নতুন বছরে বদলে গেছে UPI লেনদেনের অনেক নিয়ম! জানুন নতুন নিয়ম।

Advertisement

এসেছে নতুন বছর অর্থাৎ ২০২৪ সাল। নতুন বছর আসার সাথে সাথে কিছু নিয়মেরও পরিবর্তন হয়েছে। বর্তমান যুগে বেশিরভাগ মানুষ টাকা লেনদেনের জন্য ব্যাংকে গিয়ে লাইন দিতে পছন্দ করে না। প্রায় সকলেই টাকা লেনদেনের জন্য ব্যবহার করেন গুগল পে (Googlepay), ফোনপে (Phonepe) কে। আপনিও যদি এইগুলি ব্যবহার করেন তবে জেনে নিন এই বিষয়ে কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য।

WhatsApp Group Join Now
Telegram Group Join Now

দিনে দিনে অনলাইন পেমেন্টের গ্রাহকের সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে এবার গ্রাহকদের স্বার্থে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া ইউ পি আই এর নিয়মে পরিবর্তন এনেছে। একসঙ্গে পাঠাতে পারবেন আরও টাকা NPCI UPI লেনদেনের ক্ষেত্রে দৈনিক সীমা নির্ধারণ করেছেন ১ লক্ষ টাকা। শিক্ষা এবং স্বাস্থ্য পরিষেবার ক্ষেত্রে পেমেন্টের জন্য রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া UPI লেনদেনের সীমা বাড়িয়ে ৫ লক্ষ টাকা করেছে। আগে শিক্ষা এবং স্বাস্থ্য ক্ষেত্রে ইউপিআই পেমেন্ট এর সর্বোচ্চ লেনদেন ছিল ১ লক্ষ টাকা।

নিষ্ক্রিয় ইউপিআই বা UPI বন্ধ হবে।

Advertisement

ন্যাশনাল পেমেন্টস কর্পোরেশন অফ ইন্ডিয়া (NPCI) ইউপিআই আইডির অপব্যবহার রুখতে এক বিশেষ উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। Paytm, Google Pay, PhonePe এবং ব্যাঙ্কগুলির মতো পেমেন্ট অ্যাপগুলিকে UPI আইডি এবং নম্বরগুলি নিষ্ক্রিয় করতে বলেছিল। এবার যে ইউপিআই আইডিগুলি এক বছরের বেশি সময় ধরে নিষ্ক্রিয় রয়েছে সেগুলিকে বন্ধ করে দেওয়া হবে। ইউপিআই আইডির সাথে লিংক করা মোবাইল নম্বরগুলি যেগুলি বারো মাসের বেশি সময় ধরে লেনদেনের জন্য ব্যবহার করা হয়নি। সেগুলিকেও বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে NPCI।

Advertisement

অনলাইন ওয়ালেটের মাধ্যমে নির্দিষ্ট মার্চেন্ট UPI লেনদেনের জন্য ১.১ শতাংশ ইন্টারচেঞ্জ ফি নির্ধারণ করা হয়েছে। অনলাইন পেমেন্টের জালিয়াতি কমানোর জন্য কখনো লেনদেন করেনি এমন ব্যবহারকারীদের জন্য প্রথম পেমেন্টের ক্ষেত্রে ২০০০ টাকার বেশি টাকা লেনদেনের জন্য চার ঘণ্টা সময়সীমা নির্ধারণ করা হয়েছে।

সমগ্র ভারতবর্ষের জন্য রিজার্ভ ব্যাংক ইউপিআই এটিএম চালু করতে চলেছে। এই এটিএমগুলির সাহায্যে ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থেকে সরাসরি নগদ টাকা তোলার জন্য একটি QR কোড স্ক্যান করতে হবে। ২০২৩ সালের নভেম্বর মাসে UPI লেনদেনের মূল্য ১৭.৪ ট্রিলিয়ন রুপিতে পৌঁছে গিয়েছিল। অক্টোবর মাসে তার মূল্য ছিল ১৭.১৬ ট্রিলিয়ন। দেখা যাচ্ছে অক্টোবর এবং নভেম্বরের মাসের মধ্যে এই মূল্যের তফাৎ হয়েছে ১.৪ শতাংশ। একই সময়ে, লেনদেনের সংখ্যা কমেছে ১.৫ শতাংশ। ওই সময় লেনদেনের সংখ্যা দাঁড়িয়েছিল ১১.২৪ বিলিয়ন। এক মাস আগে তা হয়েছে ১১.৪১ বিলিয়ন।

Advertisement
JoinJoin