Advertisement
টেক গাইড

Awas yojana apply 2022 : বাংলা আবাস যোজনায় আবেদন করলে ১,২০,০০০ টাকা পর্যন্ত পেয়ে যাবেন, আবেদন করবেন কিভাবে জানুন

একটি আশ্রয়হীন ব্যক্তির জন্য, একটি ঘর তার অস্তিত্বের মধ্যে একটি গভীর সামাজিক পরিবর্তন নিয়ে আসে,তাকে একটি পরিচয় প্রদান করে।

Awas yojana apply 2022: আবাসন মানুষের বেঁচে থাকার অন্যতম মৌলিক প্রয়োজনীয়তা। একটি সাধারণ নাগরিকের জন্য একটি বাড়ির মালিকানা অর্থনৈতিক ও সামাজিক নিরাপত্তা এবং সমাজে মর্যাদা প্রদান করে। একটি আশ্রয়হীন ব্যক্তির জন্য, একটি ঘর তার অস্তিত্বের মধ্যে একটি গভীর সামাজিক পরিবর্তন নিয়ে আসে,তাকে একটি পরিচয় প্রদান করে।

Advertisement

প্রতিটি মানুষেরই স্বপ্ন থাকে নিজের বাড়ি গড়ার। যদিও ভারতে স্বাধীনতার পর থেকেই খাদ্য, বস্ত্রের পাশাপাশি বাসস্থানের অভাব আজও রয়ে গিয়েছে। পর্যাপ্ত পরিমান বাসস্থানের অভাব একবিংশ শতকের ভারতে আজও এক জ্বলন্ত সমস্যা।নিজের সামান্য জমি বা একটুকরো বাড়ির সাধ কার না হয়? কিন্তু শুধু সাধ থাকলেই তো আর চলে না। সাধ্য থাকাও জরুরি। যাঁদের নিজেদের সাধ্য নেই এই বাড়ি করার,বাংলা আবাস যোজনার মাধ্যমে (Awas yojana apply 2022) তাঁদের জন্যই এগিয়ে এসেছে রাজ্য সরকার।

Advertisement

মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রীর একের পর এক প্রকল্প মানুষের, বিশেষ করে গরিব মানুষের অনেক সুবিধা করে দিয়েছে। পশ্চিমবঙ্গের মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি তিনি ঘোষণা করেছেন যে, বাংলায় যত গরিব মানুষ রয়েছেন তাদের জন্য একটা নতুন প্রকল্প চালু করা হয়েছে বাংলা আবাস যোজনা 2022 (Bangla Awas Yojana BAY 2022 )।

আরও পড়ুন :  বেসরকারি সংস্থায় আধার কার্ডের ফোটোকপি না দেবার বিজ্ঞপ্তি কেন্দ্রর, ব্যবহার করতে হবে মাস্কড আধার কার্ড
Advertisement

বাংলা আবাস যোজনার (Awas yojana apply 2022) জন্য পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কয়েক হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ করেছেন। এই প্রকল্পের আওতায় সমস্ত গরিব মানুষ এই সুবিধা পাবেন।যারা এখনও প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার বাড়ি পাননি, সেই সকল ব্যক্তিরা এই আবাস যোজনায় নাম নথিভুক্ত করতে পারবেন।

Advertisement

বাংলা আবাস যোজনার (Awas yojana apply 2022) উদ্দেশ্য কি?

বাংলা আবাস যোজনার উদ্দেশ্য হলো, আর্থিক ভাবে পিছিয়ে থাকা দরিদ্ররা যারা গৃহহীন বা মাটির কাঁচা বাড়িতে বাস করে তাদের একটি পাকা বাড়ি তৈরি করার জন্য আর্থিক সহায়তা প্রদান করা। এই প্রকল্পের মাধ্যমে ২০২২ সালের মধ্যে দারিদ্র্য সীমার নীচে থাকা প্রত্যেকটি পরিবারকে পাকা বাড়িতে বসবাস করার সুবিধা দেওয়ার জন্য কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে।SECC (আর্থ-অর্থনৈতিক কাস্ট সেন্সাস) তালিকা থেকে গ্রাহকদের নির্বাচিত করা হয়। প্রতিটি ভোক্তাকে ১,২০,০০০/- (এক লাখ বিশ হাজার) টাকা দেওয়া হয়,তিন কিস্তিতে তাদের নিজস্ব বাড়ি প্রস্তুত করতে।

বাংলা আবাস যোজনায় কতো টাকা করে দেওয়া হয়?

বাংলা আবাস যোজনায় তিনটি কিস্তিতে মোট ১,২০,০০০ টাকা দেওয়া হয়। প্রথম কিস্তিতে ৪৫,০০০ টাকা, দ্বিতীয় কিস্তিতেও ৪৫,০০০ টাকা এবং তৃতীয় কিস্তিতে ৩০,০০০ হাজার টাকা বাড়ি বানানোর জন্য দেওয়া হয়। এই টাকা সরাসরি উপভোক্তার ব্যাংক অ্যাকাউন্টে দিয়ে দেওয়া হয় (Awas yojana apply 2022) ।

কারা কারা এ প্রকল্পের আবেদন করতে পারবেন?

  • (১) আবেদনকারীকে পশ্চিমবঙ্গের স্থায়ী বাসিন্দা হতে হবে।
  • (২) আবেদনকারীর পাকা বাড়ি না থাকলে তবেই আবেদন করতে পারবে।
  • (৩) আবেদনকারীর বার্ষিক পারিবারিক ইনকাম ১ লক্ষ টাকা বা তার নীচে হতে হবে।
  • (৪) আবেদনকারীর বিপিএল রেশন কার্ড থাকতে হবে।
  • (৫) আবেদনকারীর নির্দিষ্ট জমির দলিল বা পরচা থাকতে হবে।
  • (৬) আবেদনকারী সরকারি চাকরিজীবী হলে আবেদন করতে পারবে না।

এই প্রকল্পে আবেদন করতে কী কী লাগবে?

  • (১) পাসপোর্ট সাইজ ছবি।
  • (২) রেশন কার্ডের জেরক্স।
  • (৩) আধার কার্ডের জেরক্স।
  • (8) BPL কার্ড ।
  • (৫) ইনকাম সার্টিফিকেট।
  • (৬) ব্যাংক অ্যাকাউন্টের পাসবুকের জেরক্স।

বাংলা আবাস যোজনায় আবেদন করবেন কীভাবে?

এই প্রকল্পে আবেদন করতে হলে আপনাকে স্থানীয় পঞ্চায়েত অফিসে গিয়ে আবেদনের জন্য একটি ফর্ম নিতে হবে (Awas yojana apply 2022)। সেটি ভালো করে ফিল আপ করে তার সাথে উপরোক্ত ডকুমেন্টসগুলো অ্যাটাচ করে জমা করতে হবে। আবেদনের কিছুদিন পরে এই প্রকল্পের দায়িত্বপ্রাপ্ত সরকারি অধিকারিকরা আপনার সমস্ত নথি যাচাই করে সত্য বলে মনে করলে আপনার নাম বাংলা আবাস যোজনায় নথিভুক্ত করা হবে।এরপর তিনটি কিস্তির মাধ্যমে সরাসরি অ্যাকাউন্টে বাংলা আবাস যোজনার টাকা ঢুকে যাবে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button