Indian Note – ৯৯% মানুষই জানেন না, ভারতীয় নোট কি দিয়ে তৈরি করা হয় ! দেখুন আজানা তথ্য।

Advertisement

বর্তমানে ডিজিটাল পেমেন্ট (Indian Note) এর যুগে আমরা ক্যাশ ব্যবহার করি না বললেই চলে। কিন্তু এ কথাও ঠিক আমরা যতই ক্যাশ কম ব্যবহার করি না কেন কোনদিন এই ক্যাশ সিস্টেম বন্ধ হয়ে যাবে না অথবা নোট বাজার (Indian Note) থেকে উঠে যাবে না। বর্তমানে ভারতে যে সমস্ত নোটগুলি রয়েছে সেগুলি হল ১০, ২০, ৫০, ১০০, ২০০ এবং ২০০০ টাকার নোট। কিন্তু আপনি কি জানেন এই নোটগুলি কি দিয়ে তৈরি হয়?

WhatsApp Group Join Now
Telegram Group Join Now

আমরা অনেকেই মনে করি যে নোটগুলি (Indian Note) কাগজের তৈরি। ৯০% লোকই তাই জানে। কিন্তু একবার ভেবে দেখুন তো নোট কোন কারনে ঘামে ভিজে গেলে অথবা বৃষ্টির জলে ভিজে গেলে কিংবা কোনো কারণে চলে পড়ে গেলেও সহজে ছেড়ে না কেন? এমন কিছু যদি আপনার কাগজের সঙ্গে হয় তাহলেও সেটি খুব সহজেই ছিড়ে যায়। কিন্তু নোট জলে ভিজে যাওয়ার পর আপনি কিছুক্ষণ রেখে শুকিয়ে নিলে সেটি তো আর ছেড়ে না। তাহলে এবার আপনার মনে নিশ্চয়ই প্রশ্ন যাচ্ছে যে নোট কি দিয়ে তৈরি হয়।

ভারতীয় নোট (Indian Note) কি দিয়ে তৈরি করা হয় !

Advertisement

রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া থেকে যে নোটগুলি (Indian Note) তৈরি করা হয় সেই নোটগুলি কখনোই কাগজের তৈরি করা হয় না অথবা আগেও কাগজের তৈরি করা হতো না। এগুলি এক প্রকার বিশেষ মেটারিয়াল দিয়ে তৈরি করা হয়। ভারতে কার্পাস নামক একটি মেটেরিয়াল রয়েছে এই চার পাঁচ কে ব্যবহার করে নোটগুলি তৈরি করা হয়। কার্পাস হলো এক ধরনের কটন পদার্থ যা দিয়ে ই এই নোটগুলি তৈরি করা হয়। এবং কয়েনগুলি তৈরি করা হয় বিভিন্ন ধাতব পদার্থ দিয়ে।

Advertisement

আরও পড়ুন – 5 Rupees Coin – বাজার থেকে উঠিয়ে নিল ৫ টাকার কয়েন RBI? কারণ জানলে অবাক হবেন।

যদিও বর্তমানে নোটের (Indian Note) ব্যবহার অনেক কমে গেছে। এর কারণ ভারতে কি মনিটাইজেশনের পথকে মানুষ ডিজিটাল পেমেন্টের দিকে বেশি ঢুকেছে যার ফলে সামান্য পাঁচ টাকার চা খেয়ে পয়সা দেওয়া থেকে শুরু করে ইলেকট্রিকের বিল সমস্ত কিছুই দিচ্ছে অনলাইন পেমেন্টের মাধ্যমে। যার ফলে লোকের ব্যবহার কিছুটা কমলেও মোট কখনো বন্ধ হয়ে যেতে পারে না।

যদিও বর্তমানে বাজারে পুরনো ১০ টাকা কুড়ি টাকা ৫০ টাকা ১০০ টাকা নোটের সঙ্গে সঙ্গে এসছে নতুন 10,20,50 ও 100 নোট। পুরানো 500 এবং হাজারের নোট (Indian Note) পুরোপুরি বন্ধ করে দিয়ে বাজারে এসেছে নতুন ৫০০ এবং ২০০০ টাকার নোট। কিন্তু পুরানো দশ কুড়ি পঞ্চাশ ১০০ টাকার নোট এখনো বাজারে ব্যবহার যোগ্য। এবং এই পুরনো নোটগুলোর (Old Indian Note) পাশাপাশি নতুন নাটক এই কার্পাস ব্যবহার করেই বানানো হয়।

আরও পড়ুন – এবার খুব সহজেই বাড়িতে বসে রেশন কার্ডের ভুল তথ্য সংশোধন করে নিন। Ration card Correction update

Advertisement