OMG! মাত্র ২৬ হাজার টাকায় প্লাস্টিকের বালতি ও দুটি মগ ১০ হাজার টাকায় বিক্রি হচ্ছে, মাসিক কিস্তির সুবিধাও রয়েছে

বর্তমানে ঘরে বসে এক ক্লিকেই কেনাকাটা সারতে মানুষ বেশি পছন্দ করেন।এখন বিশ্বের উল্লেখযোগ্য আধুনিকায়ন হল অনলাইন কেনাকাটা।বিশেষ করে কোভিড মহামারির আগমনের পর থেকে অনলাইন শপিংয়ের পরিমাণ ব্যাপক হারে বেড়েছে।নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিস থেকে শুরু করে আসবাবপত্র, জামাকাপড়, ওষুধ, কিংবা মুদিখানার সামগ্রী এখন প্রায় সবকিছুই অনলাইনে পাওয়া যায়। আর সবচেয়ে বড়ো ব্যাপার হল, বাজারের তুলনায় ই-কমার্স সাইটগুলিতে অনেক কম দামে হরেক রকমের প্রোডাক্ট কেনার সুযোগ পান ক্রেতারা।তাই যত দিন যাচ্ছে মানুষ ততোই অনলাইন শপিংয়ের দিকে বেশি করে ঝুঁকছেন।

আবার অনেক ক্ষেত্রেই দেখা যায় যে মার্কেটে কোনো-একটি জিনিসের যা দাম, তার তুলনায় ওয়েবসাইটে সেটির দাম অনেকটাই বেশি থাকে। আর একটু-আধটু বেশি নয়, একেবারে গলাকাটা দামে বিক্রি হয় সাধারণ তুচ্ছ একটা জিনিস, যার দাম শুনলে রীতিমতো চমকে যাবেন আপনিও।বহু জনপ্রিয় এক ই কমার্স সংস্থার সাইটে প্লাস্টিকের মগ ও বালতির দাম দেখে চক্ষু চড়কগাছ সকলের।

Advertisement

একটা ভালো মানের প্লাস্টিকের বালতির দাম সর্বোচ্চ কত টাকা হতে পারে? খুব বেশি হলে ৫০০ টাকা, কিন্তু এক ই-কমার্স সাইটে প্লাস্টিকের বালতির দাম ২৬ হাজার টাকা। তাও আবার ২৮ শতাংশ ছাড় দেওয়ার পরে।শুধু কি তাই, দুটি প্লাস্টিকের মগের দাম ১০ হাজার টাকা। এখন নিশ্চয়ই আপনাদের মনে প্রশ্ন আসছে যে, সামান্য প্লাস্টিকের বালতি এবং মগ এরকম অগ্নিমূল্য হওয়ার কারণ কী?বাস্তবে কি এত দাম হতে পারে নাকি প্রযুক্তিগত কোন ভুল, তা নিয়ে সংস্থার পক্ষ থেকে এখনও কিছু জানান হয়নি। তবে এই অফার নিয়ে শোরগোল পড়েছে নেট দুনিয়ায়।

সম্প্রতি অ্যামাজন (Amazon)-এ এক বিক্রেতাকে ৫৫ শতাংশ ছাড়ের পরে ২৫, ৯৯৯ টাকায় একটি লাল রঙের প্লাস্টিকের বালতি ও ১০ হাজার টাকার বিনিময়ে দুটি প্লাস্টিকের মগ বিক্রি করছেন বলেও খবর রটেছে।দাম-সহ সেই বালতির ছবির স্ক্রিনশট মুহূর্তে ভাইরাল নেটমাধ্যমে।নেটদুনিয়ায় ব্যাপক ট্রোলিংয়ের শিকার হচ্ছে অ্যামাজন। কেউ বলছে, প্রতারণা করে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার সহজ উপায়। আবার কেউ বলছে, ইউজাররা কি এতটাই বোকা যে প্লাস্টিকের মগ-বালতির দাম জানবে না।

এই স্ক্রিনশট অনুযায়ী ওয়েবসাইটটিতে দুটি প্লাস্টিকের মগের আসল দাম দেখানো হয়েছে ২২,০৮০ টাকা, আর ৫৫ শতাংশ ডিসকাউন্টের সুবাদে এই দাম কমে দাঁড়িয়েছে ৯,৯১৪ টাকায়। অন্যদিকে লাল রঙের প্লাস্টিকের বালতিটির প্রাথমিক মূল্য ৩৫,৯৯০ টাকা। তবে ২৮ শতাংশ ছাড়ের পর সেটিকে ২৫,৯৯৯ টাকায় বিক্রির জন্য উপলব্ধ করা হয়েছে। তবে এখানেই শেষ নয়, আরও মজার ব্যাপার হল স্ক্রিনশটটিতে দেখা যাচ্ছে যে এই বালতি এবং মগ মাসিক প্রায় ১,২২৪ টাকা ইএমআই দিয়েও কেনার সুযোগ পাবেন ইউজাররা, যা দেখে রীতিমতো তাজ্জব সকলে।

মূলত প্রযুক্তিগত ত্রুটিই এর কারণ বলে মনে করা হচ্ছে। কিন্তু অনেক সময় মানুষকে নিছক ঠকানোর জন্যও সেলাররা স্বাভাবিকের তুলনায় অনেকটাই বেশি দামে প্রোডাক্ট এনলিস্ট করে। আর এই প্রথম নয়, Amazon-এ এর আগেও এরকম বহু ঘটনা ঘটেছে। তবে এই সাম্প্রতিক ঘটনাটির প্রসঙ্গে জনপ্রিয় ই-কমার্স সাইটটির তরফে এখনও কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি। সেক্ষেত্রে অগ্নিমূল্য দামে প্লাস্টিকের বালতি এবং মগ বিক্রি হওয়ার আসল কারণটি প্রকাশ্যে আসে কি না, এখন সেটাই দেখার।যদিও এর পিছনে যে কোম্পানির কোনো দোষ নেই, তা মানতে নারাজ নেটিজেনরা।

Advertisement

News Desk

Sakalerbarta.com is a regional Bengali news portal. It was founded on 14 September 2020. sakalerbarta.com News is a great source of information for everyone. We provide information on Latest News, educational News, current affairs, current topics News, and trending News. Our main goal is to give information that can be used responsibly. We are not affiliated with any government organization and do not host any government website.

Related Articles