নিউজ

Atal Pension Yojana rule change: করদাতাদের সঞ্চয়ে ধাক্কা! অক্টোবর থেকে অটল পেনশন যোজনায় (APY) বড়সড় পরিবর্তন

সরকারের তরফে জারি করা এই নির্দেশিকায় জানানো হয়েছে আগামী ১লা অক্টোবর থেকে কার্যকর করা হবে।

Atal Pension Yojana rule change: কেন্দ্র সরকার অটল পেনশন যোজনা (Atal Pension Yojana ) তে বড়সড় রদবদল করল। ইতিমধ্যেই অর্থমন্ত্রকের তরফে একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে।অর্থমন্ত্রকের জারি করা বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী এখন থেকে আয়করদাতারা আর এই স্কিমে (APY) আবেদন করতে পারবেন না। সরকারের তরফে জারি করা এই নির্দেশিকায় জানানো হয়েছে আগামী ১লা অক্টোবর থেকে কার্যকর করা হবে।

অটল পেনশন যোজনাকে (Atal Pension Yojana) দেশের সামাজিক নিরাপত্তার ক্ষেত্রে একটি গুরুত্বপূর্ণ স্কিম হিসাবে মনে করা হয়।অটল পেনশন যোজনা ২০১৫ সালে শুরু করেছিল মোদি সরকার।সেই সময় অসংগঠিত ক্ষেত্রের সঙ্গে জড়িত শ্রমিকদের কথা ভেবে তা শুরু করেছিল মোদী সরকার। কিন্তু এরপর ১৮ থেকে ৪০ বছর বয়সী যে কোনও ভারতীয় নাগরিককে এতে বিনিয়োগ করার অনুমতি দেওয়া হয়। যদিও এই অবস্থায় ফের একবার স্কিমে রদবদল করল কেন্দ্রীয় সরকার।

আরও পড়ুন :  মাধ্যমিক জুনে, শেষ হলে উচ্চ মাধ্যমিক, জানুন কবে

নতুন নিয়ম কি?

অর্থমন্ত্রকের তরফে বিজ্ঞপ্তি দিয়ে জানানো হয়েছে ১ অক্টোবর থেকে কোনও আয়কর প্রদানকারী ব্যক্তি APY স্কিমে যোগদান করতে পারবে না। যদি ১ অক্টোবরের পর কোনও আয়কর প্রদানকারী ব্যক্তি এই স্কিমের আওতায় অ্যাকাউন্ট খোলেন, তবে তাঁর APY অ্যাকাউন্ট বন্ধ হয়ে যাবে। কোনও ব্যক্তি ইচ্ছা করে ১ অক্টোবরের পরে এই অ্যাকাউন্ট খোলেন, তবে বিষয়টিতে নজর দিতে কেন্দ্রের তরফে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। সরকার নির্দিষ্ট সময় অন্তর এই অ্যাকাউন্টগুলির রিভিউ করবে বলে জানানো হয়েছে।

APY স্কিমটি মূলত তাঁদের আর্থিক সুবিধা প্রদান করে, যাঁরা অবসর গ্রহণের পরে তাঁদের আয় এবং আর্থ-সামাজিক কল্যাণ সম্পর্কে অনিশ্চিত। APY, একটি সরকারি গ্যারান্টিযুক্ত স্কিম’। কর ছাড়ের সুবিধাও প্রদান করে। যাঁরা এই প্রকল্পে টাকা রাখছেন, তাঁরা আয়করের 80CCC ধারা এবং 80CCD-র অধীনে অতিরিক্ত কর ছাড়ের সুবিধা পাবেন।

এই স্কিমে তালিকা ভুক্তির সময় কমপক্ষে ১৮ বছর হতে হবে। স্কিমের জন্য আবেদনের সর্বোচ্চ বয়স হল ৪০ বছর। অটল পেনশন যোজনার অধীনে (Atal Pension Yojana) যদি কোনও ১৮ বছর বয়সী ব্যক্তি এই স্কিমে যোগদান করেন, এবং পরবর্তী ৪২ বছরের জন্য প্রতি মাসে ২১০ টাকা করে জমা করা শুরু করেন (৬০ বছর বয়সী না হওয়া পর্যন্ত), সেক্ষেত্রে তিনি পরে ৫,০০০ টাকা করে মাসিক পেনশন পাবেন। APY-তে রিটার্নের অঙ্ক, তা বেছে নেওয়ার সময়েই পূর্ব-নির্ধারিত থাকে। ফলে এটি একটি নির্ভরযোগ্য স্কিম হিসাবে বিবেচিত হয়।

এই স্কিমে ৬০ বছর বয়সের পরে পেনশন পাওয়া যায়। এর জন্য আপনাকে কতটা বিনিয়োগ করতে হবে, সেটা আপনার বয়সের উপর নির্ভর করে। APY-তে ন্যূনতম মাসিক ১,০০০ টাকা এবং সর্বোচ্চ ৫,০০০ টাকা প্রতি মাসে পেনশন পাওয়ার বিধান রয়েছে। যত তাড়াতাড়ি আপনি এতে বিনিয়োগ শুরু করবেন তত বেশি লাভবান হবেন।

পেনশন ফান্ড রেগুলেটর (PF RDA) দ্বারা প্রকাশিত তথ্য অনুসারে এই স্কিমে ৪ কোটিরও বেশি গ্রাহক যুক্ত হয়েছেন। PFRDA বলেছে যে ২০২১-২২ আর্থিক বছরে প্রায় এক কোটি মানুষ এই অ্যাকাউন্ট খুলেছে। এর সাথে ৩১ মার্চ ২০২২ পর্যন্ত স্কিমের গ্রাহকের সংখ্যা বেড়ে ৪.০১ কোটি হয়েছে।

Related Articles

Back to top button