Home নিউজ বিজেপিতে যোগদান করার পরই বৃহস্পতিবার কাঁথিতে মহামিছিলের ডাক দিলেন বিজেপি নেতা শুভেন্দু...

বিজেপিতে যোগদান করার পরই বৃহস্পতিবার কাঁথিতে মহামিছিলের ডাক দিলেন বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী

নিউজ ডেস্কঃ বিজেপিতে যোগদান করার পরই বৃহস্পতিবার কাঁথিতে মহামিছিলের ডাক দিলেন বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী।তার আগেই তিনি মঙ্গলবার পূর্ব বর্ধমানের কেতুপূর গ্রামে একটি সভার ডাক দিয়েছেন।বিজেপিতে যোগদান করার পর প্রথম কর্মসূচি এটি।বুধবার শুভেন্দুর গড় বলে পরিচিত কাঁথিতে একটি মিছিল করার কথা আছে তৃনমূলের।জানা গিয়েছে সেই মিছিলে উপস্থিত থাকবে তৃনমূলের সৌগত রায়,ফিরহাদ হাকিম,অখিল গিরি ও কল‍্যান বন্দোপাধ্যায়ের মতো তাবড় তাবড় নেতারা।যারা প্রত‍্যেকেই দলে শুভেন্দুর বিরোধী বলে পরিচিত ছিলেন।তবে অন‍্যেরা বিরোধিতা করলেও সৌগত শুভেন্দুকে দলে রেখে দেওয়ার জন্য কয়েক দফা আলোচনা করেছিলেন।তবে যখন শুভেন্দু দল ছাড়েন তখন সৌগতই শুভেন্দুকে বিশ্বাসঘাতক বলে অভিহিত করেন।

আরও পড়ুন :  চিত্তরঞ্জন লোকোমোটিভ কারখানার তৈরি তেজসের ইঞ্জিন এবার দৌড়াবে দেশে

Shuvendu is joining the BJP this week

এদিকে তৃনমূলের সূত্রে খবর দল ছাড়ার পর সরাসরি শুভেন্দুকে মোকাবেলা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে দল।সেইজন্যই দলের তাবড় তাবড় নেতাদের নামানো হচ্ছে খাস তালুকে।অন‍্যদিকে এই মিছিলের পাল্টা জবাব দিতেই ২৪ ঘন্টা পরে মহামিছিলের ডাক দিয়েছেন শুভেন্দু।তিনি সোমবার বিধানসভার স্পিকার বিমান বন্দোপাধ্যায়ের সাথে দেখা করেন পূর্ব পরিকল্পনা মতো।তার ইস্তাফা প্রসঙ্গে বক্তব‍্য পেশ করার জন্য তিনি ১৫ মিনিট সময় বিমানের ঘরে ছিলেন। কয়েকটি প্রশ্ন করেই বিমান বন্দোপাধ্যায় শুভেন্দুর পদত‍্যাগপত্র জমা নেন।
বিধানসভা থেকে বেরিয়ে শুভেন্দু বলেছেন,’পদত‍্যাগপত্র জমা দিয়েছি নিয়ম মেনেই। স্পিকার মহাশয় নিয়ম মেনেই আমাকে ডেকে পাঠিয়েছেন। এনিয়ে কোন বিতর্কে যাবোনা।’এরপর তিনি আবার বলেন,”ভারতে বহুদলীয় গনতন্ত্র আছে।এখানে যে কোন ব‍্যাক্তি যে কোন দলে সদস্য হতে পারেন।আমিও একটি দল ছেড়ে আরেকটি দলের সদস্য হয়েছি।দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আমার হাতে সেই দলের পতাকা তুলে দিয়েছেন।”অন‍্যদিকে ইস্তাফাপত্র গ্রহণ করার পর বিমান বলেছেন,”শুভেন্দুর ইস্তাফায় কিছু পদ্ধতিগত ত্রুটির কথা জানানো হয়েছিল।ওকে কিছু প্রশ্ন করা হয় ।কিন্তু ওর উত্তরে সন্তুষ্ট হয়ে আমি ওর ইস্তাফাপত্র গ্রহন করেছি।” তিনি আরো বলেন আজ(সোমবার) থেকে শুভেন্দু আর বিধানসভার সদস্য নন।এই পদের কথা জানিয়ে চিঠি দেওয়া হবে নির্বাচন কমিশনকে।”

আরও পড়ুন :  কৃষক বিলের বিরুদ্ধে সারা ভারত জুড়ে ব‍্যাপক প্রভাব, দেখুন এক নজরে

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন

এই মুহূর্তে

- Advertisment -
- Advertisment -

ভাইরাল