Primary TET 2022 – ২০২২-এর টেট পাশদের নিয়োগ সমন্ধে গুরুত্বপূর্ণ আপডেট দিলেন পর্ষদ সভাপতি!

Advertisement

Primary TET 2022 – দীর্ঘ পাঁচ বছর পর গত বছর অর্থাৎ ২০২২ সালের সেপ্টেম্বর মাসে রাজ্যে নতুন করে শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছিল। গত ১১ ডিসেম্বর ২০২২ সালে শিক্ষক নিয়োগের এই প্রাথমিকের টেট পরীক্ষা হয়। প্রায় সাড়ে ১১ হাজার শুন্যপদের জন্য মোট ৬ লাখ ২০ হাজার পরীক্ষার্থী পরিক্ষা দিয়েছিলেন। যার মধ্যে দেড় লাখের বেশি পরীক্ষার্থী টেট পাশ (Primary TET 2022) করেন। টেট পরীক্ষার ফল প্রকাশের ৬ মাস পেরিয়ে গেলেও এখনও শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়ার শুরু করেনি পর্ষদ।

WhatsApp Group Join Now
Telegram Group Join Now

অথচ পর্ষদ সভাপতি গৌতম পাল বলেছিলেন প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের (Primary Teacher Recruitment) প্রক্রিয়া দ্রুত শুরু করা হবে। কিন্তু পর্ষদ সভাপতির কথা অনুযায়ী এখনও সেই নিয়োগ করা হয়নি। তাই স্বাভাবিকভাবেই চাকরি প্রার্থীরা প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের উপর ক্ষুব্ধ হয়ে রয়েছেন। তাই দ্রুত নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরুর দাবিতে চাকরি প্রার্থীরা প্রতিবাদ মিছিল শুরু করেছেন। দ্রুত নিয়োগ না হওয়ায় ২০২২-এর টেট পাশ (Primary TET 2022) চাকরি প্রার্থীরা এবার পথে নেমে আন্দোলন শুরু করলেন।

Primary TET 2022 Appointment Update.

Advertisement

চাকরি প্রার্থীদের দাবি প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন সেই অনুযায়ী দ্রুত নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হোক। চাকরি প্রার্থীদের এই প্রতিবাদ মিছিলের সুফলও মিলেছে। পর্ষদ সভাপতি গৌতম পাল ২০২২ এর প্রাথমিক টেট পাশ (Primary TET 2022) চাকরি প্রার্থীদের মধ্যে ৪ জনের সঙ্গে দেখা করেছেন বলে জানা গিয়েছে। আন্দোলনকারী চাকরিপ্রার্থীরা পর্ষদ সভাপতির কাছে দ্রুত নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু করার দাবি জানিয়েছেন।

Advertisement

আরও পড়ুন – Bank Account – ব্যাঙ্কের অ্যাকাউন্টে ন্যূনতম ব্যালেন্স কত রাখতে হয় জানেনে কি ? না জানলে এক্ষুনি জেনে নিন।

পর্ষদ সভাপতি চাকরিপ্রার্থীদের সেই দাবি মেনে নিয়ে জানিয়েছেন দ্রুত নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু করা হবে। এই চলতি শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া মিটে গেলে ২০২৩ সালের শেষের দিকে আবার নতুন করে শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি জারি করবে বলে জানিয়েছেন প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ। পর্ষদ সভাপতি আগেও দ্রুত নিয়োগের আশ্বাস দিয়েছিলেন, কিন্তু এখনও নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু করা হয়নি। পর্ষদ সভাপতির ফের দ্রুত নিয়োগের কথা ও কাজের মধ্যে কতটা মিল থাকে এখন সেটাই দেখার।

অন্যদিকে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগে বিএড (B.Ed) পাস চাকরিপ্রার্থীদের স্বপ্ন ভাঙল। কারণ সুপ্রিম কোর্ট নির্দেশ দিয়েছে এবার থেকে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়ায় কোনও বিএড পাস চাকরিপ্রার্থী অংশ নিতে পারবে না। প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়ায় বিএড পাশরা অংশ নিতে পারবে কিনা তা নিয়ে অনেকদিন ধরেই মামলা চলছিল। শুক্রবার ১১ অগস্ট সুপ্রিম কোর্ট সেই মামলার রায় দিল।

সুপ্রিম কোর্টের এই রায়ের ফলে প্রাথমিক শিক্ষকতার দরজা B.Ed পাশ প্রার্থীদের জন্য বন্ধ হয়ে গেল। ২০২২ সালের টেট (Primary TET 2022) পরীক্ষায় বহু বিএড পাশ চাকরীপ্রার্থী পাশ করেছিলেন, কিন্তু সুপ্রিম কোর্টের ডিভিশন বেঞ্চের এই রায়ের ফলে তাঁরা আর কেউ প্রাথমিক শিক্ষক হতে পারবেন না। সুপ্রিম কোর্টের এই রায়ের ফলে একদিকে যেমন বিএড চাকরিপ্রার্থীদের স্বপ্ন ভাঙল, তেমনি অন্যদিকে ডিএলএড পাস চাকরিপ্রার্থীদের শিক্ষক হওয়ার সুযোগ অনেকটাই বেড়ে গেল।

আরও পড়ুন – Free 4g Smartphone – ফ্রিতে 4G মোবাইল দিচ্ছে রিলায়েন্স Jio, এই দুর্দান্ত সুযোগ হাতছাড়া করবেন না।

Advertisement
JoinJoin