Primary TET scam 2014: ২০১৪ টেট পরীক্ষা না দিয়েই চাকরি করছেন, এমন ৩৫০ জন শিক্ষকের তালিকা শীঘ্রই সামনে আনা হবে, দাবি আইনজীবীর

Advertisement

Primary TET scam 2014: ২০১৪ সালে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে চাকরির আশায় প্রায় ২৩ লক্ষ পরীক্ষার্থী টেট পরীক্ষা দিয়েছিলেন। এরপরে প্রায় এক বছর পরে ২০১৬ সালের সেপ্টেম্বর মাসে মেধাতালিকা (Merit List) প্রকাশ করা হয়। ফের একবছর পরে ২০১৭ সালের ডিসেম্বরে দ্বিতীয় মেধা তালিকা প্রকাশ করা হয় সংসদের তরফে।প্রাইমারি শিক্ষক পদে ৪২,০০০ জনকে নিযুক্ত করা হয়।

WhatsApp Group Join Now
Telegram Group Join Now

বর্তমানে ২০১৪ সালের প্রাইমারি শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি মামলা নিয়ে তোলপাড় গোটা রাজ্য।অনেক চাকরি প্রার্থীদের মতে দ্বিতীয় প্যানেল তৈরীর উদ্দেশ্যই ছিল অসৎ(Primary TET scam 2014) । অযোগ্য প্রার্থীদের নাম মেধা তালিকার অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। এই তালিকা থেকেই ২৬৯ জনকে চাকরি থেকে বরখাস্ত করার নির্দেশ দিয়েছেন বিচারপতি।এমনকি টেট ঘিরে দুর্নীতির অভিযোগের তদন্তও যায় সিবিআইয়ের হাতে।সিবিআই ২০১৪ সালে টেট পাশ শিক্ষকদের দশ নথি জমা করার নির্দেশ দিয়েছেন।

Advertisement

২০১৪ সালের প্রাথমিক টেট পরীক্ষা নিয়ে বিতর্কের শেষ নেই।সে বছরের নিয়োগ প্রক্রিয়া হাজারো মামলার গেরোয় জড়িয়ে রয়েছে।একের পর এক চাঞ্চল্যকর তথ্য উঠে আসছে। (Primary TET scam 2014) ২০১৪ সালের টেট নিয়োগে এই ৪২,০০০ জনের মধ্যে প্রায় ১৭,০০০ শিক্ষকই বেনিয়মের মাধ্যমে চাকরি পেয়েছেন। এই ২৬৯ জনের এই তালিকা তো হিমশৈলের চূড়ামাত্র; এর পেছনে বহু বাঘাযতীন লুকিয়ে রয়েছে।২০১৪ সালের টেট পাশ করে প্রাথমিক শিক্ষক পদে চাকুরিরত শিক্ষকদের এই মুহুর্তে চিন্তার অবকাশ নেই।

Advertisement

Primary TET scam 2014

প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ নিয়ে রাজ্যের অস্বস্থি আরও বেড়েছে। নিয়োগ দুর্নীতিতে নাম জড়িয়েছে মুকুল রায়ের পুত্র শুভ্রাংশু রায়ের, বর্তমান মন্ত্রী অখিল গিরি, বিধায়ক অসীম মাঝির। অভিযোগ, তৃণমূল কংগ্রেসে থাকাকালীন বিধায়ক শুভ্রাংশুর লেটারহেডে প্রাথমিকে শিক্ষক হিসেবে নিয়োগ (Primary TET scam 2014) করার জন্য সুপারিশ করা হয়েছিল। যাঁদের নাম সুপারিশ করা হয়, তাঁরা কেউই ২০১৪ সালের টেট পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে পারেননি।

নিজের দাবির সমর্থনে মঙ্গলবার কলকাতা হাইকোর্টে প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চে সেইসব সুপারিশের চিঠি জমা দেন মামলবাকারীর আইনজীবী তরুণজ্যোতি তিওয়ারি।প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগের দুর্নীতির অভিযোগ তুলে ফেসবুকে তাৎপর্যপূর্ণ পোস্ট করেছেন বিজেপি নেতা তথা আইনজীবী তরুণ জ্যোতি তেওয়ারী।

তিনি নিজের ফেসবুক পেজে তিনি লিখেছেন, “শুধুমাত্র তিনটি চিঠি আজকে পেশ করা হয়েছে TET দুর্নীতি নিয়ে। এখনো পর্যন্ত প্রায় ৩৫০ (Primary TET scam 2014) নাম আমার কাছে আছে যারা পরীক্ষায় পাস করেনি এবং পরীক্ষা দেয়নি কিন্তু চাকরি করছে। বাকিটা ক্রমশ প্রকাশ্য’।বিস্ফোরক এই ফেসবুক পোস্টের নিচে হ্যাশ ট্যাগ দিয়ে প্রাথমিক টেট ২০১৪ এর কথা উল্লেখ করা হয়েছে। এর থেকে অনুমান করা যায় যে ৩৫০ জনের বিষয়টি ২০১৪ সালের প্রাথমিক টেটের সঙ্গেই সম্পর্কিত রয়েছে।

Advertisement