নিউজ

আগামী ৩১ মে থমকে যাবে সব ট্রেনের চাকা! রেলযাত্রীদের চরম ভোগান্তি পোহাতে হতে পারে

দেশের প্রায় ৩৫ হাজার স্টেশন মাষ্টার আগামী ৩১ মে গণছুটির ডাক দিয়েছেন। এর জেরে সেদিন গোটা দেশের রেল পরিষেবা বিঘ্নিত হতে পারে বলে জানা যাচ্ছে।স্টেশন মাস্টারদের সর্বভারতীয় সংগঠন বেশ কিছু শর্ত ও দাবি পেশ করে রেলওয়ে বোর্ডের কাছে একটি নোটিশ পাঠিয়েছেন। সে সব দাবি না মানা হলে এই ‘ধর্মঘট’ করা হবে বলে জানানো হয়েছে।কেন্দ্র সরকার বা রেল মন্ত্রক কোনো ব্যবস্থা না নিলে চলতি মাসের ৩১ তারিখে সারাদেশে ট্রেনের চাকা থেমে যেতে পারে।

স্টেশন মাস্টার গণ ছুটিতে যাচ্ছেন কেন?

অল ইন্ডিয়া স্টেশন মাস্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ধনঞ্জয় চন্দ্রত্রে বলছেন যে রেলওয়ে স্টেশন মাস্টারের গণ ছুটিতে যাওয়া ছাড়া তাদের কাছে আর উপায় নেই।সারাদেশে ছয় হাজারের বেশি স্টেশন মাস্টারের ঘাটতি রয়েছে।কিন্তু রেলওয়ে প্রশাসন এই সব পদে নিয়োগ করছে না।নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি জারি হলেও প্রক্রিয়া পিছিয়ে যাচ্ছে। পর্যাপ্ত কর্মী না থাকায় বেশি চাপ পড়ছে স্টেশন মাষ্টারদের উপর।বহু স্টেশনেই স্টেশন মাষ্টার আছেন মাত্র দু’জন।তাই ৮ ঘণ্টা কাজ করার কথা থাকলেও কাজ করতে হচ্ছে ১২ ঘণ্টা। কোনও কোনও স্টেশনে যেদিন স্টেশন মাস্টারের সাপ্তাহিক ছুটি থাকে, তখন অন্য স্ট্রেশন থেকে কর্মী এনে কাজ চালাতে হয়।

আরও পড়ুন :  ১ ডিসেম্বর থেকে বন্ধ হয়ে যাচ্ছে সমস্ত ট্রেন চলাচল ? কী জানাল রেল মন্ত্রক...

স্টেশন মাস্টারদের দাবিঃ-

* স্টেশন মাস্টারদের দাবি রেলের শূন্যপদগুলি দ্রুত পূরণ করা উচিত।

* রাতের ডিউটির জন্য ভাতা পুনঃস্থাপন।

* রেলওয়ের বেসরকারিকরণ ও কর্পোরেটাইজেশন রোধ করা।

* রেলওয়ে কর্মচারীদের পুরানো পেনশন প্রকল্পের পুনরুজ্জীবন।

* রেলওয়ে স্টেশন মাস্টারদের নিরাপত্তা ও সময়মতো ভাতার দাবি।

* কাজের সময়সীমা সেট করে দিতে হবে।

স্টেশন মাস্টাররা এই সিদ্ধান্ত হঠাৎ করে নেয়নি। দীর্ঘ লড়াইয়ের পর এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তারা।প্রথম পর্যায়ে, স্টেশন মাস্টার্স আধিকারিকরা রেলওয়ে বোর্ডের আধিকারিকদের ই-মেইল পাঠিয়ে তাদের দাবি মেনে নেওয়ার জন্য প্রতিবাদ করেছিলেন। দ্বিতীয় পর্যায়ে, ১৫ অক্টোবর ২০২০ তারিখে সারা দেশের স্টেশন মাস্টাররা নাইট ডিউটি শিফটে স্টেশনে মোমবাতি জ্বালিয়ে প্রতিবাদ করেছিলেন।তৃতীয় পর্বটি ২০ অক্টোবর থেকে ২৬ অক্টোবর ২০২০ পর্যন্ত এক সপ্তাহ ধরে চলে। সেই সময়ে স্টেশন মাস্টাররা কালো ব্যাজ ধারণ করে ট্রেন পরিচালনা করেন।

চতুর্থ পর্বে সমস্ত স্টেশন মাস্টার ৩১ অক্টোবর ২০২০ তারিখে একদিনের অনশনে গিয়েছিলেন। পঞ্চম পর্যায়টি প্রতিটি বিভাগীয় সদর দপ্তরের সামনে সম্পাদিত হয়েছিল।ষষ্ঠ পর্বে সব সংসদীয় আসনের জন প্রতিনিধিদের কাছে স্মারকলিপি পেশ করা হয় এবং রেলমন্ত্রীর কাছে স্মারকলিপি পেশ করা হয়। সপ্তম পর্বে রেল প্রতিমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করে সমস্যার কথা জানান। তা সত্ত্বেও স্টেশন মাস্টারদের সব দাবি এখনও আটকে রয়েছে।তাই আগামী ৩১ মে গণছুটির ডাক দিয়েছেন দেশের সব স্টেশন মাষ্টাররা।

Related Articles

Back to top button