Advertisement
নিউজ

Duare ration scheme: খুশির খবর! দুয়ারে রেশন প্ৰকল্প নিয়ে, কি জানাল কলকাতা হাইকোর্ট

রেশন তুলতে যেতে হবে না ন্যায্য মূল্যের দোকানে।এমনকি ওই অনুষ্ঠানে রেশন ডিলারদের উৎসাহিত করতে একগুচ্ছ সিদ্ধান্তের কথাও ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী।

Duare ration scheme: পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নেতাজি ইনডোর স্টেডিয়ামে এক অনুষ্ঠানে এসে ‘দুয়ারে রেশন’ প্রকল্পের উদ্বোধন করেন। তিনি ঘোষণা করেন এই প্রকল্পের মাধ্যমে বাড়ি বসে রেশন পাবেন সাধারণ মানুষ। রেশন তুলতে যেতে হবে না ন্যায্য মূল্যের দোকানে।এমনকি ওই অনুষ্ঠানে রেশন ডিলারদের উৎসাহিত করতে একগুচ্ছ সিদ্ধান্তের কথাও ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী।

Advertisement

রাজ্যের প্রায় ২১ হাজার রেশন ডিলারকে প্রকল্পের প্রয়োজনে গাড়ি (Duare ration scheme) কেনার জন্য ১ লক্ষ টাকা করে ভর্তুকি দেবার কথাও তিনি জানান।মুখ্যমন্ত্রীর কথা মত নভেম্বর মাস থেকে চালু হয় ‘দুয়ারে রেশন’ প্রকল্প।এই নিয়ে নির্দেশিকাও জারি করেছিল খাদ্য দফতর। তাতে বলা হয়েছিল এই প্রকল্পে গ্রাহকের বাড়িতে রেশন সামগ্রী পৌঁছে দেওয়া হবে। পাহাড়, সুন্দরবন, জঙ্গলমহলের কিছু দূরবর্তী জায়গায় কীভাবে রেশন পৌঁছোনো হবে, তা আলাদাভাবে পরিকল্পনা করতে হবে।

Advertisement

ছোট ছোট এলাকা ভাগ করে, আগাম তারিখ ও সময় জানিয়ে রেশন ডিলারদের গ্রাহকদের বাড়িতে সামগ্রী পৌঁছে দিতে হবে।বৃষ্টি বা কোনও দুর্যোগের ক্ষেত্রে আইসিডিএস সেন্টার, স্কুলের বারান্দা, অথবা কোনও সরকারি প্রাঙ্গনে রেশন সামগ্রী সাময়িকভাবে রাখা যেতে পারে।এই রেশন সামগ্রী পৌঁছে দেওয়ার জন্য আলাদা করে কোনও টাকা নেওয়া যাবে না। ওজন করে রেশন সামগ্রী দিতে হবে (Duare ration scheme)।

আরও পড়ুন :  Bank holidays 2022 June: জুন মাসে ৮ দিন বন্ধ ব্যাঙ্ক, কোন কোন দিন বন্ধ থাকছে ব্যাঙ্ক? জেনে নিন বিস্তারিত
Advertisement

দুয়ারে রেশন নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী বলেন যাঁরা রেশনটা মানুষের হাতে তুলে দেবেন সেটাই একটা সেবার কাজ। যাঁরা মানুষের দরজায় রেশন পৌঁছে দেবেন, সেটাও একটা সেবার কাজ।তিনি বলেন আগে রেশনে ফুড কর্পোরেশনের পচা, মোটা চাল আসত। আজ আমরা সেই পরিস্থিতির পরিবর্তন করেছি।এই দুয়ারে রেশনে (Duare ration scheme) প্রতি মাসের নির্দিষ্ট দিনে রাজ্যের ১০ কোটিরও বেশি মানুষ বাড়িতে বসে রেশন পাবেন। আমরা ১০ কোটির বেশি মানুষরে বিনামূল্যে রেশন দিচ্ছি, যা দেশের আর কোথাও দেওয়া হয় না।

Advertisement

রাজ্যের সব রেশনেই এই দুয়ারে রেশন প্রকল্প চালু (Duare ration scheme) করার কথা ছিল।কিন্তু রেশন ডিলারদের একাংশ দুয়ারে রেশন পৌঁছে দেওয়ার পরিষেবা নিয়ে বেঁকে বসেন। তাঁদের দাবি এই প্রকল্প অবাস্তব।তারা বলেন প্রতিটি রেশন দোকানে ২ জন করে কর্মী রয়েছেন। এত কম সংখ্যাক কর্মী নিয়ে ‘দুয়ারে রেশন’ প্রকল্প বাস্তবায়িত করা প্রায় অসম্ভব।এত মানুষকে বাড়ি গিয়ে রেশন পৌঁছে দেওয়া অবাস্তব।

রেশন ডিলাররা বলেন আইন অনুসারে গ্রাহককে রেশন দোকানে এসেই পণ্য সংগ্রহ করতে হবে অন্য কোথাও পণ্য হস্তান্তর করা বেআইনি। এই সব যুক্তি দিয়ে রেশন ডিলাররা (Duare ration scheme) একজোট হয়ে এই দুয়ারে রেশনের বিরোধিতা করে কলকাতা হাইকোর্টে মামলা করেছিলেন।এমনকি কিছুদিন আগে খবর পাওয়া গিয়েছিলো দুয়ারে রেশন বন্ধ হয়ে যাবে।

দুয়ারে রেশনের বিরোধিতা করে ডিলাররা কলকাতা হাইকোর্টে যে মামলা করেছিল, এবার সেই দুয়ারে রেশন মামলার রায় দিল কলকাতা হাইকোর্ট।দুয়ারে রেশন ব্যবস্থার পক্ষেই রায় দিল কলকাতা হাইকোর্ট।’দুয়ারে রেশনের মাধ্যমে রেশন সামগ্রী গ্রাহকদের বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দেবার যে ব্যবস্থা করেছে রাজ্য সরকার তা চলবে।

সোমবার কলকাতা হাইকোর্ট দুয়ারে রেশনের পক্ষে রায় দিয়ে জানায়, ‘দুয়ারে রেশন বেআইনি নয়’ (Duare ration scheme)। তাই আপাতত দুয়ারে রেশন বন্ধ হবার কোনো রকম সংকেত নেই। গত সময়ে যে রকম দুয়ারে রেশন চলছিল, ভবিষ্যতেও সেইরূপভাবেই দুয়ারে রেশন চলবে।অর্থাৎ দুয়ারে রেশন প্রকল্প বন্ধ হচ্ছে না।

Related Articles

Back to top button