Teachers Salary – শিক্ষকদের ৫০০০ টাকা করে দেওয়ার নির্দেশ বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়ের।

Advertisement

Teachers Salary – শিল্পপতি আদানি গোষ্ঠীর কাছে স্কুল বেচে দেওয়ার জন্য নির্দেশ দিলেন কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়। রাজ্যে নিয়োগ দুর্নীতি সহ বিভিন্ন মামলায় একের পর এক নিত্যনতুন নির্দেশ এবং পর্যবেক্ষণ দিয়েছেন বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়। যা নিয়ে সমাজের বিভিন্ন স্তরে চর্চা হয়েছে, বিতর্কও হয়েছে। কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতিদের একাংশের রায় নিয়ে সমাজজীবনে বিভিন্ন ধরনের প্রশ্ন দেখা দিয়েছে।

WhatsApp Group Join Now
Telegram Group Join Now

আর এর মধ্যেই একটি মামলায় বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায় বলেন, স্কুল চালাতে না পারলে আদানির কাছে বেচে দিন।
ইস্টার্ন কোলফিল্ডের অধীনে ঝাড়খণ্ডের ৯টি এবং পশ্চিমবঙ্গের ৭টি বিদ্যালয় (Eastern Coalfield School) রয়েছে। সেই বিদ্যালয়ের কর্মরত শিক্ষকেরা বহুদিন ধরে বেতন (Teachers Salary) পাচ্ছেন না বলে অভিযোগ জানিয়ে কলকাতা হাইকোর্টে বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের এজলাসে মামলা দায়ের করেন।

Advertisement

এই মামলার শুনানিতেই বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায় বলেন, দেশে স্বাধীনতার অমৃত মহোৎসব পালন করা হচ্ছে। আর শিক্ষকদের বেতন (Teachers Salary) বন্ধ রয়েছে। এটা কোনো সভ্য দেশে চলতে পারে না। যদি স্কুল চালাতে না পারেন, তাহলে আদানির কাছে স্কুল বেচে দিন। মামলার শুনানিতে বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায় ইস্টার্ন কোল্ডফিল্ডের উদ্দেশ্যে বলেন, অবিলম্বে হাইকোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেলের কাছে ৪ লাখ ৮০ হাজার টাকা জমা (4 Lakh 80 Thousand Rupees Fine to Eastern Coalfield Authority) দিতে হবে।

Advertisement

আরও পড়ুন – Civic volunteer Recruitment – রাজ্যে ফের সিভিক ভলেন্টিয়ার নিয়োগ করা হবে ! যোগ্যতা কি লাগবে জানুন।

ওই টাকা থেকে বেতন না পাওয়া শিক্ষকদের প্রতি মাসের ৫০০০ টাকার হিসেবে ৩ মাস ১৫০০০ টাকা করে দেওয়া হবে। যদি ইস্টার্ন কোলফিল্ডের ওই স্কুলগুলি আর চালাতে না পারেন, তাহলে এই টাকা দেওয়ার পরে স্কুলগুলি বন্ধ করে দিন। বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়ের এই নির্দেশ শুনে ইস্টার্ন কোল্ডফিল্ডের আইনজীবী বলেন, ওই শিক্ষকেরা তাদের বিদ্যালয়ের স্থায়ী শিক্ষক নন। তাদের টাকা দিতে গেলে সমস্যা তৈরি হবে।

আইনজীবীর মন্তব্যের জবাবে বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায় বলেন, সমস্যা হলেও কিছু করার নেই। শিক্ষকদের বেতন (Teachers Salary) বন্ধ করার ব্যাপারে আপনারা বেপরোয়া। আর এরপরেই ইস্টার্ন কোলফিল্ডের আইনজীবীর উদ্দেশ্যে সিবিআই তদন্তের হুঁশিয়ারিও জ্ঞান বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়। ইস্টার্ন কোলফিল্ডের অধীনে ওই স্কুলগুলিতে শিক্ষকেরা দীর্ঘদিন ধরেই বেতন পাচ্ছে না বললে অভিযোগ দায়ের করেন।

সেই পরিপ্রেক্ষিতে কলকাতা হাইকোর্টে মামলা হয়। সেই মামলাতেই বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায় অবিলম্বে নির্দিষ্ট পরিমাণ টাকা জমা দেওয়ার নির্দেশ দেন। যাতে শিক্ষকদের তিন মাস অন্তত 5000 টাকা করে বেতন (Teachers Salary) দেওয়া যায়। পাশাপাশি, শিক্ষকদের চোখের জল ফেলবেন না বলে মন্তব্য করেন বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়। আর যেভাবে অধিকাংশ মামলাতেই সিবিআই তদন্ত দিয়ে থাকেন, ঠিক সেভাবেই Eastern Coalfield-এর মামলাতেও CBI তদন্তের যেন হুঁশিয়ারি দিলেন তিনি। এটা কেন বললেন সেটা এখনো পর্যন্ত স্পষ্ট নয়।

আরও পড়ুন – School holiday – পুজোর আগেই ফের ৭ দিন বন্ধ স্কুল, ছুটির তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে দেখে নিন।

Advertisement
JoinJoin