নিউজ

আইন ঘিরে রণক্ষেত্র ফ্রান্স, চাপে মাকরঁ

নিউজ ডেস্কঃ গতকালও প‍্যারিস সহ দেশের বিভিন্ন শহরের বেশ কয়েকটি রাস্তায় নেমে হাজার হাজার মানুষ বিক্ষোভ দেখালেন প্রস্তাবিত নিরাপত্তা আইন ও প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল মাকঁরর বিরুদ্ধে।পরিস্থিতি এতটাই খারাপ পর্যায়ে চলে গিয়েছিল যে রনক্ষেত্রের চেহারা নিলো রাজধানী এলাকা।এছাড়া চললো ইটবৃষ্টি,দোকান ভাঙচুর সহ জ্বালিয়ে দেওয়া হলো গাড়ি।পরিস্থিতি সামাল দিতে গিয়ে পুলিশকে চালাতে হলো লাঠিচার্জ, ছুড়তে হলো কাঁদানে গ‍্যাসের শেল।দিনশেষে দেশজুড়ে ৬৭ জন পুলিশকর্মী আহত ও গ্রেফতার করা হলো ৯৫ জন বিক্ষোভকারীকে।

আরও পড়ুন :  শরীরের ভিতরে উলট-পালট সব অঙ্গ! জটিল অস্ত্রোপচার করে নজির জলপাইগুড়ির চিকিৎসকের

বিক্ষোভের কারণ খসরা আইনের ২৪ নম্বর অনুচ্ছেদে পুলিশ অফিসারের ছবি প্রকাশে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।আর এই অনুচ্ছেদ বাতিল করার দাবিতে চলছে বিক্ষোভ।বিক্ষোভকারীদের দাবি পুলিশকে শনাক্ত করা না গেলে পুলিশী নির্যাতনের সংখ্যা আরো বেড়েই চলবে।পুলিশের জন্যে আরো ভালো প্রশিক্ষণ বা নীতি আনার বদলে এভাবে নাগরিকদের অধিকার ও গনমাধ্যমের স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ করা হচ্ছে বলেই বিক্ষোভকারীদের দাবী।

কাল বিক্ষোভের শুরুটা শান্তিপূর্ন থাকলেও পরের দিকে পুলিশ বাধাদান করতে গেলে মুখে কালো পট্টি বাধা একদল লোক উল্টে পুলিশকে আক্রমন করে বসে।সংবাদমাধ্যমের দাবি পুলিশ প্রথম বলপ্রয়োগ করেছে। তবে বিশেষজ্ঞরা ভাবছে বিষয়টা কি শুধু আইন নিয়ে প্রতিবাদ নাকি মাকঁরই আসল নিশানায়। সমীক্ষার রিপোর্ট অনুযায়ী এই মূহুর্তে প্রেসিডেন্টের সাথে সমর্থন রয়েছে ৩৮ শতাংশ মানুষের।কুটনীতিবিদদের ধারণা ডানপন্থীদের রুখতে যেসব রাজনৈতিক দল একমত হয়ে মাকঁরকে এনেছেন সেই ডানপন্থীরাই আবার ক্ষমতাচ‍্যুত না করে মাকঁরকে।

আরও পড়ুন :  ধেয়ে আসছে বছরের প্রথম ঘূর্ণিঝড় অশনি,তবে কতটা প্রভাব পড়বে বাংলায়

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button