নতুন চমক ফ্লিপকার্ট ও অ্যামাজনের! ইলেক্ট্রনিক্স প্রোডাক্টের Flipkart-Amazon Return Policy-তে এলো বড়ো পরিবর্তন

Advertisement

Flipkart-Amazon Return Policy-তে বড়ো আপডেট, জেনে নিন বিস্তারিত ভাবে। অনলাইন কেনাকাটাতে অভ্যস্ত প্রায় সকলেই, বর্তমান সময়ে প্রত্যেক মানুষের হাতে রয়েছে স্মার্টফোন এবং তাতে রয়েছে দুটি অনলাইন অ্যাপ। একটি ফ্লিপকার্ট (Flipkart) তো অন্যটি অ্যামাজন (Amazon)। এই দুটি অ্যাপ ব্যবহার করেন না এমন মানুষের খোঁজ পাওয়া দুষ্কর। অনেকে তো আবার জীবনের সমস্ত প্রয়োজনীয় জিনিসের জন্য নির্ভর করেন এই অনলাইন সংস্থাগুলির ওপর।

WhatsApp Group Join Now
Telegram Group Join Now
Advertisement

প্রতিনিয়ত তাই আমাদের শহরের ঘুরে বেড়ায় অনলাইন অর্ডারের ডেলিভারি বয়। মোবাইল ফোনে শুধুমাত্র একটি ছোট্ট ক্লিক, আপনার প্রয়োজনীয় জিনিস হাজির হয়ে যাচ্ছে আপনার দরজায়। বেশ কিছুদিন আগেই ফ্লিপকার্ট এবং অ্যামাজন এই দুটি ই-কমার্স সংস্থা তাদের Flipkart-Amazon Return Policy নিয়মের কিছু রদবদল ঘটিয়েছে। যে সমস্ত মানুষ অনলাইন কেনাকাটার উপর নির্ভরশীল তাদেরকে আরও বিশেষ সতর্ক থাকতে হবে তা না হলেই বিপদ ঘটে যেতে পারে যে কোন সময়। কী সেই বিপদ আসুন জানবো সবিস্তারে আজকের এই প্রতিবেদনে।

Advertisement

আরও পড়ুন – Amazon দেবে বার্ষিক 40,000 টাকা করে স্কলারশিপ আজই আবেদন করুন। Amazon Future Engineer Scholarship 2022.

জানুন Flipkart-Amazon Return Policy কি?

এতদিন পর্যন্ত আমরা অনলাইন মারফত যে সমস্ত প্রোডাক্ট কিনে থাকি তা বদল করবার জন্য আমাদের হাতে সময় থাকে মাত্র সাত দিন (7 Days Return Policy)। এই সাত দিন প্রোডাক্ট ব্যবহার করে যে কোন রকম কোন কিছু অসুবিধা থাকলে ওই অ্যাপে গিয়ে বদল করবার অপশনে ক্লিক করলেই ডেলিভারি বয় এসে সেই প্রোডাক্ট নিতে সময় মত হাজির হয়ে যেতেন এবং বিনিময় নতুন প্রোডাক্ট দিয়ে যেতেন। এবার থেকে এই সমস্ত নিয়মে বেশ কিছু রদবদল ঘটেছে।

জিনিসপত্র কেনার পর এখন থেকে আর অ্যাপের মাধ্যমে রিপ্লেসমেন্ট (Flipkart-Amazon Replacement) করা সম্ভব নয়, তার জন্য ওই প্রোডাক্টের কাস্টমার কেয়ারে ফোন করে সমস্ত তথ্য জানাতে হবে। সমস্ত তথ্য যাচাই করে দেখা হবে এবং সমস্যার সমাধান করার কথা ভাবা হবে। এবার থেকে আর ফ্লিপকার্ট কিংবা অ্যামাজন অ্যাপের মাধ্যমে রিপ্লেসমেন্ট করা সম্ভব নয়।

এবার থেকে অবশ্যই ডেলিভারি বয় এসে আপনার প্রোডাক্ট ডেলিভার করলে অত্যন্ত সতর্কের সাথে সমস্ত প্রোডাক্টটি দেখে নেবেন, তবেই নিজের ওটিপিটি ডেলিভারি বয়ের সাথে শেয়ার করবেন। অন্যথায় প্রোডাক্টের মধ্যে কোন ডিফেক্ট থাকলে এবং আপনি দেখে না নিলে পরবর্তীকালে এই সমস্ত কিছুর দায় আপনাকেই বহন করতে হবে। সমস্ত প্রোডাক্টের ওপর এই নিয়ম লাগু করা হয়নি।

আরও পড়ুন – Flipkart careers : ফ্লিপকার্টে প্রচুর পরিমাণে কর্মী নিয়োগ চলছে, কোথায় আবেদন করবেন জানুন।

Flipkart-Amazon Return Policy-তে কেন এলো এমন পরিবর্তন?

একমাত্র ইলেকট্রনিক্স প্রোডাক্টের ওপরই এই নিয়ম লাগু করা হয়েছে, যেমন- ল্যাপটপ, এসি, মোবাইল প্রভৃতি। নিয়মের পরিবর্তন শুনে ঘুম উড়েছে অনেক গ্রাহকেরই। সকলের মনেই একটি প্রশ্ন কেন এই নিয়মে পরিবর্তন ঘটল? সংস্থাগুলির তরফ থেকে জানানো হয়েছে বিভিন্ন সময়ে প্রোডাক্টের পার্টস মিসিং থাকে। প্রোডাক্ট রিটার্নের (Flipkart-Amazon Return Policy) সাথে যে প্রোডাক্ট রিসিভ হয়েছিল সেই প্রোডাক্টের আমূল পরিবর্তন ঘটে, যার ফলে কোম্পানিকে অনেক ক্ষতির সম্মুখীন হতে হয়েছে। তাই নিজেদের ক্ষতির সম্ভাবনা এড়াতে এহেন সিদ্ধান্ত। আশা করা যায় আগামী দিনে অত্যন্ত সতর্কতা অবলম্বন করে আমরা প্রত্যেকেই অনলাইন কেনাকাটা করব।

Advertisement