টেকনোলজি

Uber (উবের) থেকে কেবলমাত্র ক্যাব বুক নয়, সেইসাথে ট্রেনের টিকিট, বিমানের টিকিট এবং বাস বুকিংয়ের অপশনও পাবেন ব্যবহারকারীরা

uber new booking facility that help users book plane trains and buses tickets

নিউজ ডেস্কঃ রাইড-হেইলিং সংস্থা উবের বড় ঘোষণা করেছে যে এখন তারা কেবলমাত্র ক্যাব নয়,সেই সাথে ব্যবহারকারীরা ট্রেনের টিকিট, বিমানের টিকিট এবং বাস বুকিং করতে পারবেন।তবে Uber শুধুমাত্র যুক্তরাজ্যে (UK) এই ফিচারটি রোলআউট করার লক্ষ্যে কাজ চালিয়ে যাচ্ছে।যদিও ফিচারটি বর্তমানে বিকাশের অধীনে রয়েছে, তবে এটি রোলআউট হওয়া মাত্রই যুক্তরাজ্যের বাসিন্দারা এই অ্যাপ থেকে ট্রেনের টিকিট, প্লেনের টিকিট, এবং বাস বুকিং করতে পারবেন।যুক্তরাজ্য ছাড়া অন্য কোনো দেশে এই ফিচারটি টেস্ট করা হবে কিনা, সে সম্পর্কেও উবেরের পক্ষ থেকে বিশেষ কিছু জানা যায়নি।

যুক্তরাজ্য তথা উত্তর ও পূর্ব ইউরোপের জন্য উবেরের রিজিওনাল জেনারেল ম্যানেজার জেমি হেইউড জানিয়েছেন যে এতদিন পর্যন্ত ব্যবহারকারীরা উবের অ্যাপে রাইড, বাইক, বোট সার্ভিস এবং স্কুটার বুক করতে সক্ষম হয়েছেন।তাই এবার নিজের গণ্ডিকে আরও প্রসারিত করতে এই গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ নিচ্ছে তারা। এই অ্যাপের মাধ্যমে ট্রেন,বাস বুকিং ছাড়াও এই বছরের শেষের দিকে ফ্লাইট এবং ভবিষ্যতে হোটেল বুকিংয়ের সুবিধা প্রদান করার পরিকল্পনাও করছে সংস্থাটি।
ইউজারদের যাতে অত্যন্ত সাবলীল ডোর টু-ডোর ট্রাভেল এক্সপেরিয়েন্স প্রদান করা যায়, তার জন্য জোরকদমে কাজ চালিয়ে যাচ্ছে সংস্থাটি।

আরও পড়ুন :  জুতার রিয়্যাক্ট চালু করলো ফেসবুক, কিভাবে জুতার রিয়েক্ট চালু করবেন দেখেনিন

উবের ক্যাবের ক্ষেত্রে যেমন নিজেই ট্রাভেল সার্ভিস অফার করে,কিন্তু এক্ষেত্রে তারা তেমনটা করবে না। সংস্থাটি থার্ড-পার্টি বুকিং এজেন্সিগুলির সাথে হাতে হাত মিলিয়ে কাজ করবে ইউজারদের এই সার্ভিস প্রদানের জন্য।যদিও উবের নিশ্চিতভাবে প্রকাশ করেনি যে কোন কোন পার্টনারের সাথে হাত মিলিয়ে কাজ করবে। তবে আশা করা যাচ্ছে Booking.com এবং Expedia-র মতো শীর্ষস্থানীয় এগ্রিগেটরদের সাথে গাঁটছড়া বাঁধতে পারে।সেইসাথে জানা যাচ্ছে বুকিংয়ের জন্য একটি সার্ভিস ফি-ও নেবে সংস্থাটি।

উবেরের সিইও দারা খসরোশাহি সান ফ্রান্সিসকোতে টেকক্রাঞ্চ ডিসরাপ্ট কনফারেন্সে আগেই বলেছিলেন তিনি চান উবের যেন ধীরে ধীরে পরিবহন জগতের ‘অ্যামাজন’ হয়ে উঠুক।এই সম্মেলনেই তিনি ইঙ্গিত দিয়েছিলেন
উবের শুধুমাত্র ক্যাব সার্ভিসেই আটকে থাকতে চায় না।এই সংস্থাটি ইতিমধ্যেই ড্রোন এবং হেলিকপ্টার সার্ভিসের সাথে তারা চালু করেছে মালবাহী শিপিং সার্ভিস, ড্রাইভারলেস কারসহ আরও অনেক পরিষেবা।আর ভবিষ্যতে পরিবহন জগতে তারা যে বিশ্বব্যাপী ইউজারদের প্রথম পছন্দ হয়ে উঠতে চলেছে সেটা নিয়ে কোন সন্দেহ নেই।

Related Articles

Back to top button