নিউজ

চাঞ্চল্যকর তথ্য প্রকাশ করল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা, ল্যাব থেকে নয় করােনা ছড়িয়েছে বাদুড় থেকে, গবেষণায় দাবি ‘হু’ এর

চাঞ্চল্যকর তথ্য প্রকাশ করল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা, ল্যাব থেকে নয় করােনা ছড়িয়েছে বাদুড় থেকে, গবেষণায় দাবি 'হু' এর

বিশ্ব জুড়ে আছড়ে পড়েছে করােনার দ্বিতীয় ঢেউ। বাদ নেই ভারতও। গত বছরের এই সময়ের মতাে এবারও ফের তরতরিয়ে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। সেই সঙ্গে মৃত্যুর লেখচিত্রও উধ্বমুখী। রােগের প্রতিষেধকও বেরিয়েছে, শুরু হয়েছে টিকাকরণও। তার পরেও সংক্রমণের হার কমছে কই? ভারতে ইতিমধ্যেই মৃত্যু হয়েছে ২৯১ জনের।কিছু রাজ্যে শুরু হয়েছে লকডাউন। আর এই আবহেই করোনা ভাইরাসের প্রকৃত উৎস নিয়ে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (হু) রিপাের্ট সামনে এল।গবেষণাগার থেকে নয় করােনার ভাইরাস ছড়িয়েছিল বাদুড় থকেই, অন্তত এমনই দাবি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা(হু) এবং চিনের যৌথ গবেষকদলের।

 

গবেষণা থেকে জানা যাচ্ছে, বাদুড় থেকে করােনা সংক্রমণ ছড়ায় মানুষে। সেখান থেকেই ধারণ করে অতিমারীর রূপ। ২০১৯ সালের শেষের দিকে প্রথমে চিন ও পরে হু হু করে করােনা ভাইরাস ছড়াতে থাকে গােটা বিশ্বে।মারণ এই ভাইরাসের সংক্রমণে মৃত্যু হয় লক্ষ লক্ষ মানুষের। রােগ এবং ভাইরাসের উৎস নিয়ে শুরু হয় নানা গবেষণা।জল্পনা ছড়ায় চিনের গবেষণাগার থেকেই কোনওভাবে ছড়িয়ে পড়েছে মারণ এই ভাইরাস।তবে প্রথম থেকেই চিন দাবি করেছিল গবেষণাগার থেকে কোনওভাবেই ছড়ায়নি করােনা ভাইরাস।পরে এই ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে। লকডাউন করে পরিস্থিতির মােকাবিলা করার চেষ্টা করে বিভিন্ন দেশ।তার পরেও দীর্ঘদিন বের হয়নি প্রতিষেধক।

 

সম্প্রতি চিনে উহানে গিয়ে গবেষণা চালিয়েছিলেন হু-এর বিজ্ঞানীরা। এই গবেষণায় চিনা সরকারও যুক্ত ছিল।দীর্ঘ অনুসন্ধানে জানা যায় গবেষণাগার থেকে করােনা ভাইরাস ছড়ানাে একবারেই অসম্ভব। মারণ এই ব্যাধির ভাইরাস ছড়িয়েছে বাদুড় থেকে কারন চিনাদের একটি বড় অংশ বাদুড় খায়। গবেষকদের দাবি এই বাদুড় থেকেই কোনওভাবে মানুষের শরীরে ছড়ায় করােনার ভাইরাস।সেই কারণেই এই ভাইরাসের আঁতুড়ঘর চিন।সেই গবেষণার রিপাের্ট যদিও এখনও প্রকাশিত হয়নি।হু-র এক পদস্থ আধিকারিক জানান কিছু দিনের মধ্যেই এই রিপাের্ট প্রকাশ্য করা হবে।হু-র বিবৃতি সামনে আসার পরেই তীব্র চাঞ্চল্য শুরু হয়েছে আন্তর্জাতিক মহলে।এই রিপাের্ট সঠিক তাে! এর পেছনে চিনের পরােক্ষ কোনও প্রভাব নেই তাে, তা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button