BSNL recharge plan দুর্দান্ত অফার!মাত্র ২২৮ টাকায় ১ বছর সক্রিয় থাকবে মোবাইল নম্বর, মাসে খরচ মাত্র ১৯ টাকা

Advertisement

Bsnl recharge plan: জিও, এয়ারটেল, ভোডাফোন-আইডিয়া এই সমস্ত টেলিকম সংস্থাগুলি কয়েক মাস আগেই তাদের রিচার্জ প্ল্যানগুলির দাম বাড়িয়েছে।এর ফলে মধ্যবিত্তদের কপালে চিন্তার ভাজ পরেছে, কারণ তাদের পকেটের টান আরো বাড়তে চলেছে।দাম বাড়িয়ে দেওয়ার কারণে বহু গ্রাহকও হারিয়েছে সংস্থাগুলি।আগামী দিনেও নাকি সংস্থাগুলি রিচার্জ প্ল্যানগুলির দাম আরো বাড়াতে পারে।

WhatsApp Group Join Now
Telegram Group Join Now

টেলিকম দুনিয়ায় প্রতিযোগিতা চরমে।কারন গ্রাহক ধরে রাখতে নিত্য-নতুন প্ল্যান নিয়ে হাজির হচ্ছে বেসরকারি সংস্থাগুলি।তবে জিও, ভোডাফোন-আইডিয়া এবং এয়ারটেলকে জোরদার টক্কর দিচ্ছে বিএসএনএল।একদিকে বিভিন্ন টেলিকম সংস্থাগুলি তাদের রিচার্জের প্ল্যানের দাম বাড়িয়ে যাচ্ছে ঠিক তার উল্টো দিকে বিএসএনএল কিন্তু গ্রাহকদের রক্ষার্থে এবং সুবিধার জন্য নিজেদের প্ল্যান (Bsnl recharge plan) গুলোর দাম একই রেখেছে।

Advertisement

বিএসএনএল কোম্পানি জিও, ভোডাফোন-আইডিয়া এবং এয়ারটেলের সাথে প্রতিযোগিতায় নেমেছে।এই কোম্পানির সব থেকে সস্তা প্ল্যান বাজারে লঞ্চ হতে চলেছে।যার নাম ভয়েস রেট কাটার নাইনটিন। এই রিচার্জে প্রত্যেক মিনিটে ২০ পয়সা করে কাটবে।প্রতিদিনের ভ্যালিডিটি সম্পন্ন।তবে আপনাকে যদি অতিরিক্ত কল করতে হয় তাহলে অতিরিক্ত ব্যালেন্স রিচার্জ করতে হবে, ইনকামিং এবং এসএমএস একদমই ফ্রি।

Advertisement

বিএসএনএল এর এই প্ল্যান (Bsnl recharge plan) তাদের ক্ষেত্রে খুব সুবিধা হবে যাদের দুটো সিম রয়েছে।কারন বর্তমান সময়ে মোবাইল রিচার্জ করা অত্যন্ত প্রয়োজনীয়তা। রিচার্জ ছাড়া কখনই ফোনে ইনকামিং কল আসবে না। সেই জন্য নিজের নাম্বারটিকে সচল রাখার জন্য রিচার্জ করতেই হবে।তাই সেই সমস্ত মানুষদের জন্য বিএসএনএল নতুন এই সুবিধা নিয়ে এসেছে। সারা বছর যদি নিজের নাম্বারটিকে সচল রাখতে চান, তাহলে মাত্র ২২৮ টাকা দিয়ে রিচার্জ করলেই এই সুবিধা পাওয়া যাবে। অর্থাৎ মাসে খরচ পড়বে মাত্র ১৯ টাকা।

কিছুদিন আগেই শোনা গিয়েছিল বিএসএনএল ২৮ দিনের ভ্যালিডিটি সম্পূর্ণ রিচার্জের প্যাকগুলিকে এবার ৩০ দিনের ভ্যালিডিটি সম্পন্ন করা হবে যদিও এখনও পর্যন্ত সেই কাজ হয়নি।বিএসএনএল রিচার্জ প্ল্যানগুলির দিক দিয়ে এগিয়ে থাকলেও ফোর জি পরিষেবার দিক দিয়ে পিছিয়ে রয়েছে।কারন বর্তমানে অন্যান্য টেলিকম সংস্থাগুলি
ফোর জি পরিষেবার দিকে অনেক এগিয়ে রয়েছে। সেক্ষেত্রে বিএসএনএল তাদের ফোর জি পরিষেবার জন্য কিছুটা অংশে পিছিয়ে রয়েছে।

অনান্য টেলিকম কোম্পানি গুলো ফাইভ-জি পরিষেবাতে প্রবেশ করেছে।কিন্তু বিএসএনএল এখনো ফোর জি পরিষেবাই চালু করতে পারেনি।তবে আগামী ১৫ই আগস্টের পরে বিএসএনএল ফোর জি BSNL 4g পরিষেবা চালু (Bsnl recharge plan) করতে চলেছে।এই সমস্ত সুবিধার জন্য বিএসএনএল আগামী দিনে দেশের সবথেকে বড় টেলিকম সংস্থা হিসেবে আত্মপ্রকাশ করতে চলেছে বলে আশা করা যাচ্ছে।

Advertisement

Leave a comment