Dearness Allowance hike – জুলাই মাসে পঞ্চায়েত ভোট! ভোটের আগেই ডিএ নিয়ে আশার বার্তা।

Advertisement

Dearness Allowance hike – বকেয়া ডিএ-র দাবিতে রাজ্য সরকারি কর্মীদের একাংশ শহিদ মিনারে দীর্ঘ দিন ধরে প্রতিবাদ চালাচ্ছেন। রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের দাবি ডিএ-র ক্ষেত্রে কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীদের থেকে অনেকটাই পিছিয়ে রয়েছে রাজ্য সরকারি কর্মচারীরা। নবান্নের সঙ্গে বৈঠকে বসেছিলেন সরকারি কর্মীরা। কিন্তু তারপরেও কোনও ফল মেলেনি। বকেয়া ডিএ-র (Dearness Allowance hike) দাবিতে সরকারি কর্মীরা শহিদ মিনার চত্বরে দীর্ঘদিন ধরে আন্দোলন করেছেন।

WhatsApp Group Join Now
Telegram Group Join Now

আগামী ২৫ জুন সংগ্রামী যৌথ মঞ্চের আন্দোলনের ১৫০ দিন সম্পূর্ণ হচ্ছে। তাই এবার সরকারি কর্মীরা ফের মহামিছিল করার সিদ্ধান্ত নিতে চলেছেন। সামনেই পঞ্চায়েত নির্বাচন সেই আবহে মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিককে সংগ্রামী যৌথ মঞ্চ তাদের দু’টি শর্তের কথা আগেই জানিয়েছে। সংগঠনের পক্ষে জানানো হয়েছে রাজ্যকে অতি দ্রুত তিন শতাংশ হারে ডিএ (Dearness Allowance hike) বাড়াতে হবে এবং শীঘ্রই রাজ্য সরকারের সব খালি পদে নিয়োগ করতে হবে।

আরও পড়ুন – Krishak Bandhu Prakalpa – মিলবে না কৃষক বন্ধু প্রকল্পের টাকা! সময় থাকতে এই কাজ করুন।

Advertisement

তাদের এই দাবি পূরণ না করে ভোটের ডিউটিতে পাঠানো হলে তাঁরা ভোটের ডিউটিতে যাবেন না বলে জানিয়ে দিয়েছেন। অর্থাৎ বকেয়া মহার্ঘ্য ভাতা (Dearness Allowance hike) না পেলে তাঁরা নির্বাচনের কাজে যাবেন না। পঞ্চায়েত ভোটের আগে নবান্ন এবং নির্বাচন কমিশনকে এমন হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন সরকারি কর্মচারীদের সংগঠন সংগ্রামী যৌথ মঞ্চ। আগামী জুলাই মাসে পঞ্চায়েত ভোট হতে চলেছে তা ইতিমধ্যেই জানানো হয়েছে।

Advertisement

Dearness allowance hike for state government employees.

আর তার আগেই বকেয়া ডিএ (Dearness Allowance hike) নিয়ে রাজ্যের সরকারি কর্মীদের একাংশ বড় পদক্ষেপ নিতে চলেছে বলে জানা যাচ্ছে। যা নিয়ে তোলপাড় শুরু হয়েছে। সরকারি কর্মীরা চাইছেন তাঁদের বকেয়া মহার্ঘ ভাতা (Dearness Allowance hike) মিটিয়ে দেওয়া হোক। ডিএ-র দাবিতেও আগামী দিনে তাঁরা আরও বড় আন্দোলন করার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন।

তবে এবারের মিছিলে শুধু ডিএ-র (Dearness Allowance hike) দাবি থাকবে না। তার সঙ্গে পঞ্চায়েত ভোটে কর্তব্যরত সরকারি কর্মী-শিক্ষকদের নিরাপত্তার নিশ্চয়তা ও কেন্দ্রীয় বাহিনীর উপস্থিতিতে ভোট প্রক্রিয়া সম্পন্ন করার দাবি জানাবেন সংগ্রামী যৌথ মঞ্চ। আগামী ২৫ জুন তারা এই মিছিল করবেন বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। সংগ্রামী যৌথ মঞ্চের তরফে জানানো হয়েছে ওই দিন হাওড়া ও শিয়ালদা থেকে দুটি মিছিল হবে। সেই মিছিল হাওড়া ও শিয়ালদা থেকে হবে।

তারপর তা শহিদ মিনারে যাবে। সেখানে সমাবেশ হবে। বিভিন্ন জেলা থেকে হাজার হাজার সরকারি কর্মী ও শিক্ষকরা এই মিছিলে অংশ নেবেন বলে সংগ্রামী যৌথ মঞ্চের আশা। ওই মিছিলেই তারা রাজ্য সরকারকে তাদের এই একাধিক দাবির কথা জানাবেন। পঞ্চায়েত ভোটের আগে সরকারি কর্মীদের এই সিদ্ধান্তে রাজ্য সরকার কিছুটা হলেও বিপাকে পড়তে চলেছেন।

এই বিষয়ে সংগ্রানী যৌথমঞ্চের এক নেতা নির্ঝর কুণ্ডু বলেছেন এই সরকারের আমলে সরকারি কর্মীদের কোনও নিরাপত্তা নেই। সেই কারণে সব স্তরের কর্মীদের আহ্বান জানানো হবে, তাঁরা যেন ভোটের ডিউটিতে কেন্দ্রীয় বাহিনীর দাবি জানান। তাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত হওয়ার পরই তারা যেন ভোটের ডিউটিতে যান। ভোটের আগে সংগ্রামী যৌথ মঞ্চের এই সব দাবি রাজ্য সরকার মেনে নেন কিনা এখন সেটাই দেখার বিষয়।

আরও পড়ুন – Summer vacation – রাজ্যজুড়ে স্কুলে বাতিল হচ্ছে শনিবারের ছুটি স্কুল খুলতেই নয়া নির্দেশ।

Advertisement
JoinJoin