নিউজ

Refrigerators trains : মৎস্য ব্যবসায়ীদের জন্য এবার রেফ্রিজারেটেড ট্রেন চালু করতে চলেছে শিয়ালদায় ডিভিশন রেল

Refrigerators trains : এবার মৎস্যজীবীদের জন্য স্পেশাল ট্রেন আনতে চলেছে রেল। অর্থাৎ মৎস্য সংরক্ষণের জন্য ট্রেনে রেফ্রিজারেটেড (Refrigerated Train) ব্যবস্থা থাকবে। মঙ্গলবার কলকাতার (Kolkata News) বেহালায় রেলের অনুষ্ঠানে গরিব কল্যাণ সম্মেলনে এমনই প্রতিশ্রুতি দিলেন রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব।রেলমন্ত্রী জানিয়েছেন দ্রুত সমীক্ষার পর, ২-৩ মাসের মধ্যে এই বিশেষ ট্রেন (Fish Traders) চলবে।এই রেফ্রিজারেটেড ট্রেন চালু হলে মৎস্য ব্যবসায়ীদের সুবিধা হবে।

indian railways to start running  refrigerators trains installed to help fish traders
মঙ্গলবার মোদি সরকারের, অষ্টম বর্ষপূর্তিতে বেহালায় গরিব কল্যাণ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব। এই সরকারি অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানানো হয় বিভিন্ন পেশার সঙ্গে যুক্ত মানুষদের। সেখানেই বক্তব্য রাখার সময়, মৎস্যচাষের সঙ্গে যুক্ত হুগলির এক ব্যবসায়ী রেলমন্ত্রীর কাছে আবেদন জানান, চিংড়ি নিয়ে যাওয়ার জন্য পূর্ব মেদিনীপুর থেকে স্পেশাল ট্রেনের ব্যবস্থা করা হোক। কারণ কৃষক স্পেশাল ট্রেনে, মাছ তুলতে সমস্যার মুখে পড়তে হয় মৎস্য ব্যবসায়ীদের।

আরও পড়ুন :  মিনিকেট চাল বলে রেশনের পোকা চাল বিক্রি করছে কিছু অসাধু চাল ব্যবসায়ী,এদের থেকে বাঁচতে এক্ষুনি সচেতন হন

শুধুমাত্র কৃষিজাত সামগ্রী নিয়ে যাওয়ার জন্য, গত বছর রাজ্যে কৃষক স্পেশাল ট্রেন চালু করে বেল।রোজ নদিয়ার গেদে ও শান্তিপুর থেকে সবজি, ফুল নিয়ে লোকাল ট্রেন আসছে শিয়ালদায়।কিন্তু মাছ সংরক্ষণ করে নিয়ে যাওয়ার মত কোন স্পেশাল ট্রেন নেই।এ ব্যাপারে মৎস্য ব্যবসায়ী অমলেশ চট্টোপাধ্যায় জানিয়েছেন পূর্ব মেদিনীপুর থেকে যদি স্পেশাল ট্রেন দেওয়া হয়, শুধু চিংড়ি মাছ আনার জন্য তাহলে খুব ভাল হয়। এরপর রেলমন্ত্রী আশ্বাস দেন, মাছ নিয়ে যাওয়ার জন্য বিশেষ ট্রেন চালানো হবে। অর্থাৎ মৎস্য ব্যবসায়ীদের জন্য রেফ্রিজারেটেড ট্রেন চালু করা হবে।

আরও পড়ুন :  'নিজেই কুঁয়ােয় ঝাঁপ দেন মহিলা',যৌনাঙ্গে রড ঢুকিয়ে গণধর্ষণের পর দাবি পুরােহিতের

শীঘ্রই চালু হতে চলেছে রেফ্রিজারেটেড ট্রেন (Refrigerators trains )-

রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব (Ashwini Vaishnaw) জানিয়েছেন খুব শীঘ্রই বাংলা থেকে রেফ্রিজারেটেড ট্রেন চালানো হবে। তিনি বলেন রেফ্রিজারেটেড ট্রেন চালানোর জন্য চিংড়ি চাষ যাঁরা করেন, তাদের মধ্যে এক ভাই এই ট্রেন চালু করার অনুরোধ করেন। আমরা এবিষয়ে দ্রুত সমীক্ষা করব। আশা করছি ২-৩ মাসের মধ্যেই চালু হবে বিশেষ রেফ্রিজারেটেড ট্রেন।

এই স্পেশাল ট্রেন (Refrigerators trains ) নিয়ে কৌতুহল বাড়ছেঃ-

পূর্ব মেদিনীপুরের কাঁথি, নন্দীগ্রাম, ময়নার পাশাপাশি, দক্ষিণ ২৪ পরগনার ক্যানিং, বাসন্তী, গোসাবা, উত্তর ২৪ পরগনার সন্দেশখালি, হাড়োয়ার বিস্তীর্ণ এলাকার বাসিন্দাদের পেশা হল মাছ ধরা। কিন্তু সংরক্ষণের সমস্যায় কারনে ব্যবসায়ীরা মাছ বাইরে নিয়ে যেতে সমস্যায় পড়েন। তাই কৃষক স্পেশালের মতো এবার শুধু মৎস্যজীবীদের মাছ নিয়ে যাওয়ার জন্য স্পেশাল রেফ্রিজারেটেড ট্রেন আনতে চলেছে রেল। এই স্পেশাল ট্রেন কবে থেকে চলবে তা নিয়েই কৌতূহল বাড়ছে।

Related Articles

Back to top button