নিউজ

ভারতসহ গোটা ইসলামিক বিশ্ব যাকে নিয়ে উত্তাল, সেই নূপুর শর্মা এখন কোথায় রয়েছেন?

ইসলাম ধর্ম ও হজরত মহম্মদকে নিয়ে বিজেপি মুখপাত্র নুপুর শর্মার বিতর্কিত মন্তব্যের জেরে সমগ্র দেশ উত্তাল হয়ে রয়েছে।সেই মন্তব্যের বিরুদ্ধে দেশজুড়ে শুরু হয়েছে বিক্ষোভ। সেই আঁচ এসে পড়েছে বাংলার বিভিন্ন জেলাতেও। প্রতিদিন রাস্তা অবরোধ, গাড়ি ভাঙচুর সহ একাধিক ঘটনা ঘটছে।কারণ একটাই, মহম্মদকে নিয়ে নূপুর শর্মার বিতর্কিত মন্তব্য।

গত কয়েকদিন ধরে একদম সংবাদমাধ্যমগুলির শিরোনামে রয়েছেন এই নূপুর শর্মা। তার প্রসঙ্গ নিয়ে বিরোধীদের লাগাতার আক্রমণ সহ্য করতে হয়েছে বিজেপিকে। চাপের মুখে পড়ে তাকে দল থেকে বরখাস্ত করেছে বিজেপি৷নবী মহম্মদকে নিয়ে নূপুর শর্মার করা মন্তব্যের পর থেকে শুধুমাত্র ভারতবর্ষের ইসলাম ধর্মাবলম্বীদের মধ্যেই নয়, অনেক মুসলিম প্রধান দেশে অসন্তোষ চলছে।

নূপুর শর্মার বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।ইতিমধ্যেই এ নিয়ে মুম্বই পুলিশও বহিষ্কৃত বিজেপি নেত্রী নূপুর শর্মাকে তলব করেছে।এই নূপুর শর্মার ‘বিস্ফোরক’ মন্তব্যের জেরে চাপের মুখে বিজেপি সরকার।কিন্তু যার জন্য বিজেপি তথা সারা দেশ চাপের মুখে, সেই নুপুর শর্মা কোথায় রয়েছেন।

আরও পড়ুন :  সবার প্রিয় ফল কাশ্মীরি লাল আপেল এবার ফলবে ‘অরণ্য সুন্দরী’ পুরুলিয়ার বান্দোয়ানে

বিজেপি থেকে বরখাস্ত হওয়ার পরও নূপুর শর্মা শুধুমাত্র বাড়িতে বসে নেই । অনেকের সঙ্গে দেখা-সাক্ষাত চালিয়ে যাচ্ছেন তিনি।তাকে কড়া নিরাপত্তা বেষ্টনীর মধ্যে রাখা হয়েছে। ইতিমধ্যেই ভারতসহ বিশ্বের বিভিন্ন ইসলাম প্রধান দেশ থেকে তাকে খুন করার হুমকি পর্যন্ত দেওয়া হয়েছে। মূলত সেই জন্যই তাকে কড়া নিরাপত্তায় মুড়ে রাখা হয়েছে।

এমনকি নূপুর শর্মা সংবাদমাধ্যমগুলির কাছে অনুরোধ করে বলেছেন যেন তার ঠিকানা প্রকাশ না করা হয়। এর ফলে তার পরিবারের নিরাপত্তা বিঘ্নিত হতে পারে। তিনি নিজে টুইট করে এই অনুরোধ করেছেন । ২৭শে মে তিনি টুইট করে বলেন যে তিনি, তার বোন, তার মা এবং তার বাবা প্রত্যেককেই হত্যা, ধর্ষণ এবং শিরশ্ছেদের হুমকি দেওয়া হচ্ছে।তাই তিনি ও তার পরিবার আপাতত কোথায় রয়েছেন সেই ঠিকানা লুকিয়ে রাখতে চাইছেন।

পুলিশের কাছে নূপুর শর্মা এ নিয়ে অভিযোগও জানিয়েছেন।এ বিষয়ে দিল্লি পুলিশ জানিয়েছে যে নুপুরের অভিযোগের ভিত্তিতে একটি এফআইআর অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। পুলিশ কর্তৃক তাকে সর্বোচ্চ পর্যায়ের নিরাপত্তা দেওয়া হচ্ছে। ঘটনার জল এতদূর গরিয়ে গিয়েছিল যে তার এই মন্তব্য ছড়িয়ে পড়ার পর আল-কায়েদা জঙ্গি গোষ্ঠীর একটি চিঠিও ভাইরাল হয়েছে যেখানে নবীর অবমাননা৷ প্রতিশোধ নিতে ভারতের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ শহরগুলিতে সন্ত্রাস মূলক কার্যকলাপ চালানোর হুমকি দেওয়া ছিল।নুপুর শর্মার এই বিতর্কিত একটি মন্তব্যেই গোটা দেশের পরিস্থিতি উত্তাল হয়ে রয়েছে।

Related Articles

Back to top button