Reopen School Notice – স্কুল খোলা নিয়ে সমস্ত স্কুলকে নির্দেশিকা মধ্যশিক্ষা পর্ষদের।

Advertisement

Reopen School Notice – এপ্রিল মাস থেকেই রাজ্য জুড়ে প্রবল তাপপ্রবাহ চলছে। এপ্রিল মাসের শেষের দিক থেকে রাজ্যে গরমের দাবদাহ এতটাই বেড়ে যায় যে রাজ্য সরকার তড়িখড়ি সমস্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে গরমের ছুটি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। শিক্ষা দফতরের তরফে স্কুল ছুটি নিয়ে বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়। প্রবল দাবদাহের জেরেই ২ মে থেকে গরমের ছুটি শুরু হয়ে গিয়েছিল। যদিও বাংলার সরকারি স্কুলগুলিতে ২৪ মে থেকে গরমের ছুটি পড়ার কথা ছিল। কিন্তু তীব্র গরমের কারণে ২৪ মে-র পরিবর্তে ২ মে এই ছুটি এগিয়ে নিয়ে আসা হয়। এই ছুটির কথা ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

WhatsApp Group Join Now
Telegram Group Join Now

পর্ষদের ছুটির তালিকা অনুযায়ী গরমের ছুটি শেষ (Reopen School Notice) হওয়ার কথা ছিল ৪ জুন। কিন্তু রাজ্যের গরমের পরিস্থিতি দিনকে দিন বেড়েই চলছে। এর ফলে আরও দশ দিন গরমের ছুটি বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেয় রাজ্য সরকার। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ছুটি বাড়ানো হচ্ছে ঘোষণা করেন। মুখ্যমন্ত্রী জানান স্কুলে গরমের ছুটি আরও ১০ দিন বাড়ানো হচ্ছে। অর্থাৎ আগামী ১৪ জুন পর্যন্ত রাজ্যের স্কুলগুলিতে গরমের ছুটি চলবে। এরপর ১৫ জুন রাজ্যের প্রাথমিক, মাধ্যমিক এবং উচ্চমাধ্যমিক স্কুল খুলবে।

আরও পড়ুন – Bank Rules update – ব্যাঙ্কে নিয়ম বদলাতে চলেছে! বিপদে পড়ার আগে জেনে নিন।

Advertisement

প্রায় দেড় মাস গরমের ছুটির পর স্কুল খুলবে। সেই মর্মে মধ্যশিক্ষা পর্ষদ নির্দেশিকা (Reopen School Notice) জারি করে দিয়েছে। এবার জেলা শিক্ষা আধিকারিকেরা (ডিআই) প্রধান শিক্ষকদের এই সংক্রান্ত বিষয়ে নির্দেশ পাঠানো শুরু করেছেন। সেই নির্দেশে মূলত দুটি বিষয়ের উপর ফোকাস করা হয়েছে। একটি হল পরিচ্ছন্নতা আর অপরটি হল মিড ডে মিল। নির্দেশিকায় বলা হয়েছে স্কুল খোলার আগে স্কুলের পরিচ্ছন্নতার দিকে বিশেষ ভাবে নজর দিতে হবে। আর কি কি বিশেষ নির্দেশ দিল শিক্ষা দফতর জেনে নিন।

Advertisement

মধ্যশিক্ষা পর্ষদের নির্দেশিকায় (Reopen School Notice) যা উল্লেখ করা হয়েছে।

মধ্যশিক্ষা পর্ষদের নির্দেশিকায় (Reopen School Notice) জানানো হয়েছে স্কুলের পরিবেশ পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখতে হবে। এর পাশাপাশি স্কুল খোলার সঙ্গে সঙ্গেই যাতে মিড ডে মিল পরিষেবা শুরু করা যায় সেই বিষয়েও প্রস্তুতি রাখতে বলা হয়েছে। শুক্রবার ডিআই-দের মারফত রাজ্যের প্রায় সব সরকারি এবং সরকার অনুমোদিত স্কুলের প্রধান শিক্ষকদের কাছে নির্দেশিকা পৌঁছে গিয়েছে। আগামী বৃহস্পতিবার থেকেই যেহেতু স্কুল খোলার সিদ্ধান্ত হয়েছে। তাই আগামী সপ্তাহের প্রথম থেকেই বিভিন্ন স্কুলে জোরকদমে স্কুল খোলার প্রস্তুতি শুরু হয়ে যাবে।

পশ্চিমবঙ্গ তৃণমূল প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির কার্যকরী সভাপতি পলাশ সাধুখাঁ শিক্ষা দফতরের এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন স্কুল খোলার সঙ্গে সঙ্গেই যাতে ছাত্রছাত্রীরা মিড ডে মিল পায় সরকার সেই ব্যবস্থাই করেছেন। মুখ্যমন্ত্রী স্কুলে মিড ডে মিল দেওয়ার পাশাপাশি, বই, খাতা, পোশাক, জুতো সব কিছু দেওয়ার বন্দোবস্ত করেছেন। কোনও কিছু থেকেই যাতে ছাত্রছাত্রীরা বঞ্চিত না হন সেই ব্যবস্থাই করেছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী।

অন্যদিকে তৃণমূল শিক্ষক সংগঠনের এই সিদ্ধান্তের সমালোচনা করে বামপন্থী সংগঠন বঙ্গীয় শিক্ষক ও শিক্ষাকর্মী সমিতির এক নেতা রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে প্রশ্ন তুলেছেন। তিনি বলেছেন গরমের ছুটির সময় রাজ্য সরকার মিড ডে মিল দেয়নি, এরফলে রাজ্য সরকার ৩০০ কোটি টাকা সাশ্রয় করেছে। এই বিপুল পরিমাণ অর্থ ছাত্রছাত্রীদের জন্য বরাদ্দ হবে কি? তবে যাইহোক দীর্ঘ ছুটির পর এবার স্কুল খোলার পালা। আগামী ১৪ জুন রাজ্যের সমস্ত স্কুলগুলিতে গরমের ছুটি শেষ হবে। আর ১৫ জুন থেকে রাজ্যের প্রাথমিক, মাধ্যমিক এবং উচ্চমাধ্যমিক স্কুলের পড়ুয়ারা স্কুলে যাবে।

আরও পড়ুন – Govt Guidelines – বিপদে পরার আগে এই মাসের মধ্যে সেরে ফেলুন এই তিনটে কাজ।

Advertisement
JoinJoin