Lakshmir Bhandar – লক্ষীর ভান্ডার নিয়ে নয়া ঘোষনা! নবান্ন কি নয়া নির্দেশ দিল জানুন

Lakshmir Bhandar scheme – লক্ষীর ভান্ডার নিয়ে সুখবর দিল নবান্ন?

রাজ্যের মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাজ্যে একাধিক জনমুখি প্রকল্প চালু করেছেন। প্রকল্পগুলির মধ্যে একটি উল্লেখযোগ্য প্রকল্প হল Lakshmir Bhandar প্রকল্প। এই প্রকল্পগুলি থেকে সুবিধা পাচ্ছেন গোটা রাজ্যের মানুষ। রাজ্যের মহিলাদের বিশেষ করে ঘরের গৃহিণীদের অর্থনৈতিক ভাবে স্বাবলম্বী করতেই ২০২১ সালে লক্ষ্মীর ভাণ্ডার প্রকল্পের সুচনা করেন মুখ্যমন্ত্রী।

এই প্রকল্পে রাজ্যের সাধারণ ক্যাটাগরির মহিলারা মাসে ৫০০ টাকা এবং তপশিলি জাতী-উপজাতি সম্প্রদায়ের সকল মহিলা মাসে ১০০০ টাকা করে মাসিক ভাতা পান। দুয়ারে সরকার প্রকল্পের মাধ্যমে লক্ষ্মীর ভাণ্ডার বা Lakshmir Bhandar প্রকল্পে আবেদন জানানোর কাজ শুরু হয়েছিল। গত ১ নভেম্বর থেকে রাজ্য জুড়ে আবার দুয়ারে সরকার শিবির শুরু হয়েছে।

Advertisement

শিক্ষক নিয়োগে ফের স্থগিতাদেশ দিল কলকাতা হাইকোর্ট। প্রার্থীদের মাথায় হাত।

প্রত্যেক জায়গার দুয়ারে সরকার শিবিরেই লক্ষ্মীর ভান্ডারে নজরকাড়া ভিড় দেখা যাচ্ছে। কিন্তু অনেক জায়গার শিবির থেকে আধার কার্ড বা স্বাস্থ্য সাথী কার্ড না থাকলেই লক্ষীর ভান্ডারের আবেদনকারীকে দুয়ারে সরকারের ক্যাম্প থেকে ফিরিয়ে দেওয়া হচ্ছে। এই নিয়ে নবান্নের কাছে অভিযোগ এসেছে।

তাই এবার Lakshmir Bhandar নিয়ে নয়া নির্দেশ দিল নবান্ন। এবার থেকে লক্ষ্মীর ভাণ্ডারে আবেদনের ক্ষেত্রে আর আঁধার কার্ড বা স্বাস্থ্য সাথী কার্ড লাগবে না। সম্প্রতি নবান্নের তরফে জেলায় জেলায় এমনই নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

লক্ষ্মীর ভাণ্ডার নিয়ে এই সিদ্ধান্তের কারণ হল দুয়ারে সরকার ক্যাম্পে লক্ষ্মীর ভাণ্ডারে যে সব মহিলারা আবেদন করতে আসছেন, তাদের মধ্যে অনেকের আঁধার বা স্বাস্থ্য সাথী কার্ড নেই।এই কারনে তারা দুয়ারে সরকার ক্যাম্প গিয়েও আবেদন করতে পারছেন না। এটি রাজ্য সরকারের কাছে বেশ অস্বস্তির, তাই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

আধার কার্ড বা স্বাস্থ্য সাথী কার্ড না থাকলেও লক্ষীর ভান্ডারে আবেদনকারী মহিলাকে আর ফেরানো যাবে না বলে নির্দেশ দিল নবান্ন। সরকারি তরফে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে এবার থেকে লক্ষ্মীর ভাণ্ডারে আবেদনের ক্ষেত্রে আর আঁধার কার্ড কিংবা স্বাস্থ্য সাথী কার্ড বাধ্যতা মূলক নয়।

শনিবার এই গুরুত্বপূর্ণ নির্দেশ দিলেন মুখ্য সচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদী। প্রত্যেকটি জেলা শাসককেই এই মর্মে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।
এই সম্পর্কিত অন্যান্য খবরের আপডেট সবার আগে পেতে হলে এই ওয়েবপোর্টালটি ফলো করতে ভুলবেন না।
Written by Sunita Mallick.

বাতিল একাধিক রেশন কার্ড! এই তালিকায় আপনার নাম নেই তো?

Advertisement

Sunita Mallick

আমি সুনিতা মল্লিক গত কয়েক বছর ধরে আমি সকালের বার্তা নিউজ পোর্টালের সাথে যুক্ত আছি যেখানে আপনাদের জন্য ভাইরাল নিউজ ও ইন্টারটেনমেন্ট নিউজ আমি লেখালেখি করে থাকি, আশা করি আমার লেখাগুলো আপনাদের ভাল লেগে থাকবে। ভালো লাগলে অবশ্যই শেয়ার করবেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *