নতুন Royal Enfield Himalayan 450, লঞ্চের আগেই প্রকাশ্যে ছবি

প্রকাশ্যে আসা ছবি দেখে মনে করা হচ্ছে ডিজাইনের দিক থেকে পূর্ববর্তী মডেল Himalayan 411-এর সাথে মিল রয়েছে Himalayan 450-এর।

Royal Enfield Himalayan 450: ফের নতুন একটি অ্যাডভেঞ্চার বাইক নিয়ে হাজির হতে চলেছে Royal Enfield।দীর্ঘদিন ধরেই শোনা যাচ্ছিল Royal Enfield নতুন Himalayan মোটর সাইকেলের মডেল তৈরির কাজ শুরু করেছে।সম্প্রতি ট্রায়াল চলাকালীন ব্রিটেনের রাস্তায় Royal Enfield Himalayan 450-এর ছবি প্রকাশ্যে এসেছে। বাইকটির আদ্যপ্রান্ত ক্যামোফ্লেজে মোড়ানো অবস্থায় ধরা পড়েছে। যাকে ঘিরে জল্পনা তৈরি হয়েছে।

প্রকাশ্যে আসা ছবি দেখে মনে করা হচ্ছে ডিজাইনের দিক থেকে পূর্ববর্তী মডেল Himalayan 411-এর সাথে মিল রয়েছে Himalayan 450-এর। 450 সিসি ভার্সন সংস্থার সম্পূর্ণ নতুন আর্কিটেকচারের উপর ভিত্তি করে তৈরি হবে বলে আশা করা হচ্ছে। নয়া ভার্সনটি আগের চাইতে আরও বেশি অফ-রোডিং ক্যাপাসিটি সহ আসবে বলে মনে করা হচ্ছে।এতে ৪৫০ সিসি ইঞ্জিন রয়েছে।

Advertisement

এই নতুন Himalayan 450 পরীক্ষার জন্য রাস্তায় দেখা গিয়েছে।স্বাভাবিকভাবেই টেস্টিংয়ের বিভিন্ন ছবি ইন্টারনেটে ভাইরাল হতে সময় লাগেনি।ইতিমধ্যেই বাজারে রয়েছে Royal Enfield এর Interceptor 650, Continental GT 650, Himalayan 411 ছাড়াও 350 cc ইঞ্জিনের একাধিক জনপ্রিয় মডেল। এবার সেই তালিকায় আরও একটি নতুন নাম যুক্ত হতে চলেছে।

ফাঁস হওয়া ছবিতে দেখা গিয়েছে, ফুয়েল ট্যাঙ্কের চতুর্দিকে রয়েছে মেটাল ট্যাঙ্ক ব্রেস, একটি স্বচ্ছ উইন্ডস্ক্রিন, ব্ল্যাক হাউসিং সহ গোলাকৃতি হেড ল্যাম্প, সামনে ও পেছনে ডিস্ক ব্রেক যুক্ত ওয়্যার স্পোক উইল, নতুন স্প্লিট সিট এবং স্প্রিট গ্র্যাব রেল। ফুয়েল ট্যাঙ্কের মাপ বর্তমান বাজার চলতি ৪১১ মডেলের চাইতে বেশি হতে পারে বলেই অনুমান। এছাড়াও মোনোশক রিয়ার সাসপেনশন (সম্ভবত প্রিলোড অ্যাডজাস্টবিলিটি যুক্ত) এবং একটি সাইড স্নাঙ্গ ব্ল‍্যাক ফিনিশড এগজস্ট সিস্টেম রয়েছে (Royal Enfield Himalayan 450)।

হিমালয়ান ৪১১-এর মতো নতুন মডেলের সামনে ও পেছনে যথাক্রমে ২১ ইঞ্চি ও ১৭ ইঞ্চি হুইলের দেখা মিলেছে। সেমি ডিজিটাল ইন্সট্রুমেন্ট ক্লাস্টার এতেও দেওয়া হতে পারে। তবে প্রোডাকশন ভার্সনে আরও উন্নত ইন্সট্রুমেন্ট ক্লাস্টার দেওয়া হতে পারে। ডুয়েল চ্যানেল এবিএস সহ এতে রয়েছে একটি স্লিপার এবং অ্যাসিস্ট ক্লাচ।

এতে ৪৫০ সিসি সিঙ্গেল সিলিন্ডার লিকুইড কুল্ড DOHC ইঞ্জিন দেওয়া হতে পারে। ৬-স্পিড ট্রান্সমিশন যুক্ত ইঞ্জিন থেকে ৪০ এইচপি শক্তি উৎপন্ন হতে পারে। বোল্ট-অন সাবফ্রেম এবং নতুন চ্যাসিসের দেখা মিলেছে। যেটি হালকা অথচ দৃঢ়।Himalayan 450 ডিজাইনে অ্যাডভেঞ্চার বাইকের একাধিক গুণাবলী রয়েছে।2023 সালের শুরুতেই ভারতের বাজারে Royal Enfield Himalayan 450 লঞ্চ হতে পারে। বাজারে KTM 390 Adventure কে সরাসরি টক্কর দিতে Royal Enfield এই মোটরসাইকেল নিয়ে আসছে।

Advertisement

Related Articles