Summer vacation – রাজ্যজুড়ে স্কুলে বাতিল হচ্ছে শনিবারের ছুটি স্কুল খুলতেই নয়া নির্দেশ।

Advertisement

Summer vacation – গরমের ছুটি শেষ! একটানা লম্বা গরমের ছুটির পর অবশেষে বৃহস্পতিবার থেকে রাজ্য জুড়ে স্কুল খুলছে। দীর্ঘদিন স্কুল বন্ধ থাকার কারনে ছাত্রছাত্রীদের পড়াশোনার ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। এই দীর্ঘ সময় স্কুল বন্ধ থাকায় নির্দিষ্ট সিলেবাস শেষ করা সম্ভব হবে না এখন সেটাই চিন্তার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। স্কুল বন্ধ থাকার কারনে ছাত্রছাত্রী পড়াশোনায় যে ঘাটতি হল, এই ঘাটতি পূরণের জন্য শিক্ষকদের বাড়তি ক্লাস নেয়ার কথা বলা হয়েছে।

WhatsApp Group Join Now
Telegram Group Join Now

কিন্তু বাড়তি ক্লাস নিলেও কি এতদিনের ঘাটতি মেটানো যাবে কিনা তা নিয়ে সন্দেহ থেকেই যাচ্ছে। নির্ধারিত সূচি অনুযায়ী ২৪ মে থেকে স্কুলগুলিতে ছুটি পড়ার (Summer vacation) কথা ছিল। কিন্তু প্রবল দাবদহের জেরেই ছুটির দিনক্ষণ এগিয়ে আনার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল সরকার। এবারে বৈশাখের শুরু থেকেই গরমের দাপট ক্রমেই বেড়েছে। তাই পড়ুয়াদের অস্বস্তির কথা মাথায় রেখেই স্কুলগুলিতে ২ মে থেকে গ্রীষ্ম কালীন ছুটি (Summer vacation) শুরু হয়ে যায়।

আরও পড়ুন – WB job vacancy – বেকারদের জন্য সুখবর! রাজ্যে ১ লক্ষ ২৫ হাজার কর্মী নিয়োগ ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর।

Advertisement

পুরো মে মাস বন্ধ ছিল স্কুল। রাজ্যে তাপমাত্রার পারদ ঊর্ধ্বমুখী থাকার কারনে গরমের ছুটি (Summer vacation) আরো বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেয় রাজ্য সরকার। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেন ১৪ জুন পর্যন্ত গরমের ছুটি চলবে। লম্বা গরমের ছুটির পর ১৫ জুন বৃহস্পতিবার থেকেই স্কুল খুলছে। কিন্তু এই গরমের ছুটির জেরে ছাত্রছাত্রীদের পঠন পাঠনে অনেকটাই ক্ষতি হয়ে গিয়েছে বলে মনে করছে স্কুল শিক্ষা দফতর।

Advertisement

এবার তাই সেই ক্ষতির সামাল দিতে একাধিক গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ নিতে চলেছে মধ্যশিক্ষা পর্ষদ।
এই গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ নেওয়ার টার্গেট হল সিলেবাস সম্পূর্ণ করা। রাজ্যের বিভিন্ন স্কুল ইতিমধ্যেই বিশেষ নির্দেশিকা পাঠানো হয়েছে।

গরমের ছুটি (Summer vacation) শেষ হতেই মধ্যশিক্ষা পর্ষদ নির্দেশিকা যা জানিয়েছে?

দীর্ঘ গরমের ছুটিতে (Summer vacation) ক্লাসরুমে যে পঠন-পাঠনের ক্ষতি হয়েছে, তা পূরণ করতে অতিরিক্ত ক্লাস করানোর নির্দেশিকা আগেই দিয়েছিল মধ্যশিক্ষা পর্ষদ। এবার সেই নির্দেশিকাকে সামনে রেখে বিভিন্ন জেলার বিদ্যালয় পরিদর্শকরা ফের চিঠি পাঠিয়ে স্কুলগুলিকে জানাচ্ছেন যে স্কুল খুললেই যাতে সিলেবাস শেষ করাতে ছাত্র- ছাত্রীদের অতিরিক্ত ক্লাস করানো হয়।

চলতি বছরের মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা এগিয়ে আনা হয়েছে। তাই ছাত্রছাত্রীদের সিলেবাস সময় মাফিক শেষ করা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এই কারনে স্কুল শিক্ষা দফতরের তরফে বিশেষ গুরুত্ব দেওয়ার কথা বলা হয়েছে।এতদিন পর যেহেতু স্কুল খুলছে, তার জন্য বিভিন্ন মশা বাহিত রোগ অর্থাৎ ডেন্সি, ম্যালেরিয়া আটকাতে স্কুলের চারপাশ যাতে পরিষ্কার করা হয়, তা নিয়েও বিশেষ নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। বিশেষত স্কুল চত্বর পরিষ্কার করার পাশাপাশি স্কুল সংলগ্ন এলাকাতেও যাতে কোনও ময়লা জমে না থাকে এবং জল জমায় যাতে কোনও খারাপ পরিস্থিতি তৈরি না হয়, তা নিয়েও বিশেষ নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

এর পাশাপাশি নির্দেশিকায় এও বলা হয়েছে ছাত্রছাত্রীদের স্বার্থে স্কুল কর্তৃপক্ষ যা সিদ্ধান্ত নেবেন তা সংশ্লিষ্ট শিক্ষক শিক্ষিকাদের মানতে হবে। সম্প্রতি স্কুলে নিয়ম-শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে বিশেষ কিছু গাইডলাইন জারি করেছে মধ্যশিক্ষা পর্ষদ। প্রধান শিক্ষকের অনুমতি ছাড়া শিক্ষক শিক্ষিকারা স্কুল থেকে বেরতে পারবেন না। এমনকি টিফিন টাইমেও স্কুল থেকে বেরনো যাবে না।

মধ্যশিক্ষা পর্ষদের নির্দেশ পেয়ে ইতিমধ্যেই একাধিক স্কুল শনিবারও পুরোদমে স্কুল চালু রাখার কথা ভাবতে শুরু করেছে। রাজ্যের সরকারি ও সরকারি নিয়ন্ত্রিত স্কুলগুলিতে শনিবার সাধারণত হাফ ছুটি দিয়ে দেওয়া হয়। কিন্তু এবার একাধিক স্কুল শনিবার পুরো স্কুল করানোর কথা ভাবছেন। তবে দীর্ঘ দিন স্কুল বন্ধ থাকার কারনে স্কুলগুলির পক্ষে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে সিলেবাস শেষ করা সম্ভব হবে কিনা এখন সেটাই দেখার বিষয়।

আরও পড়ুন – Madhyamik syllabus update – বদলে যাচ্ছে মাধ্যমিকের সিলেবাস! কি কি পরিবর্তন হতে পারে দেখুন।

Advertisement
JoinJoin