এই Govt Scheme – এ মাত্র ১৬৪ টাকা করে বিনিয়োগেই কোটিপতি হতে পারেন। কীভাবে বিস্তারিত জেনে নিন।

Govt Scheme মাত্র ১৬৪ টাকা করে বিনিয়োগ করুন আজই।

Govt Scheme – ভবিষ্যত সুরক্ষিত করার জন্য সঞ্চয় অত্যন্ত জরুরী। যাতে অবসর জীবন স্বাচ্ছন্দ্যে কাটানো যায়। তাই সঞ্চয়ের জন্য প্রত্যেকেই ভালো সুদের রিটার্ন, উচ্চ জনপ্রিয়তা ও কম ঝুঁকি সম্পূর্ণ বিনিয়োগ স্কিমের খোঁজ করেন। সবাই চায় এমন জায়গায় বিনিয়োগ করতে যেখানে সুরক্ষিত ভাবে ভালো রিটার্ন পাওয়া সম্ভব।

আর তাছাড়া মধ্যবিত্ত ভারতীয়রা কম বিনিয়োগে উচ্চ হারে রিটার্ন পেতে আগ্রহী থাকে। আপনিও ভালো রিটার্ন পাওয়া যায় এমন কোন স্কিমের খোঁজ করছেন কি? তাহলে আমরা আপনার জন্য দারুন একটি স্কিম নিয়ে এসেছি।এই দীর্ঘমেয়াদি স্কিমে বিনিয়োগ করলে সহজেই কোটি টাকার তহবিল গড়ে ফেলা সম্ভব। এই স্কিমটি কি? কীভাবে বিনিয়োগ করবেন সবিস্তারে জেনে নিতে প্রতিবেদনটি পড়ুন।

Advertisement

পাবলিক প্রভিডেন্ট ফান্ড বা PPF হল বিনিয়োগকারীদের জন্য একটি নিরাপদ এবং ভালো বিনিয়োগ স্কিম। এতে যেমন ভালো রিটার্ন পাওয়া যায় তেমন বিনিয়োগে ট্যাক্স সুবিধাও পাওয়া যায়।
পাবলিক প্রভিডেন্ট ফান্ড (PPF) কী?

Lakshmir Bhandar – লক্ষীর ভান্ডার নিয়ে নয়া ঘোষনা! নবান্ন কি নয়া নির্দেশ দিল জানুন

এটি একটি পুরোপুরি সরকারি স্কিম যেটি আপনি পোস্ট অফিস বা ব্যাঙ্কে পেতে পারেন। ন্যাশনাল সেভিংস অর্গানাইজেশন এই সেভিংস স্কিম ১৯৬৮ সালে শুরু করেন।
এই PPF-এর মেয়াদকাল ও সুদের পরিমাণ?

PPF বা পাবলিক প্রভিডেন্ট ফান্ডের মেয়াদকাল ১৫ বছরের হয়। তবে মেয়াদকাল শেষ হওয়ার পরও চাইলে ৫ বছর করে এই মেয়াদ বাড়াতে পারেন। মেয়াদ শেষে জমা অর্থের ওপর বর্তমানে পিপিএফ-এ ৭.১ শতাংশ সুদ দেওয়া হচ্ছে। তবে এই সুদের হার সরকারি নিয়ম অনুসারে বাড়তে বা কমতে পারে।

পাবলিক প্রভিডেন্ট ফান্ডের কি কি সুবিধা রয়েছে?
১) এই Govt Scheme ঝুঁকিমুক্ত রিটার্ন।
২)এই Govt Scheme বা PPF চক্রবৃদ্ধি সুদের হার।
৩) এই Govt Scheme এ আয়কর আইন, ১৯৬১ এর ৮০সি-এর অধীনে আয়কর ছাড়।
৪)১৫ বছরের জন্য বিনিয়োগ করতে পারবেন চাইলে এই মেয়াদ ৫ বছর করে করে বাড়াত পারেন।
৫) পিপিএফ ব্যালেন্সের উপর ভিত্তি করে ঋণ পাওয়া সম্ভব।

এই Govt Scheme বা স্কিমে কত টাকা বিনিয়োগ করলে মেয়াদপূর্তিতে কত পাবেন?
আপনি যদি প্রতিদিন ১৬৪ টাকা করে জমাচ্ছেন তাহলে ১৫ বছরে আপনার মোট গচ্ছিত অর্থ ৯ লাখ টাকা হবে। এই গচ্ছিত অর্থের ওপর আপনি ৭.১ শতাংশ চক্রবৃদ্ধি হারে বার্ষিক সুদ সাথে চক্রবৃদ্ধির সুবিধা পাবেন। অর্থাৎ ১৫ বছর পর আপনার অ্যাকাউন্টে সুদ বাবদ ৭.২৭ লক্ষ টাকা জমা পড়বে।

অর্থাৎ ১৫ বছর পর আপনার অ্যাকাউন্টে মোট ১৬.২৭ লক্ষ টাকা থাকবে। যদি আরও ৫ বছর বাড়ান আপনার বিনিয়োগের পরিমাণ ২২.২০ লক্ষ টাকা হবে। সুদ বাবদ আপনি ৮৩.২৭ লক্ষ টাকা পাবেন, তাহলে আপনার অ্যাকাউন্টে মোট ১,০৫ কোটি টাকা হবে।

এই Govt Scheme বা সরকার পিপিএফ এ বিনিয়োগের গ্যারান্টি দেয়। তাই বিনিয়োগকারীদের জন্য ঝুঁকি নগণ্য। ভালো রিটার্ন পেতে হলে এই স্কিমে বিনিয়োগ করতেই পারেন। পাবলিক প্রভিডেন্ট ফান্ড এমন একটি প্রকল্প যেখানে দীর্ঘমেয়াদে বিনিয়োগ করা হলে সহজেই কোটি টাকার তহবিল গড়ে ফেলা সম্ভব।

এই প্রকল্পে মাত্র ৫৫-২০০ টাকা বিনিয়োগ করলে প্রতি মাসে ৩০০০ টাকা করে পেনশন পাবেন।

Advertisement

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *