Anna Bhagya Scheme: রাজ্যবাসীর জন্য সুখবর! এবার রেশন কার্ড থাকলেই প্রতিমাসে টাকা পাঠাবে সরকার।

Advertisement

Anna Bhagya Scheme: রাজ্যের আর্থিকভাবে পিছিয়ে থাকা জনসাধারণের জন্য বিনামূল্যে রেশন (Free Ration) পরিষেবা দেয় সরকার। স্বল্পমূল্যে চাল, ডাল থেকে প্রয়োজনীয় খাদ্যদ্রব্য তুলে দেওয়া হয় সরকারের তরফে। করোনা পরিস্থিতির সময় অতিমারির দাপটে যখন টালমাটাল দশা হয় ভারতবাসীর, তখন কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে গ্রহণ করা হয়েছিল প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ। দেশবাসীর পাশে দাঁড়িয়ে রেশন পরিষেবায় গতি আনে কেন্দ্রীয় সরকার। আবার, রাজ্যগুলির তরফেও নেওয়া হয় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা। রেশন গ্রাহকদের অতিরিক্ত সুবিধা দেওয়া হয় ও রেশন দ্রব্যের পরিমাণও বৃদ্ধি করা হয়। ভারতের আমজনতার পাশে দাঁড়িয়ে সরকার বিনামূল্যে রেশন পরিষেবার সুবিধা দেয়।

WhatsApp Group Join Now
Telegram Group Join Now
Advertisement

পশ্চিমবঙ্গের রাজ্য সরকারও রেশন পরিষেবার জন্য নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যাদির দাম কমায়। শুধু তাই নয় বাংলায় রাজ্যবাসীর দুয়ার পর্যন্ত রেশন (Duyare Ration) পরিষেবা পৌছনোর ব্যবস্থাও করে মমতা সরকার। রাজ্যবাসীর এই উদ্যোগ নিঃসন্দেহে জনপ্রিয়তা পায় সমস্ত মহলে। তবে এবার অন্য একটি রাজ্যের সরকার এমন এক পদক্ষেপ নিয়েছে যা মুখে হাসি ফোটাচ্ছে সেই রাজ্যের বাসিন্দাদের। রেশন কার্ড থাকলেই এই সুবর্ণ সুযোগ পাবেন রাজ্যবাসী। বিনামূল্যে খাদ্যদ্রব্যের পাশাপাশি এবার সরাসরি ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে আসবে টাকা

Advertisement

Ration Card থাকলে সরাসরি ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে আসবে টাকা

ভারতের প্রায় প্রতিটি রাজ্যেই রেশন পরিষেবার আওতাধীন জনসাধারণ বিনামূল্যে চাল ও গম পান। তবে এবার এর সঙ্গেই মিলবে অতিরিক্ত সুবিধা। সম্প্রতি এমনটাই ঘোষণা করছে কর্ণাটক সরকার। সরকারের তরফে ঘোষণা করা হয়েছে যে, এবার থেকে রাজ্যবাসী চালের সঙ্গে পাবেন টাকা। রাজ্যবাসীর সুবিধার্থে যুগান্তকারী পদক্ষেপ নিয়েছে কর্ণাটকের সিদ্দারামাইয়া সরকার। নতুন সরকারি প্রকল্পে মিলবে এই সুবিধা। এই প্রকল্পের নাম ‘অন্ন ভাগ্য’ প্রকল্প বা Anna Bhagya Scheme। দেশের প্রান্তিক পরিবার গুলির হাতে এবার চালের সঙ্গে টাকা তুলে দেবে রাজ্য সরকার।

কি এই ‘অন্ন ভাগ্য’ প্রকল্প বা Anna Bhagya Scheme ?

কর্ণাটক সরকারের তরফে সম্প্রতি একটি নতুন প্রকল্পের সূচনা করা হয়েছে। প্রকল্পের নাম হল Anna Bhagya Scheme। সিদ্দারামাইয়া সরকারের তরফে চালু হওয়া এই প্রকল্প হল একটি বিনামূল্যে চাল প্রকল্প। এই প্রকল্পের আওতায় রাজ্যের বিপিএল কার্ডধারী (BPL Raion Card) পরিবারগুলিকে প্রতিমাসে দশ কেজি চাল দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে সরকার। সংশ্লিষ্ট দশ কেজি চালের মধ্যে পাঁচ কেজি চাল দেবে কেন্দ্রীয় সরকার

আরও পড়ুন – Alternate Aadhar Card : যাদের আধার কার্ড বন্ধ হচ্ছে তাদের জন্য নতুন কার্ড দেবে রাজ্য

কত টাকা পাবেন Ration Card-এর মাধ্যমে?

এরপর আরও অতিরিক্ত পাঁচ কেজি চাল কর্ণাটকের রাজ্য সরকারের তরফে পাবেন জনগণ। আর সেই কারণেই প্রতিমাসে BPL কার্ড থাকা পরিবারগুলিকে ১৭০/- টাকা করে পাঠানো হবে বলে জানিয়েছে সিদ্দারামাইয়া সরকার। সরাসরি ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে আসবে এই টাকা। তবে ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের সঙ্গে যদি আধার লিঙ্ক (Aadhar Link) না থাকে তবে এই সুবিধা মিলবে না। একটি পরিসংখ্যান বলছে, কর্ণাটকের ২২ লক্ষ মানুষের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের সঙ্গে আধার লিঙ্ক নেই। তাঁরা কিন্তু এই সুবিধা থেকে বঞ্চিত হবেন। তাই চালের সঙ্গে অর্থ তথা ‘অন্ন ভাগ্য’ প্রকল্পের (Anna Bhagya Scheme) সুবিধা পেতে শীঘ্রই ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের সঙ্গে আধার লিঙ্ক করিয়ে নিন।

রাজ্যের গরিব পরিবারগুলির হাতে অর্থ সাহায্য তুলে দেবে সরকার। কর্ণাটক রাজ্যে BPL কার্ড থাকা অধিবাসীরা পাবেন বিশেষ সুবিধা। রাজ্য সরকারের তরফে পরিবারের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে পাঠানো হবে টাকা। বর্তমানে কর্ণাটকে BPL কার্ড রয়েছে মোট ১.২৮ কোটি পরিবারের। এই প্রতিটি BPL কার্ডধারী পরিবার পাবেন নতুন প্রকল্প ‘অন্ন ভাগ্য’-এর সুবিধা। সরকারের তরফে পরিবার গুলির ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে প্রতি মাসে ১৭০ টাকা করে পাঠানো হবে। এই টাকা ব্যবহার করা যাবে পাঁচ কেজি চাল কেনার জন্য।

আরও পড়ুন – Lakshmir Bhandar Scheme: লক্ষ্মীর ভাণ্ডার প্রকল্পে প্রতিমাসে ১০০০/ ১২০০ টাকা চান? তবে আগেই জমা করতে হবে এই ফর্ম

Advertisement
About Author
Prabir Biswas

Prabir Biswas

আমি গত চার বছর ধরে সকালের বার্তা ডিজিটাল নিউজ মিডিয়ায় কাজের সঙ্গে যুক্ত আছি। আমি মুলত যেকোনো ধরণের জেনারেল নিউজ যেমন সরকারি চাকরির আপডেট, স্কলারশিপ, সরকারি প্রকল্প, অর্থনৈতিক, টেকনোলজি ইত্যাদি বিষয়ে লেখায় পারদর্শী।