ভাইরালভিডিও

এক ক্ষুদে শিশু গিটার নিয়ে অসাধারণ গান গেয়ে সকলকে মুগ্ধ করলো, তার ভিডিও রীতিমত ভাইরাল

বর্তমানে বিনোদনের আরেক নাম সোশ্যাল মিডিয়া। বিজ্ঞানের এই অগ্রগতির শিখরে মানুষ নিজের বিনোদনের বিষয়গুলিকে নিমিষে হাতের মুঠোয় উপভোগ করতে পারে। বর্তমানে বিনোদন বলতে খেলাধুলা, গানবাজনা, খবরাখবর সব কিছুই মানুষ এখন তার হাতের মুঠোয় উপভোগ করতে পারি। এখন মানুষের দেশ বিদেশের খবরাখবর জানতে দূরদর্শন বা খবরের কাগজের উপর নির্ভর করে থাকতে হয় না। স্মার্ট ফোনে সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে যে কোনো মুহূর্তে যে কোনো স্থানের খবরাখবর জানা যায়।

বর্তমানে এই সোশ্যাল মিডিয়া আমাদের জীবনে খুবই গুরুত্বপূর্ণ প্রভাব বিস্তার করে। সোশ্যাল মিডিয়া ছাড়া আমার বর্তমান জীবনে একেবারেই অচল।এক কথায় বলতে গেলে বিজ্ঞানের শ্রেষ্ঠ অবদান গুলির মধ্যে অন্যতম এই সোশ্যাল মিডিয়া। এই সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে মানুষ নিজের ব্যবসা ডিজিটাল ব্যবসায় রূপান্তরিত করেছেন।এখন মানুষ নিজের ব্যবসা অগ্রসর এবং বৃদ্ধি করার জন্য সোশ্যাল মিডিয়ার সাহায্য নেন।

আরও পড়ুন :  ক্ষুধা পেলে খান বিদ‍্যুৎ!হ‍্যা এমনই আজব মানুষ হলেন উত্তরপ্রদেশের ৪২ বছরের নরেশ কুমার।

সোশ্যাল মিডিয়া বহু মানুষের রোজকারের সুবিধা করে দিয়েছেন। বহু প্রতিভাবান ব্যক্তি এই সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে নিজেদের প্রতিভা মানুষের কাছে তুলে ধরেন এবং রাতারাতি জনপ্রিয় হয়ে যান। এই সোশ্যাল মিডিয়া একটি অত্যন্ত সুবিধাপূর্ন মাধ্যম আমাদের কাছে।বহু খুদেদের বিভিন্ন মুহূর্তের ভিডিও ভাইরাল হতে দেখা যায় সোশ্যাল মিডিয়ায়।

ইদানিং এক খুদে শিশুর হাস্যকর গানের ভিডিও ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।এই ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে এক খুদে শিশু একটি ছোট্ট গিটার নিয়ে হাস্যকর সুরে ও হাস্যকর এক্সপ্রেশনে গান গাইছে।শিশুটি কি গান করছে সেটা ঠিক বোঝা যাচ্ছে না,কিন্তু তার গিটার বাজানো ও গানের এক্সপ্রেশন খুবই হাস্যকর।সোশ্যাল মিডিয়ায় ভিডিওটি শেয়ার করার সাথে সাথে নিমিষে ভাইরাল হয়ে গিয়েছে। দর্শকদের কাছে এই ভিডিওটি খুবই হাস্যকর লেগেছে এবং অনেকে দর্শক সোশ্যাল মিডিয়ার কমেন্ট করে জানিয়েছেন। ভিডিওটি দেখে বহু দর্শকরা তাদের হাসি থামিয়ে রাখতে পারেননি তা অনেকেই কমেন্টে ব্যক্ত করেছেন।

এই ভিডিওটি Viral Story টুইটার পেজে কিছুদিন আগে আপলোড করা হয়েছে। এই ভিডিওটিকে বহু মানুষজন দেখেছেন এবং আনন্দ উপভোগ করেছেন। এই ভিডিওটিকে বহু মানুষ লাইক করেছেন এবং অনেকে কমেন্ট করে তাদের মতামত জানিয়েছেন। এই ভিডিওটিকে বহু মানুষ শেয়ার করে অন্যদের এই ভিডিওটি দেখার সুযোগ করে দিয়েছেন।এই ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় বহু ভাইরাল ভিডিওর তালিকায় জায়গা করে নিয়েছে।আপনিও যদি এই ভিডিওটি না দেখে থাকেন, তাহলে এক্ষুনি এই ভিডিওটি দেখতে পারেন এবং আনন্দ উপভোগ করতে পারেন।

Related Articles

Back to top button