Advertisement

সত্যি একেই বলে ভাগ্য! রাতারাতি আনারুলের ভাগ্যের চাকা ঘুরে গেলো, লটারি কেটে রাতারাতি কোটিপতি

রাতারাতি ভাগ্যের চাকা ঘুরলো আনারুলের পড়ুন নদিয়ার আনারুলের কোটিপতি হওয়ার গল্প

লটারি কেটে রাতারাতি কোটিপতি হওয়ার স্বপ্ন অনেকেই দেখেন। কিন্তু এই লটারির নেশায় কেউ হয় কোটিপতি, আবার সর্বসান্ত হয়। কথায় আছে ভাগ্য সহায় হলেই নাকি লটারি জিতে কোটিপতি হওয়া যায়। লটারি কেটে পুরস্কার জেতা নাকি ভাগ্যের উপর নির্ভর করে। তাই নিজের ভাগ্য পরিক্ষা করতে অনেকেই লটারি কাটেন।

লটারি টিকিট কেটে রাতারাতি বড়লোক হওয়ার স্বপ্ন কেনা দেখেন।লটারি জেতার আশা সবাই করে। কিন্তু পুরস্কার জেতে মাত্র একজন। কিন্তু কারো কারো ক্ষেত্রে আবার এই লটারি কাটা নেশায় পরিণত হয়। এরফলে অনেকেই নিজের সর্বস্ব হারিয়েও ফেলেন। সম্প্রতি এরকমই এক ঘটনা বাংলায় ঘটেছে। যে Lottery কেটে ভিটেমাটি সব হারিয়েছে।

সেই লটারি কাটতে কাটতেই এমন নেশায় পরিণত হয়েছিল যার কারণে ভিটে মাটি যা কিছু ছিল হারিয়েছিলেন। নিজের বসতবাড়ি পর্যন্ত বিক্রি করে তার ঠাঁই হয়েছিল এক আত্মীয়র বাড়িতে। এমনকি নিজের বসত বাড়ি টুকুও বাদ যায়নি। সাথে আত্মীয় পরিজনের সাথে সম্পর্কও খারাপ হয়েছে। এমনকি তার নিজের স্ত্রীও পাশে ছিলেন না। নিজের সর্বস্ব খুইয়ে মামার বাড়িতে আশ্রয় নিয়েছিলেন।

গলা পর্যন্ত দেনার দায় মেটাতে শেষে কাজ খুঁজতে কেরালাতে গিয়েছিলেন। সম্প্রতি কাজ সেরে বাড়ি ফেরার সময় তিনি আন্দুলিয়া বাস স্ট্যান্ডের কাছে একটি লটারি টিকিট সেন্টার থেকে ১৫০০ টাকার টিকিট কাটেন। পরে তিনি জানতে পারেন তিনি কোটি টাকা জিতেছেন। এরপর সময় নষ্ট না করে তিনি নিরাপত্তার জন্যে নিকটবর্তী পুলিশ স্টেশনের দ্বারস্থ হন।

নদিয়ার চাপড়ার বড় আন্দুলিয়ার যুবক আনারুলের ছোটবেলা থেকেই কোটিপতি হওয়ার স্বপ্ন ছিল। সেই কারণে বিগত বেশ কয়েক বছর ধরেই তিনি লটারি কাটতেন। লটারি কাটা তার কাছে নেশায় পরিণত হয়ে পড়েছিল। অবশেষে তিনি লটারি কেটে কোটি টাকা জিতলেন।

আনারুল জানান তিনি আর এরপর থেকে লটারি টিকিট কাটবেন না। এই টাকা দিয়ে তিনি একটি স্থায়ী ব্যবসা শুরু করবেন এবং তার মা, স্ত্রী ও সন্তানদের নিয়ে সুখে শান্তিতে বসবাস করবেন। তিনি এও বলেন যে এভাবে নিজের সর্বস্ব বাজি রেখে Lottery কাটা উচিত নয়। তাই লটারি কাটার সময় কখনও নিজের সঞ্চয় বিক্রি করে দেবেন না। তবে আমি এই লটারি কেটেই সর্বস্ব হারিয়েছিলাম, আবার এই লটারি দিয়েই সব কিছু ফেরত পেলাম।

সত্যি একেই বলে ভাগ্য! রাতারাতি আনারুলের ভাগ্যের চাকা ঘুরে গেলো। যে লটারি টিকিট কেটে তিনি সর্বসান্ত হয়েছিলেন,সেই লটারির টিকিটই যে তার ভাগ্য পরিবর্তন করবে তা তিনি ভাবতেই পারেননি। অবশেষে লটারি কেটে রাতারাতি কোটিপতি হওয়ার স্বপ্ন তার পূরণ হল।

Related Articles

Back to top button