নিউজ

করােনা টিকা করন নিয়ে কী কী সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে, নির্দেশিকা জারি কেন্দ্রের

নিউজ ডেস্কঃ শনিবার থেকে সমগ্র দেশে শুরু হতে চলেছে করােনা টিকাকরণ।কেন্দ্রিয় সরকারের তরফ থেকে কোভিশিল্ড ও কোভ্যাকসিন ইতিমধ্যেই পাঠানো হয়েছে সব রাজ্যকে। কারা এই টিকা নিতে পারবেন আর কারা নয়,সেই বিষয়ে কয়েকটি নির্দেশিকা প্রকাশ করল কেন্দ্র। রাজ্যগুলোকেও সেই নির্দেশিকা পাঠানাে হয়েছে।নির্দেশিকা অনুযায়ী —

What precautions should be taken with regard to vaccination, according to the guidelines issued by the Center

# ১৮ বছরের বেশি বয়সিদের এই ভ্যাকসিন দেওয়া হবে।

# কোভিড ভ্যাকসিন ও অন্যান্য টিকার মাঝে ন্যূনতম ১৪ দিনের ব্যবধান রাখতে হবে।

#টিকার প্রথম ডােজ যে সংস্থার হবে, দ্বিতীয় ডােজটিও ওই সংস্থারই নিতে হবে।

# গর্ভবতী ও সদ্য প্রসূতি মায়েরা যাঁরা সন্তানকে স্তন্যপান করাচ্ছেন, তাঁদেরকে এই ভ্যাকসিন দেওয়া যাবে না।

# করােনায় (Covid 19) আক্রান্ত কোনও ব্যক্তি নেগেটিভ হওয়ার ৪ থেকে ৮ সপ্তাহ পর ভ্যাকসিন নিতে পারবেন।

# যাঁদের অ্যালার্জির প্রবণতা আছে, তাঁদেরকেও এই ভ্যাকসিন দেওয়া যাবে না।

#যে করোনা রােগীদের প্লাজমা থেরাপি দেওয়া হয়েছে, তাঁরা সুস্থ হওয়ার ৪-৮ সপ্তাহ বাদে টিকা নিতে পারবেন।

নির্দেশিকা অনুযায়ী, যে সব ব্যক্তি করােনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন, যারা কঠিন রােগে আক্রান্ত তা সে হৃদরোগ, স্নায়ু, বা ফুসফুসজনিত রোগ এমন রােগীদের টিকা দেওয়া যেতে পারে। দেশের ৩ হাজার ৬টি কেন্দ্রে প্রায় ৩ লক্ষ স্বাস্থ্যকর্মীকে এই পর্বে টিকা দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে সরকার।প্রতি সেন্টারে প্রত্যেকদিন ১০০ জনকে ভ্যাকসিন দেওয়া হবে। টিকাকরণের প্রক্রিয়া সফলভাবে এগােলে এরপরের লক্ষ্য ৫০০০টি কেন্দ্রে ভ্যাকসিন দেওয়া।প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মােদী শনিবার দেশের বৃহত্তম টিকাকরণ কর্মসূচির সূচনা করবেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button