোখে দুর্বিসহ হয়ে ফের আগের ভিক্ষুকের জীবনেই ফিরে যান তিনি।

আরও পড়ুন :  ভাইরাল হলো মডেল অদিতি, অন্তর্বাস পরিহিত অবস্থায় ছবি শেয়ার করলেন ইনস্টাগ্রামে
Advertisement

পূর্বের মত প্রভাব-প্রতিপত্তি নাম-যশ কোনোটাই নেই তার। আর্থিক অনটনের সংসারে দু’বেলা দু’মুঠো খাবার জোটে না তার।কিন্তু তবুও ভিক্ষাবৃত্তি আর করতে পারেন না তিনি। কেননা স্টেশনে গিয়ে বসলে সাধারণ মানুষ হুমরি খেয়ে পরে তার ওপর। ছবি এবং রিলের ছড়াছড়িতে চাপা পড়ে যায় রানু মন্ডলের সত্ত্বা।কিন্তু এখনো রানুদিকে নিয়ে চর্চা চলে সোশ্যাল মিডিয়ায়  (Ranu Mondal’s Romance Video) । মাঝে মধ্যেই তার নানা ভিডিও উঠে আসে সোশ্যাল মিডিয়ায়। যা মুহূর্তের মধ্যেই ভাইরাল হয়ে যায়।

Advertisement

নিত্যদিন নানান ইউটিউবারদের আনাগোনা হয় তার বাড়িতে। বেশিরভাগ ইউটিউবাররা তাকে কমেডি কনটেন্ট হিসেবেই ব্যবহার করে থাকেন।তাই মাঝে মাঝেই ইউটিউবাররা রানুদির ইন্টারভিউ (Ranu Mondal’s Romance Video) নিতে আসেন। রানুদির সঙ্গে নানা রকমের ভিডিও বানিয়ে তাঁকে খুশি করে দিয়ে যান। আর তাতেই মানুষের কাছাকাছি পৌঁছতে পারেন রানু। ইউটিউবাররা তাঁকে নিয়ে নানারকম কীর্তিকলাপ করেন।

রানুদির ইন্টারভিউ নেওয়ার পাশাপাশি কেউ রানুদিকে নিয়ে রোমান্টিক গান করেন, আবার কেউ নাচ করেন। কেউ আবার তাঁকে নিয়ে নানা রসিকতাও করে।মাঝে মধ্যেই তাঁকে নানা রকম অবতারে সাজিয়ে তাঁর সঙ্গে বিভিন্ন পারফরম্যান্সও করেন ইউটিউবাররা।আসলে সবটাই রানুদির কাঁধে ভর দিয়ে সোশ্যাল ইউজাররা নিজেরা নাম কেনে।সেই ভিডিওগুলি সোশ্যাল মিডিয়ায় এখন রীতিমত ভাইরাল হয়।

সম্প্রতি রানুদিকে দেখা গেল আরও এক আশ্চর্য রকম কান্ড ঘটাতে। একজন ইউটিউবারের বাইকের পেছনে বসে রোমান্টিক হিন্দি গান “চোরি চোরি চুপকে চুপকে” গানে লিপসিং করতে দেখা যান তাকে। এদিন রানু দিদির বাড়িতে হাজির হওয়া এই হ্যান্ডসাম ইউটিউবারের বাইকের (Ranu Mondal’s Romance Video) ব্যাকসিটে বসে সবুজ রঙের পলকা ডটেড নাইটি পরিহিতা রানু মন্ডল রোমান্টিক মুডেই ধরা দিলেন।

এ যেন পুরো একটি হিন্দি সিনেমার মতো নায়ক নায়িকাকে (Ranu Mondal’s Romance Video) গাড়িতে বসিয়ে তাঁর সঙ্গে রোমান্টিক মুহূর্তের সৃষ্টি করছেন।তার প্রত্যেকটি এক্সপ্রেশন অনবদ্য ছিল।এই ভিডিওটি সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়তেই বেশ ভাইরাল হয়েছে। ভিডিওটিতে রানুদি ধরা দিয়েছন বেশ অন্য মেজাজে। আবার কিছু মানুষ রানুদির এমন অবতারে অত্যন্ত অসন্তুষ্ট হয়েছেন।

নেটিজেনদের একাংশের মতে একজন মানসিক ভারসাম্যহীন মহিলাকে একা পেয়ে তার পঙ্গুত্বকে এইভাবে সারা দুনিয়ার সামনে মেলে ধরা মোটেই কৃতকার্য নয়। বরং ভিউজ বাড়ানোর তাগিদে (Ranu Mondal’s Romance Video) একজন ভারসাম্যহীন মানুষকে এইভাবে ব্যবহার করার অনেকেই তীব্র নিন্দা করেছেন।

Related Articles

Back to top button