Lokprasar Prakalpa – রাজ্যের নতুন প্রকল্প, আবেদন করলে মাসে ১০০০ টাকা পাবেন! কীভাবে আবেদন করবেন জানুন।

Advertisement

Lokprasar Prakalpa – শিক্ষা ও সংস্কৃতির অন্যতম প্রাণকেন্দ্র হল বাংলা। বাংলার লোকশিল্প দেশের গণ্ডি ছাড়িয়ে পৃথিবীর দরবারে বিপুলভাবে প্রভাব বিস্তার করেছে। এই বাংলার বুকেই বাউল, ঝুমুর, ভাটিয়ালি, গম্ভিরা সহ অজস্র বিখ্যাত লোকশিল্পের জন্ম হয়েছে। বাংলার নানা প্রত্যন্ত অঞ্চলে বিভিন্ন লোকশিল্পী ছড়িয়ে রয়েছেন। এদের বেশির ভাগই বংশ পরম্পরায় শিল্পটুকুই আঁকড়ে ধরে রয়েছেন।

WhatsApp Group Join Now
Telegram Group Join Now
Advertisement

শুধু নেশার তাগিদে অনেকেই বংশ-পরম্পরায় এখনও লোকশিল্পের চর্চা (Lokprasar Prakalpa) করে বাংলার সংস্কৃতিকে সমৃদ্ধ করে চলেছেন। তবে বর্তমানে যুগ বদলেছে, এখন বেঁচে থাকতে গেলে মানুষের অর্থের দরকার হয়। অর্থ ছাড়া শিল্প বেচে যে ভাত জোটানো সম্ভব তারা বুঝতে পেরেছে। লোকশিল্পীরা প্রচুর অর্থের মালিক এমন দৃশ্য বোধহয় কোথাওই দেখা যায় না। কারন আর্থিক অনটন তাদের নিত্য দিনের সঙ্গী। তবুও ভালবাসার টানে নিজেদের সুরের ছন্দে আজও নতুন তার লয় বুনে চলেছেন।

Advertisement

আরও পড়ুন – PM Sauchalay Yojana – আবেদন করুন প্রধানমন্ত্রী শৌচালয় যোজনায় এবং পেয়ে যান ১২,০০০ টাকা।

তাই শিল্পীদের অর্থের অভাব যাতে মেটে সেজন্য শিল্পীদের জন্য সরকার মাসিক ভাতা (Lokprasar Prakalpa) চালু করেছে। শিল্পীদের নিরাপত্তার খাতিরে রাজ্য সরকার ‘লোকপ্রসার প্রকল্প’ (Lokprasar Prakalpa) চালু করেছেন।লোকশিল্পের সঙ্গে নানাভাবে যুক্ত মানুষদের আর্থ-সামাজিক অবস্থার উন্নতি ঘটানোও প্রকল্পটির উদ্দেশ্য। এই প্রকল্পের আওতায় লোকশিল্পীদের পরিচয় প্রদান করা হচ্ছে। এছাড়াও এই প্রকল্পের মাধ্যমে শিল্পীদের জন্য অতিরিক্ত উপার্জনের সুযোগও থাকছে।

‘লোকপ্রসার প্রকল্প’ (Lokprasar Prakalpa) কি?

রাজ্য সরকার রাজ্যের নানা প্রান্তে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা লোকশিল্পীদের সম্মান ও পরিচিতি দিতে ‘লোকপ্রসার প্রকল্প’ (Lokprasar Prakalpa) চালু করেছেন। এই প্রকল্পের মাধ্যমে লোকশিল্পীদের প্রতিমাসে ১০০০ টাকা করে ভাতা দেওয়া হয়, এর আওতায় লোকশিল্পীদের যেমন মাসিক ভাতা দেওয়া হবে, তেমনই অন্যান্য প্রকল্পের নানা সচেতনতামূলক প্রচারেও তাঁদের কাজে লাগানো হয়।

লোকপ্রসার প্রকল্পের (Lokprasar Prakalpa) জন্য কারা আবেদন করতে পারবেন?

  • ১) কেবলমাত্র লোকশিল্পীরাই এই প্রকল্পে আবেদন করতে পারবেন।
  • ২) এছাড়াও যাদের লোকশিল্পের প্রসারে উল্লেখযোগ্য অবদান আছে তারাও লোকপ্রসার প্রকল্পে নাম নথিভুক্ত করতে পারবেন।
  • ৩) আবেদনকারীকে পশ্চিমবঙ্গের স্থায়ী বাসিন্দা হতে হবে।
  • ৪) শিল্পীর বয়স ১৮-৬০ বছরের মধ্যে হতে হবে।
  • ৫)আবেদনকারীর বৈধ ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থাকতে হবে।

লোকপ্রসার প্রকল্পের (Lokprasar Prakalpa) আবেদন প্রক্রিয়া।

  • ১) প্রথমে https://wb.gov.in/government-schemes-details-lokprasar.aspx – এই লিঙ্কে ক্লিক – করুন।
  • ২) সেখানে Contact Us গিয়ে নিজের জেলা নির্বাচিত করুন।
  • ৩) সেখানেই দেখতে পাবেন আপনার জেলার কোথায় লোকপ্রসার প্রকল্পে নাম নথিভুক্তকরণের কাজ চলছে।
  • ৪) এবার আধার কার্ড, রেশন কার্ড, ব্যাঙ্কের পাসবই, জাতিগত শংসাপত্র, পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ছবি নিয়ে সেই শিবিরে যেতে হবে।
  • ৫) সেখানে সরাসরি ফর্ম ফিলাপ করে প্রয়োজনীয় নথি সহ জমা দিলেই আবেদন সম্পন্ন হয়ে যাবে।

বর্তমানে প্রায় ১ লক্ষ ৯৪ হাজার লোকশিল্পী লোকপ্রসার প্রকল্পের (Lokprasar Prakalpa) অধীনে মাসিক ১০০০ টাকা ভাতা পাচ্ছেন। এছাড়াও বিভিন্ন সরকারি প্রকল্পের প্রচার অভিযানে অংশগ্রহণ করছেন। লোকশিল্প ও লোকশিল্পীদের সংরক্ষণ না করলে বাংলা সংস্কৃতির নিজস্ব বৈশিষ্ট্যগুলো হারিয়ে যাবে। তাই বাঙালির নিজের স্বার্থেই রাজ্য সরকার লোকশিল্পীদের পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন।

আরও পড়ুন – Free Ration Scheme – সামান্য ভুলে, ৩০ জুন পর থেকে ফ্রি রেশন বন্ধ, রেশন পেতে তাড়াতাড়ি এই কাজটি করুন।

Advertisement