নিউজ

বিশ্বে প্রথম কোনো মমির গর্ভে শিশু সন্তানের অস্তিত্ব পাওয়া গেলো

বিশ্বে প্রথম কোনো মমির গর্ভে শিশু সন্তানের অস্তিত্ব পাওয়া গেলো

এই প্রথম কোনো মমির গর্ভে শিশু সন্তানের অস্তিত্ব পাওয়া গেলো।এক প্রাচীন মমি পরীক্ষা করে পোলিশ গবেষকেরা বলেছিলেন, এটি সম্ভবত কোনও পুরুষ পুরোহিতের মমি।কিন্তু এটির এক্স-রে এবং কম্পিউটার পরীক্ষার পরে সম্প্রতি বিজ্ঞানীদের আশ্চর্য হওয়ার পালা।কারন তাঁরা দেখেন এটি সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা এক নারীর মমি। গবেষকেরা জানাচ্ছেন, এটিই হল বিশ্বের প্রথম কোনও অন্তঃসত্ত্বা মহিলার মমি।

এই মমিটি ১৮২৬ সালে Warsaw পৌঁছেছিল বলে জানা গিয়েছে। ওই কফিনটির উপরে এক পুরোহিতের নাম খোদাই করা ছিল। গবেষকদের তরফে নৃতত্ত্ববিদ ও প্রত্নতত্ত্ববিদ Marzena Ozarek-Szilke জানান, মমিটি পরীক্ষা করতে গিয়ে দেখি সেটির কোনও পুরুষাঙ্গ নেই, এদিকে স্তন আছে এবং লম্বা চুল।তারপরি আমরা আরও পরীক্ষা নিরীক্ষা করে নিশ্চিত হই যে এটি কোনও মহিলার মমি। আর সেই মমি অন্তঃসত্ত্বা।

আরও পড়ুন :  কোটি টাকা জিতেও এই প্রশ্নের উত্তর দিতে পারেননি IPS মোহিতা, আপনি পারবেন উত্তরটি ?

গবেষকদের অনুমান, ওই মিশরীয় নারীর বয়স ২০-৩০ বছরের মধ্যে।আর গর্ভস্থ শিশুর করোটি পরীক্ষা করে তাঁদের মনে হচ্ছে, এর বয়স ২৬-২৮ সপ্তাহের মতো। এ সংক্রান্ত গবেষণাপত্রটি বেরিয়েছে Journal of Archaeological Science-য়ে ।সেখানে বলা হয়েছে প্রাচীন মিশরে অন্তঃসত্ত্বা মহিলাদের কী ধরনের চিকিৎসা দেওয়া হত, তার একটা আন্দাজ পাওয়া যাবে এই মমিটি থেকে।

Related Articles

Back to top button